নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি একজন বাঙ্গালি। বাংলা আমার ভাষা, নিভৃত আবাস ও অহংকার। \n\n বিঃ দ্রঃ- ব্লগে ছন্দ নামে দ্বন্দ্ব নাই।

কবি হাফেজ আহমেদ

অসাধারণ মানুষগুলো সাধারণ হয়, অতিসাধারণ মানুষগুলো মানুষ হ্য়, মানুষ হতে হলে সাধারণ হতে হয়। হাফেজ আহমেদ

কবি হাফেজ আহমেদ › বিস্তারিত পোস্টঃ

বাংলায় প্রথম প্যালিন্ড্রোম এক্রোস্টিক

১৩ ই জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:৫৯



কবিতাটির প্রতিটি চরণ ডান হতে বামে এবং বাম হতে ডানে উল্টো করে পড়ে আসলে একই রকম হবে এবং উপর হতে নিচ পর্যন্ত প্রতিটি চরণের প্রথম বর্ণটি আলাদা করে একসাথে পড়লে একজন মহান ব্যাক্তির নাম খুঁজে পাবেন। এমনকি উপর হতে নিচ পর্যন্ত প্রতিটি চরণের শেষের বর্ণটি আলাদা করে একসাথে মিলালেও তাঁর নাম খুঁজে পাবেন। গবেষণাধর্মী প্যালিন্ড্রোম "মাটি মা" একক কাব্যগ্রন্থে কবিতাটির
বিস্তারিত বিশ্লেষণ থাকছে।

জনক
হাফেজ আহমেদ

"শের'পণ রক্তে ভক্তে রণ পরশে
খরাতম সেরা রক্তের রাসে মত রাখ
মুক্তির সহসা এ মাটি মা'এ সাহস রক্তি'মু
জিতানো খত করতা প্রতারক তখনো তাজি
বুলেটে রক্তে রকে বুলি বুলবুলি বুকে রক্তে রটে লেবু
রবে সর্বসমক্ষের সে তুমি তুসের ক্ষেম সর্ব সবের
রবের তরফে তখত ফেরত রবের
হব আমি আবহ
মাগো ওগো মা
নয়ন কেন জলে জ্বলে জনকে নয়ন!"

অর্থ: সিংহের গর্জনে এক রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে অংশ নিয়ে যারা নিজের জীবন দিয়েছে তাঁদের মনে রেখো। এ দেশের মুক্তির জন্য স্বপ্ন দেখেছিলো এক মানুষ। তবুও দেশীয় প্রতারক লিপ্ত ছিলো ষড়যন্ত্রে।সে ষড়যন্ত্রে একদিন সে প্রিয় নেতার শরীর থেকে লেবুর রসের মতো রক্ত ঝরছিলো বুলেটেল আঘাতে।হে স্বাধীনতার পিতা, সেদিন তুমি যেভাবে স্বাধীনতার হুংকার দিয়েছিলে তা অমলীন থাকবে সবার হৃদয়ে।কেড়ে নেওয়া সিংহাসন আসলেও নেই তুমি এখানে। শোকে স্মরণ করি তোমাকে।হে দেশমাতা, বলো না তুমি। আজও মহান পিতার স্মৃতিতে দু-চোখ ভরে আসে জলে।

ব্যাখ্যাটি লিখেছেন, প্রিয় আজগর হোসেন জিসান৷

মন্তব্য ১৪ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:১৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি কি ম্যাথামেটিক্যাল কবি, নাকি টেকনোলোজিক্যাল কবি?

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:০০

কবি হাফেজ আহমেদ বলেছেন: নিজেকে কখনোই কবি মনে করি না ভাই। তবে আজ হতে প্রায় ০৮ বছর আগে সামুতে ছন্দ নাম ভেবেই নিজের নামের পূর্বে কবি শব্দটি যোগ করেছিলাম। কারণ, আমি প্রায় দুই যুগ ধরে কবিতা লিখতে ভালোবাসি। তাই ভেবেছিলাম কবিতা ছাড়া অন্য কিছু পোস্ট করবো না। এবং ব্লগে যারা কবিতাকে ভালোবাসে তারা হয়তো কবি শব্দটি দেখলে আমার মনোভাব বা পোস্টর ধরণ সহজে বুঝতে পারবে। তবে মাঝে মাঝে নামের আগে এ শব্দটি দেখে নিজে নিজে হাসি। পরে ভেবে নেই যে ব্লগে এসব ব্যবহার করা যায়, সমস্যা নেই।

আমি যখন প্যালিন্ড্রোম গবেষক জনাব ফরিদ উদ্দিন নামক এক ভাইয়ের কাছে জানতে পেরেছিলাম যে বাংলাদেশে আজ পর্যন্ত কেউ একটি বর্ণ প্যালিন্ড্রোম কবিতাও লিখতে পারেনি। তখনই শুরু করি প্যালিন্ড্রোম নিয়ে বাংলায় গবেষণা। উনার একটি পোস্ট ছিলো এমন যে "যারা নতুনের খোঁজ করে না, একদিন পৃথিবীও তাঁদের খুঁজবে না।" উক্তিটি যদিও অন্য একজন বিখ্যাত মনিষীর তবুও এই একটি উক্তির উপর বিশ্বাস রেখেই শুরু করি নতুন কিছু গবেষণা। বর্তমানে প্যালিন্ড্রোম লেখার যে কৌশলগুলো আমি আবিষ্কার করেছি তা দিয়ে যে কেউ খুব সহজে প্যালিন্ড্রোম লিখতে সক্ষম হবে। "মাটি মা" শীর্ষক আমার একটি একক প্যালিন্ড্রোম কবিতার বই প্রকাশিত হচ্ছে যেখানে বিশ্বের ৪৪ ধরনের ৫৫ টি কবিতা বাংলা ভাষায় প্যালিন্ড্রোম ভার্সনে সর্বপ্রথম নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করেছি। পাঠক কতটুকু তৃপ্তি পাবে জানি না বইটি সম্পূর্ণ গবেষণামূলক এবং নতুন কিছু নতুন স্বাদে আনার চেষ্টা করেছি। ছোট্ট প্রশ্নের অনেক লম্বা উত্তর দিলাম। ধৈর্য্য সহকারে পড়ার জন্য কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। আপনার প্রতি আমার শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা রয়েছে তাই বলতে বলতে অনেক কথা বলে ফেললাম। আন্তরিক ভালোবাসা গ্রহণ করুন শ্রদ্ধেয় প্রিয়জন ।

২| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:১৮

সাইয়িদ রফিকুল হক বলেছেন: অদ্ভুত ভাবনা। এমন কবিতা আগে পড়িনি।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:০৬

কবি হাফেজ আহমেদ বলেছেন: এবার এমন নিয়মে কবিতার বই পড়ার সুযোগ পাবেন। "মাটি মা" শীর্ষক আমার একটি একক প্যালিন্ড্রোম কবিতার বই প্রকাশিত হচ্ছে যেখানে বিশ্বের ৪৪ ধরনের ৫৫ টি কবিতা বাংলা ভাষায় প্যালিন্ড্রোম ভার্সনে সর্বপ্রথম নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করেছি। পাঠক কতটুকু তৃপ্তি পাবে জানি না। বইটি সম্পূর্ণ গবেষণামূলক এবং নতুন কিছু নতুন স্বাদে আনার চেষ্টা করেছি। এখনই রকমারিতে "মাটি মা" নাম লিখে খুঁজে অর্ডার করতে পারেন। বইটি পেয়ে যাবেন একদম সহজেই। আমার শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা গ্রহন করুন প্রিয়জন।

৩| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:২৯

পদ্ম পুকুর বলেছেন: এতো সাংঘাতিক ব্যাপার!! শব্দ খুঁজে পান কিভাবে? কিন্তু অনেকক্ষেত্রে তো অর্থ বুঝতে অসুবিধা হচ্ছে..

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:১০

কবি হাফেজ আহমেদ বলেছেন: বর্তমানে প্যালিন্ড্রোম লেখার যে কৌশলগুলো আমি আবিষ্কার করেছি তা দিয়ে যে কেউ খুব সহজে প্যালিন্ড্রোম লিখতে সক্ষম হবে। আমি কৌশলগুলো সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেবো। "মাটি মা" শীর্ষক আমার একটি একক প্যালিন্ড্রোম কবিতার বই প্রকাশিত হচ্ছে যেখানে বিশ্বের ৪৪ ধরনের ৫৫ টি কবিতা বাংলা ভাষায় প্যালিন্ড্রোম ভার্সনে সর্বপ্রথম নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করেছি। পাঠক কতটুকু তৃপ্তি পাবে জানি না বইটি সম্পূর্ণ গবেষণামূলক এবং নতুন কিছু নতুন স্বাদে আনার চেষ্টা করেছি। বইটিতে কবিতাটির সম্পূর্ণ ব্যাখ্যা রয়েছে। চাইলে এখনই রকমারিতে "মাটি মা" নাম লিখে খুঁজে অর্ডার করতে পারেন। বইটি পেয়ে যাবেন একদম সহজেই। আমার শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা গ্রহন করুন প্রিয়জন।

৪| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:১৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




আমি হয়তো কবিতা লিখতে পারিনা তবে কবিতা বুঝতে পারি, আপনার কবিতা বোঝার জন্য রিতিমতো বাংলা অভিধান নিয়ে বসতে হবে। খুব ভালো কবিতা লিখেছেন, লাইক সহ প্রিয়তে রাখছি আপনার মূল্যবান কবিতাটি। ধন্যবাদ।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:১১

কবি হাফেজ আহমেদ বলেছেন: আপনার ভালোবাসা আমাকে দারুণভাবে অনুপ্রাণিত করেছে। কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও শুভকামনা অহর্নিশ।

৫| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:৪৪

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: আমার মনে হচ্ছে এই কবিতা লিখতে গিয়ে আপনি নতুন শব্দ তৈরি করেছেন কয়েকটা। অথবা বলা ভালো অনেকগুলি শব্দের অর্থ আমি জানি না। খুঁজলে হয়তো বাংলা অভিধানে পাওয়া যাবে।

"শের'পণ রক্তে ভক্তে রণ পরশে
খরাতম সেরা রক্তের রাসে মত রাখ
মুক্তির সহসা এ মাটি মা'এ সাহস রক্তি'মু
জিতানো খত করতা প্রতারক তখনো তাজি
বুলেটে রক্তে রকে বুলি বুলবুলি বুকে রক্তে রটে লেবু
রবে সর্বসমক্ষের সে তুমি তুসের ক্ষেম সর্ব সবের
রবের তরফে তখত ফেরত রবের
হব আমি আবহ
মাগো ওগো মা
নয়ন কেন জলে জ্বলে জনকে নয়ন!"

যাইহোক আপনার কবিতার কোনো একটি লাইনের শাব্দিক অর্থ বুঝার ক্ষমতা আমি রাখি না। শুভকামনা আপনার জন্য।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:২২

কবি হাফেজ আহমেদ বলেছেন: "শের" বলতে বীর্যবানকে বুঝানো হয়েছে। পণ- প্রতিজ্ঞা, খরাতম- চরণটিতে স্বাধীনতা যুদ্ধে রক্ত খরায় যারা রক্ত ঢেলে দিয়ে বিজয়ের পতাকা ছিনিয়ে এনেছেন তাঁদের কথা বুঝানো হয়েছে। মা'এ- মায়ের কথা বুঝানো হয়েছে। রক্তি- অনুরাগ, মু- মুখ বুঝানো হয়েছে।


"মাটি মা" শীর্ষক আমার একটি একক প্যালিন্ড্রোম কবিতার বই প্রকাশিত হচ্ছে যেখানে বিশ্বের ৪৪ ধরনের ৫৫ টি কবিতা বাংলা ভাষায় প্যালিন্ড্রোম ভার্সনে সর্বপ্রথম নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করেছি। পাঠক কতটুকু তৃপ্তি পাবে জানি না। বইটি সম্পূর্ণ গবেষণামূলক এবং নতুন কিছু নতুন স্বাদে আনার চেষ্টা করেছি। এই কবিতাটির সম্পূর্ণ সহজ ব্যাখ্যা পাবেন সেখানে। এখনই রকমারিতে "মাটি মা" নাম লিখে খুঁজে অর্ডার করতে পারেন। বইটি পেয়ে যাবেন একদম সহজেই।
আপনার মন্তব্য আমাদে দারুণভাবে অনুপ্রাণিত করেছে। আমার শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা গ্রহন করুন প্রিয়জন।

৬| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১২:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: খুব সুন্দর।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:২৪

কবি হাফেজ আহমেদ বলেছেন: সব সময় পাশে থাকার জন্য অপার ভালোবাসা ও শুভকামনা অহর্নিশ। আপনার মন্তব্যে আমি সর্বদাই অনুপ্রাণিত।

৭| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:৪৭

কাজী আবু ইউসুফ (রিফাত) বলেছেন: "শের'পণ রক্তে ভক্তে রণ পরশে
খরাতম সেরা রক্তের রাসে মত রাখ
মুক্তির সহসা এ মাটি মা'এ সাহস রক্তি'মু--- অর্থ কোথাও খুঁজে পাই নি!
তুসের --কোন সঠিক শব্দ খুঁজে পাই নি!

তাজি=: তাজি : আরবি শব্দ। অর্থ উৎকৃষ্ট, বেগবান, তেজস্বী অশ্ব ।

প্রচেষ্ঠার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ ।


১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:২৮

কবি হাফেজ আহমেদ বলেছেন: শের" বলতে বীর্যবানকে বুঝানো হয়েছে। পণ- প্রতিজ্ঞা, খরাতম- চরণটিতে স্বাধীনতা যুদ্ধে রক্ত খরায় যারা রক্ত ঢেলে দিয়ে বিজয়ের পতাকা ছিনিয়ে এনেছেন তাঁদের কথা বুঝানো হয়েছে। মা'এ- মায়ের কথা বুঝানো হয়েছে। রক্তি- অনুরাগ, মু- মুখ বুঝানো হয়েছে। তুস শব্দটি হতে "তুসের" হয়েছে। কোমলতার রূপক অর্থে শব্দটি ব্যবহৃত হয়েছে।

"মাটি মা" শীর্ষক আমার একটি একক প্যালিন্ড্রোম কবিতার বই প্রকাশিত হচ্ছে যেখানে বিশ্বের ৪৪ ধরনের ৫৫ টি কবিতা বাংলা ভাষায় প্যালিন্ড্রোম ভার্সনে সর্বপ্রথম নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করেছি। পাঠক কতটুকু তৃপ্তি পাবে জানি না। বইটি সম্পূর্ণ গবেষণামূলক এবং নতুন কিছু নতুন স্বাদে আনার চেষ্টা করেছি। বইটিতে এই কবিতাটির সম্পূর্ণ সহজ ব্যাখ্যা পাবেন সেখানে। এখনই রকমারিতে "মাটি মা" নাম লিখে খুঁজে অর্ডার করতে পারেন। বইটি পেয়ে যাবেন একদম সহজেই।

মন্তব্যে নিঃসন্দেহে অনুপ্রাণিত হলাম। পাশে থাকায় কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। আমার শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা গ্রহণ করুন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.