নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি হাসান সাখাওয়াত..

তন্দ্রাকুমারী

তন্দ্রাকুমারী একটি কাল্পনিক চরিত্র যার সন্ধানে আছি নিশিদিন!!

তন্দ্রাকুমারী › বিস্তারিত পোস্টঃ

অন্ধ প্রেম

১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:০০

- তুমি আজকাল খুব বাজে কথা বলছ। এরকম করলে কিন্তু তোমার সাথে কোন প্রকার রিলেশন কনটিনিউ করা সম্ভব না।
- তুমি আমাকে এভয়েড করছো, তাই বল। আসলে তোমার প্রাক্তন প্রেমিক এখনো তোমার মনের মধ্যে রয়ে গেছে। আমার কথা তাই তোমার সহ্য হচ্ছে না।
- তুমি কিন্তু সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছো। আমার কোন প্রাক্তন প্রেমিক নেই।
- তবে যে আমার সাথে প্রেম করার আগে তুমি বলেছিলে, তোমার বয়ফ্রেন্ড আছে!
- আরে, সেটাতো তোমাকে পরিক্ষা করার জন্য বলেছিলাম। এটা বোঝার জন্য যে, তুমি আমার ব্যাপারে কতটা সিরিয়াস।
- ওসব আমি জানি। চালাকি করবে না। আমি এখন সব জেনে গেছি। রাজের সাথে তোমার গভীর সম্পর্ক ছিল।
তোমার ইউনিভার্সিটির সবাই তা জানে। সেই গল্পতো আজো সবার মুখে মুখে ফেরে!
- আচ্ছা, ঠিক আছে ছিল। তো এখন কি করতে চাও তুমি?
- ডিভোর্স দিব তোমাকে। চিরকালের জন্য বিচ্ছেদ।
- তাহলে তোমাকে কে দেখে রাখবে? তোমার যে রাত তিনটার সময় ঘুম ভেঙে যায়, আর তখন তুমি হাউমাউ করে কাঁদ- তাও আবার অন্য একটা মেয়ের নাম ধরে....কী যেন মেয়েটার নাম....ওহ তন্দ্রা- সেটা কি আমি ছাড়া অন্য কেউ বুঝতে পারবে, যে তন্দ্রা নামে আসলে কেউ নেই!
- তার মানে? কি বলছো এসব তুমি?
- জ্বী ধ্রুব সাহেব। রাজ নামেও আমার কোন চেনা মানুষ পর্যন্ত নেই। আপনি আসলে অসুস্থ। মাঝে মাঝেই আপনি এমন অসুস্থ হয়ে যান, আর
অশ্লীল কথাবার্তা বলেন। একজন অসুস্থ মানুষের ডিভোর্স লেটারও আদালত গ্রহণ করবে না। মহামান্য আদালত তা প্রত্যাখ্যান করবে।
- ও আচ্ছা। আমার খুব মাথা ব্যথা করছে। আমাকে একটু শুইয়ে দাও মুনা। আমার মাথায় একটু হাত বুলিয়ে দেবে? নিঃশ্বাস ভারী হয়ে
আসছে। হাত-পা টলছে। আচ্ছা, কী হয়েছে আমার?
(মুনা ধ্রুবকে জড়িয়ে ধরে। কপালে চুমু দেয়। হাতের তালুতে চুমু দেয়। বুকের সাথে গাঢ় করে লেপ্টে দেয় বুক।)
- না, তোমার কিছু হয় নি। সামান্য মাথা ব্যথা করছে তোমার। এইতো, আমি তোমার চুলে বিলি কেটে দিচ্ছি।
কিছুক্ষণ পর দেখবে সব ঠিক হয়ে যাবে।
- মুনা, আমার চোখ কেমন যেন ঝাপসা হয়ে আসছে। আমি আর তাকিয়ে থাকতে পারছি না।

পরদিন সকালঃ
ধ্রুব ঘুম থেকে উঠে দেখে মুনা ঘরে নেই। সে চিৎকার করতে থাকে, মুনা... মুনা... মুনা!
কোন আওয়াজ শোনা যায় না। মুনার রক্তাক্ত দেহ পড়ে আছে। আত্মহত্যা করেছে মুনা? ছুড়ি দিয়ে দুই হাতের কব্জি গভীরভাবে কাঁটা। মেঝে ভরে গেছে রক্তের প্লাবনে। ধ্রুব পাথরের মত তাকিয়ে আছে মৃতদেহের দিকে। তার কি বাকরুদ্ধ হয়ে গেছে?
- তুমি কি আমার কথা শুনতে পাচ্ছ?
- কে? কে? কে আপনি?
- আমি মুনার আত্মা। তুমি আমাকে অনেক কষ্ট দিয়ে মেরেছ। আমি তোমাকে কোনদিন শান্তিতে থাকতে দেব না।
- আমি তোমাকে মারব কেন মুনা? আমি তোমাকে অনেক ভালবাসি। এসব কি বলছ তুমি? কোথায় তুমি?
- অ্যাই, কি বলছ তুমি?
- আরে মুনা, তুমি? আমি কি তাহলে সব ভুল দেখলাম এতক্ষণ?
- কি দেখেছ?
- দেখলাম তুমি মরে পড়ে আছ। তোমার আত্মা আমার সাথে কথা বলছে।
- কেন যে তোমার সাথে বারবার এমন হয়! এসো, কফি করেছি। কফি খাও।

মন্তব্য ০ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (০) মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.