নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

দূরে থাকুন; ভালো থাকুন।

ঋণাত্মক শূণ্য

নেগেটিভিটিতে বিশ্বাস করি না; তাই এমন নাম বেছে নিলাম, যা বাস্তব নয়!

ঋণাত্মক শূণ্য › বিস্তারিত পোস্টঃ

ক্রেডিট কার্ড কিভাবে ভাবের বস্তু হয়?

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:১৭

২০১০ সালে একটি ব্যাংকের সেলস ডিপার্টমেন্টে পার্টটাইম কাজ করেছিলাম। মূল কাজ হচ্ছে ব্যাংক একাউন্ট খোলানো। পরে দেখলাম ব্যাংক একাউন্টের থেকে ক্রেডিট কার্ড বিক্রিতে লাভ বেশী।



ব্যাংক থেকে ক্রেডিট কার্ড দেওয়ার সময় ভাবটাই এমন দেওয়া হয় যে এটা একটা বিশাল 'ক্রেডিট এর বিষয়'! আপনার হাতে একটা ক্রেডিট কার্ড আছে মানে আপনি অন্য মানুষদের থেকে একটু উচা লেভেলের। আপনার বিশাল পারচেজ পাওয়ার আছে, ব্লা ব্লা ব্লা.....!

বেশ অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যেখানে জয়ন করা মাত্রই ব্যাংক থেকে লোক হাজির হয়ে যায় ক্রেডিট কার্ড দেওয়ার জন্য। জনতাও তাতে লাফিয়ে পড়ে।

আসুন, ক্রেডিট কার্ড থাকার কিছু সহজ অর্থ লিষ্ট করিঃ

১. সাধারণ জীবনে আপনার পারজেচ পাওয়ার একেবারেই নেই বললেই চলে; তাই ধারের টাকায় প্রোডাক্ট কিনতে হয়।
২. আপনার পকেটে টাকা নাই; কিন্তু প্রোডাক্ট কেনার সময় ভাব লইলেন আপনি কত্ত টাকার মালিক!
৩. আপনি এটা পছন্দ করেন না যে কেউ আপনার থেকে টাকা নিয়ে ধীরে ধীরে শোধ করলো, কিন্তু আপনি এভাবেই দেনা শোধ করতে পছন্দ করেন।
৪. আপনার সব সময় একটা না একটা দেনা লেগেই আছে (ইন্সটলমেন্ট)।
৫. আপনি অল্প টাকা নিয়ে বেশী টাকা দেওয়ার জন্য ব্যস্ত!
৬. আপনি দিন নাই রাত নাই ব্যাংকের কাছে হাত পাততে আগ্রহী!
ইত্যাদি ইত্যাদি...............

আমার ক্লাসমেট রুবায়েত। ও চাকরীতে জয়েন করবার পর পর দেখি বউ নিয়া খালি ট্যুর দেয়। তাও দেশে না; বিদেশেই বেশী। সে যেহেতু ফটোগ্রাফার, আমরা চোখের শান্তি পাইতাম সুন্দর সুন্দর ছবি দেখে।

হঠাৎ একদিন রুবায়েত ফোন দিলো, ২লাখ টাকা ধার দরকার। আমার ঐ অবস্থা ছিলো না; ৫০হাজারের মত দিলাম। জানতে পারলাম বউকে খুশি করতে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেই সব ঘোরাঘুরি করেছে; এখন আর টাকা দিয়ে পারছে না। তার উপর চাকরীটাও চলে গেছে একটা সমস্যার কারণে।

আমার অফিসের কলিগ, এক তুর্কি ভদ্রলোক। ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে নিজের ও স্ত্রীর জন্য আইফোন, বাচ্চাদের জন্য আইপ্যাড, ঘরে ব্যবহারের জন্য ম্যাক আর কিস্তিতে এসইউভি গাড়ি কিনেছেন। এখন করুন দশা। প্রতি মাসে বেতনের প্রায় ৫০%ই চলে যায় কিস্তি দিতে। মরার উপরে খাড়ার ঘা পড়েছে বাচ্চাদের স্কুলে ভর্তি করতে গিয়ে। অফিস থেকে লোন নিয়ে নামীদামী স্কুলে ভর্তি করেছেন। এখন সারাদিন সুযোগ খুঁজতে থাকেন কিভাবে একটু ওভারটাইম বাগানো যায়।

ক্রেডিট কার্ডের একটা সুবিধা আমি পেয়েছি; একটাই, দুইটা না। সেটা হলো, রাত ২টায় হঠাৎ আপনার টাকা দরকার, আপনাকে কারও কাছে চাইতে হবে না। বুথে গিয়ে টাকা তুলে নিলেই হলো।

কিন্তু বেশীর ভাগ মানুষ এই সুবিধাটাকে মিসইউজ করে। আমাদের অফিসে প্রায় ৫০জন ক্রেডিটকার্ড হোল্ডার আছেন। গতকাল এনাদের মধ্যে ৭জন একটা রেষ্টুরেন্টে আরও ৬/৭জনের সাথে উপস্থিত ছিলো। আমার এক নতুন কলিগ হঠাৎ জিজ্ঞাসা করলো যে ক্রেডিকার্ড নিতে হলে কি করতে হবে? ঐ ৭জনই হা-হা করে উঠে ক্রেডিট কার্ড কেন খারাপ সেটা বোঝাতে লেগে গেলেন।

পরে ঐ আড্ডা থেকে বের হয়ে ঐ নতুন কলিগ আমাকে বলছিলো যে ঐ লোক গুলা বদ! তারা চায় না যে নতুন কেউ 'ক্রেডিট কার্ড হোল্ডার স্ট্যাটাস' এ যাক! তাই তারা উল্টা সিধা বোঝানোর চেষ্টা করছে!

মন্তব্য ৩০ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (৩০) মন্তব্য লিখুন

১| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:২৯

নাহল তরকারি বলেছেন: হাতে ৫ টাকা থা্কলে তিন টাকা দিয়ে চলতে হয়। পরে দুই টাকা দিয়ে জমা রাখতে হয়।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৮:৫৮

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: ক্রেডিট কার্ড করায় তার উল্টাটা। হাতে ৩টাকা থাকলে খরচ করায় ৯টাকা! ৬টাকা আজীবন দেনায় থাকতে হয়!

২| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৫৫

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: ক্রেডিট কার্ড সঠিকভাবে ব্যবহার না করলে ক্ষতির সম্ভবনা বেশী।

ভালো দিক হোল সব সময় বেশী টাকা সাথে না রাখলেও চলে। বিপদে আপদে কাজে লাগে। কিছু ক্ষেত্রে বাট্টা ( discount) পাওয়া যায়। মানুষের কাছে ধার না চেয়ে ব্যাংক থেকে নগদ টাকা ধার পাওয়া যায়। বিদেশে গেলে ব্যবহার করা যায়। একটা বাড়তি কার্ড দেয়া হয় স্ত্রীর জন্য যেটা সে ব্যবহার করতে পারে সংসারের দৈনন্দিন কাজে।

অসুবিধা হোল, ধার করে ঘি কিনে ফেলি আমরা। সঞ্চয় করা সম্ভব হয় না। সঞ্চয় খুব জরুরী বাংলাদেশের মধ্যবিত্তদের জন্য। অপ্রয়োজনীয় জিনিস কিনে ফেলি। ঋণে জড়িয়ে যাওয়ার ঝুকি থাকে।

ব্যাংকগুলি ডেকে ডেকে অনেক বড় লিমিটের ক্রেডিট কার্ড এখন দিয়ে থাকে।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৮:৫৮

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: বেশীরভাগ মানুষই ক্রেডিট কার্ডের সঠিক ব্যবহার জানে না।

৩| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:১৮

জুল ভার্ন বলেছেন: বাংলাদেশে প্রথম ক্রেডিট কার্ড প্রচলন করে স্টান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, আমি তখন থেকেই ওদের কার্ড দেশ বিদেশে ইউজ করি। কিন্তু বছর কয়েক আগে একবার ভুল করে ১৪ টাকা পেমেন্ট বকেয়ার জন্য ৫০০/- প্যানাল্টি করে......আমি ওই ব্যাংকের গ্রাহক ত্রিশ বছর.... বিষয়টা আমাকে খুব আহত করে। আমি ক্রেডিট কার্ড সারেন্ডার করি। এখন সর্বত্র ডেবিড কার্ড ইউজ করি।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৮:৫৯

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: ১৪ টাকার জন্য ৫০০ টাকা প‌্যানাল্টি ক্রেডিট কার্ডের জগতে নতুন কিছু না। বরং এটা তাদের টাকা ইনকামের বড় একটা উৎস!

৪| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৩৪

রাজীব নুর বলেছেন: হুজুগে ক্রেডিট কার্ড অনেক গুলো করেছি এবং বিপদে পড়েছি।
এটিএম কার্ডও করেছি পাঁচ টা। বছরে দুনিয়ার ফাও টাকা গচ্ছা যাচ্ছে এখন।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৯:০০

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: আমি যদ্দুর জানি আপনি স্বচ্ছল; আপনার ক্রেডিট কার্ড থাকার দরকার আছে বলে মনে করি না। আমি আপনার সম্পর্কে ভালো করে জানি না, তবুও মন্তব্য করে ফেললাম। আশাকরি মনে কষ্ট নিবেন না।

৫| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:২৩

শেরজা তপন বলেছেন: একসময় খুব ভাবের কিছু মনে হোত এখন বোঝা মনে হয়।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৯:০০

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: হা হা হা..... কেউ তো বুঝেছে!

৬| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ বিকাল ৫:১১

মোগল সম্রাট বলেছেন: ক্রেডিট কার্ড অপ্রয়োজনীয় পারচেজ করার কাজে ব্যাবহৃত বেশি হয়।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৯:০৩

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: হুমমমম....

৭| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ বিকাল ৫:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:




হালাল ক্রেডিটকার্ড আছে সৌদীতে?

ক্রেডিটকার্ড হচ্ছে ক্যাপিটেষ্ট সিষ্টেমে "রেডী লোন", কে কিভাবে ব্যবহার করবে, সেটা তার ফাইন্যানসিয়াল জ্ঞানের উপর নির্ভার করছে, কমবুদ্ধিমানদের জন্য বিপদ, ফাইন্যান্সের লোকদের জন্য ফাইন্যান্সিয়াল টুল। লেখা ভালো হয়নি, অনেক বেকুবের উদাহরণ দিয়েছেন, বেশ বেকুবদের সাথে চলেন!

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৯:০৫

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: হালাল ক্রেডিট কার্ড বলতে কিছু নাই।

সেলফ ক্লেইমড বু্দ্ধিমানেরাই ক্রেডিট কার্ডের সঠিক ব্যবহার বুঝে না। যেমন আপনি বুঝেননি পোষ্টের লেখা।

৮| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৩

জ্যাকেল বলেছেন: ক্রেডিট কার্ড হইতেছে স্মার্ট মানুষদের জন্য একটা ফাইন্যান্সিয়াল টুল। ভাবের কারণ হইল- ইহা থাকার মানে আমার ধনসম্পদ আছে তাই ব্যাংক আমাকে সম্মান করে কার্ড দিয়েছে।
ইহা যদি কেউ অহং বোধ করে থাকেন তবে মানুষ হিসাবে আপনি কিছুটা নষ্ট হয়ে গেলেন। অহংকার পতনের মূল কি আর এমনি এমনি? কিন্তু যারা বেকুবি করে কার্ড স্বেচ্ছায় নেয় এবং দেদারসে খরচ করে ইহাদের জন্য তো মোটেও ক্রেডিট কার্ড সিস্টেম না। তারা সখ সুদাইতে গিয়া আরো বিশাল রকমের ছোটলোকি করে ফেলে কিন্তু এদের বুঝাইবে কে?
আপনার উল্লেখিত পয়েন্টগুলো এইসকল ছোটলোকদের জন্য প্রযোজ্য বটে।
ধন্যবাদ, ইহা নিয়ে আরো সচেতনতা বাড়ান উচিত। আপনার ফ্রিলান্সিং/আউটসোর্সিং নিয়ে আরো লেখা চাই। আপনি একজন আধুনিক স্মার্ট মানুষ।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৯:০৭

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: ক্রেডিট কার্ড গ্রহীতাদের ৯৯.৯৯%ই এমন!

এমনিতেই গ্রুপে পিছের ফুটায় হাত দিয়ে রাখা লোক আছে (আপনার কমেন্টের আগের কমেন্ট দেখেন); তার উপরে ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং নিয়ে লিখলে নতুন ধরণের লোক একই জায়গায় হাত ঢুকানোর চেষ্টা করবে!

তারপরও সাজেশনের জন্য ধন্যবাদ; ভেবে দেখবো; ইন শা আল্লাহ।

৯| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৯:৩৮

তানীম আব্দুল্লাহ্ বলেছেন: নেই ।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ১০:১৬

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: আমারও নেই!

১০| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ৯:৪৫

কাছের-মানুষ বলেছেন: ক্রেডিট কার্ড উপকারী যদি দরকারে ব্যবহার করা হয়। অনেকেই মিস ইউজ করে এবং বিপদে পরে।

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ১০:১৭

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: অনেকেই নয়, প্রায় সবাই মিস-ইউজ করে এবং বিপদে পড়ে।

১১| ২৫ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ১২:৪৮

রাজীব নুর বলেছেন: আমি দুটো ডাল ভাত খেয়ে বেঁচে আছি। ভালো আছি।
মাস শেষে বাড়ি ভাড়া দিতে হয় না। এটাই শান্তি।

২৫ শে ডিসেম্বর, ২০২১ রাত ২:১২

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: ঢাকা শহরে এটাই বড় শান্তি। একটা সময় আমার মাসিক সংসার খরচ ছিলো ৩৫,০০০ টাকা। এর মধ্যে ২০,০০০ টাকাই যেতো শুধু ভাড়ার পিছনে!

১২| ২৫ শে ডিসেম্বর, ২০২১ ভোর ৪:১৯

নেওয়াজ আলি বলেছেন: শখের জিনিস এখন বোঝা মনে হয়

২৫ শে ডিসেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:০৪

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: :(

১৩| ৩১ শে ডিসেম্বর, ২০২১ বিকাল ৫:১৮

প্যারাডাইম বলেছেন: ডেবিট কার্ড ইজ এনাফ আই গেজ

০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২২ সকাল ১০:৩৬

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: হুম!

১৪| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২২ সকাল ৯:১৮

ঈশান মাহমুদ বলেছেন: আমি মোটামুটি মানের একটি জব করি। বেতন যা পাই তাতেই কোনমতে ম্যানেজ করে নেই। এটা ঠিক, ঢাকা শহরে বসবাস করলেও রাজিব নুরের মতো আমারও কোন বাড়ি ভাড়া দিতে হয় না। তাই মাসান্তে কিছু সঞ্চয়ও করতে পারি।
বিভিন্ন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড এজেন্টের নানা প্রলোভন এবং প্ররোচনা সত্ত্বেও আমি আজ অবধি কোন ক্রেডিট কার্ড নেইনি, কিংবা নেয়ার প্রয়োজন বোধ করিনি। এই জন্য আমার কলিগদের কাছে আমি একজন 'আনস্মার্ট' এবং পশ্চাদপদ লোক হিসেবে বিবেচিত। অথচ আমি কিন্তু তাদের দেখেই শিখেছি, যে ক্রেডিট কার্ড সঠিক এবং পরিকল্পিত ভাবে ব্যবহার করতে না পারলে কি অবস্থা হয় ! তাছাড়া অপ্রয়োজনে ক্রেডিট কার্ড নিয়ে নিজেকে বেহুদা ঋনের জালে আবদ্ধ করে ফেলার কোন মানে হয় না।
অবশ্য ক্রেডিট কার্ড ঠিক মতো হ্যান্ডেল করতে পারলে নিঃসন্দেহে উপকারী। তাই আলগা ভাব দেখানোর জন্য নয়, যাদের প্রয়োজন শুধু তাদেরই নেয়া উচিৎ।

০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২২ সকাল ১০:৩৭

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: অনেকেই আপনার মত করে সিদ্ধান্ত নিতে পারে না।

১৫| ০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২২ সকাল ১১:৪১

অনিকেত বৈরাগী তূর্য্য বলেছেন: বেকুবের দল কি মনে করে টাকাটা শোধ করতে হবে না? কম বুদ্ধির লোকদের এমন পরিণতি হওয়াই স্বাভাবিক। তবে বিচক্ষণ লোকজন ক্রেডিটকার্ডকে ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারে।

০৬ ই জানুয়ারি, ২০২২ দুপুর ২:১৪

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: আমি একটা ট্যাব কিনতে চাই। কিস্তিতে নিলে মাসে ২০০ রিয়াল। এক সাতে নিলে ২৭০০ রিয়াল। এখন আমি যখন ঐ ২০০ এর দিকে তাকাবো, আর মাসে কি পরিমান টাকা রেষ্টুরেন্টে এমনেই খাই এর দিকে তাকাবো, তখন মনে হয় যে এখন থেকে আর রেষ্টুরেন্টে খাবো না; ঐ টাকা বাচিয়েই ট্যাবের টাকা শোধ করবো।

এভাবে নিজেকে চিপতে চিপতে জীবন তেতো হয়ে যায়, কিন্তু কিস্তি আর শোধ হয় না; শোধ হলেও নতুন একটা চেপে বসে!

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.