নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ভাগ্যক্রমে আমি এই সুন্দর গ্রহের এক বাসিন্দা! তবে মাঝেমধ্যে নিজেকে এলিয়েন মনে হয়। তবে বুদ্ধিমান এলিয়েন না কোন আজব গ্রহের বোকা এলিয়েন!

নূর আলম হিরণ

ভাগ্যক্রমে আমি এই সুন্দর গ্রহের এক বাসিন্দা! তবে মাঝেমধ্যে নিজেকে এলিয়েন মনে হয়। তবে বুদ্ধিমান এলিয়েন না কোন আজব গ্রহের বোকা এলিয়েন!

নূর আলম হিরণ › বিস্তারিত পোস্টঃ

প্রশ্ন ফাঁসের কুফল জাতি পেতে শুরু করেছে!

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:২৯



বেশ কয়েকদিন আগে আমার এক বন্ধুর ছোট ভাইয়ের সাথে রিক্সায় করে যাচ্ছিলাম। ছোট ভাইটি কয়েক মাস আগে গ্রাজুয়েশন কমপ্লিট করেছে এবং এলাকার হওয়ার কারণে তার এসএসসি এবং এইচএসসি রেজাল্ট সম্পর্কে আমি জানি।
দুটোতেই সে জিপিএ ৫ পেয়েছিল। হঠাৎ করে সে আমাকে একটা প্রশ্ন করে, আচ্ছা ভাই আমার একটা জিনিস মাথায় ধরে না, এই যে বলে গাড়ির ফিটনেস ব্যাপারটা আসলে কি? গাড়ির আবার ফিটনেস কিসের, গাড়ির কি মানুষের মত শরীর আছে? প্রথম ভাবছিলাম সে আমার সাথে মজা করছে। কিন্তু আমার হাসি দেখে সে আমাকে আবারো একই কথা জিজ্ঞেস করে এবং আমি তার মুখের দিকে তাকিয়ে বুঝতে পারি সে আসলে সিরিয়াসলি আমাকে প্রশ্নটি করছে।
আমি খুব অবাক হয়ে গিয়েছিলাম তার এই ধরনের প্রশ্ন দেখে আর ভাবছিলাম আসলে আমাদের জাতির সামনে কি রকম দিন অপেক্ষা করছে। একটা জিপিএ ৫ পাওয়া ছেলে যদি এমন প্রশ্ন করে তাহলে বুঝা যাচ্ছে জাতি কোন দিকে এগুচ্ছে!

২. গার্মেন্টস এক্সসারিজ বিজনেস এর সুবাদে আমাকে বিভিন্ন বায়িং হাউজ ও গার্মেন্টসে প্রতিনিয়ত যেতে হয়। আমার এক পরিচিত ছোট ভাই এক বায়িং অফিসে চাকুরী করে জুনিয়র মার্চেন্ডাইজার হিসাবে। আমি তাকে খুব ভালভাবেই চিনি কিন্তু খুব একটা কথা তার সাথে হয় না। এই ছেলেটির এসএসসি ও এইচএসসি রেজাল্টও মোটামুটি ভালো।
তো একবার আমি সেই অফিসে গেলাম এবং তার ডেস্কের সামনে বসে ফোনে কথা বলছিলাম। সে সময় সেও সম্ভবত কোন ফরেনারের সাথে কথা বলছিল মোবাইলে। একপর্যায়ে কথা বলতে গিয়ে তাকে দেখলাম সে অপরপ্রান্তের কলার কে বলছে “প্লিজ হারি, শিপমেন্ট উইল বি ডিলেট!” আমি খুব অবাক হলাম তার এরকম কনভার্সেশন দেখে। শুধু এটা না সে খুব অস্বাভাবিক অস্বাভাবিক ভুল ইংরেজি শব্দ বলে যাচ্ছিল।

৩। গত কয়েকদিন থেকে দেশের এক ধরনের গুজব চালু হয়েছে। পদ্মা সেতুতে এক লক্ষ মানুষের মাথা লাগবে এবং সে মাথা সংগ্রহ করার জন্য ছেলেধরা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এমন একটি গুজব কে বিশ্বাস করে অনেক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
গতকাল বাড্ডায় এক মহিলা তার বাচ্চার স্কুলে ভর্তির খবর নিতে এসে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে মারা গেছে। মহিলাটি নিশ্চয়ই বার বার বলেছিল আমি ছেলেধরা নই আমাকে মাফ করুন, আমি আমার মেয়ের খোঁজ নিতে স্কুলে এসেছি। উপস্থিত যারা তাকে মারধোর করছিল তারা নিশ্চয়ই এটা শুনে ছিল কিন্তু তারা এতে কর্ণপাত করেনি।

মানুষের মধ্যে সঠিক শিক্ষা না থাকলে মানুষ বিবেকহীন হয়ে পড়ে। অতীতের অন্য সময় থেকে এখন মানুষ পড়ালেখার সুযোগ কিছুটা হলেও বেশি পাচ্ছে কিন্তু সুশিক্ষা, প্রাকৃতিক জ্ঞান, সমাজবিজ্ঞান এসব সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট ধারণা পাচ্ছে না।
আমি দেখেছি, বুয়েটে পড়া ছাত্র অমুসলিমের হাতে রান্না করা খাওয়া খেতে চায় না! এক ডাক্তার আল্লাহর নাম নিয়ে খেলে বিষ হজম হয়ে যায় এটা বিশ্বাস করে বসে আছে! ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আমাকে তার মোবাইলে দেলোয়ার হোসেন সাঈদীকে চাঁদে দেখা গিয়েছে সেটা দেখিয়েছিল! কি একটা প্রতিযোগীতায় নাসার আমন্ত্রণে চার শিক্ষার্থী আমেরিকায় যাবে, তাদের সাথে যাবে তথ্য মন্ত্রণালয়ের ১৬ কর্মকর্তা। ১৬ জনের ভিসা হয়েছে তারা আমেরিকা গিয়ে বসে আছে প্রতিযোগিদের জন্য, প্রতিযোগীদের এখনো ভিসা হয়নি!
এগুলো কিসের লক্ষণ? এরকম দুই একটি অভিজ্ঞতা কি আপনারা আছে থাকলে আমাকে জানান।

মন্তব্য ৪৪ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (৪৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:৩৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা আমাদের জন্য নতুন জেনারেশন রেখে যাচ্ছেন, প্রশ্নফাঁস জেনারেশন।

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:৪২

নূর আলম হিরণ বলেছেন: এরা পুরোদমে দায়িত্বে আসবে তখন ভালো কিছু নিশ্চয়ই আসবে না!

২| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:


সেতুতে মাথা লাগার ব্যাপারটা যেভাবেই আসুক না কেন, ইহাতে দেশের মানুষের বুদ্ধিমত্তার পরীক্ষা চলছে; দেশের মানুষ কি পরিমাণ পেছনে পড়ে আছে, তা বুঝা সম্ভব হচ্ছে।

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:৪৫

নূর আলম হিরণ বলেছেন: প্রাকৃতিক জ্ঞান আহরণের দিকে আমরা ৫০০ বছর পিছিয়ে আছি! গতানুগতিক শিক্ষা আমাদের সুস্থ মস্তিষ্কের প্রজন্ম দিচ্ছে না!

৩| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:০২

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: চাঁদগাজী বলেছেন:


সেতুতে মাথা লাগার ব্যাপারটা যেভাবেই আসুক না কেন, ইহাতে দেশের মানুষের বুদ্ধিমত্তার পরীক্ষা চলছে; দেশের মানুষ কি পরিমাণ পেছনে পড়ে আছে, তা বুঝা সম্ভব হচ্ছে ।

100% সহমত।

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:১৩

নূর আলম হিরণ বলেছেন: দেশের শিক্ষিত মানুষও অনেক পিছনে পরে আছে।

৪| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:২১

মোগল সম্রাট বলেছেন: দ্যাশে এমবিএ পাশ করা গ্রাজুয়েটরা রাস্তায় রাস্তায় প্রান কোম্পানির প্যাকেট করা ঝালমুড়ির ঠোংগা ব্যাচে। শিক্ষা পদ্ধতি কারা প্রনয়ন করে জাতি জানেনা। কিন্তু মাঝ রাইতে টিভিতে ল্যাদাইতে দেখাযায় কিছু লোকজন। বিরাট বিরাট লেকচার তখন আপনার মনেই হবেনা দ্যাশ কতো পিছনে।

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৪৫

নূর আলম হিরণ বলেছেন: প্রাণ কোম্পানি কয়েক হাজার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীকে পথে বসিয়ে। এদের ছেলেমেয়ে এখন প্রানের ঝালমুড়ি বিক্রি করে। অর্থনীতির সুষম বন্টন তৈরি করছে না শেখ হাসিনা।

৫| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৩২

বলেছেন: প্লিজ আর লিখেয়েন না।।।
দ্যাশ উইল বি ডিলেট।।।


চাঁদহাজীর সাথেই আফসোস করে বলতে হয় -- "প্রশ্নফাঁস জেনারেশন" পঁচা শামুকে ঘাঁয়ের মতোই হবে।।।

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৪৮

নূর আলম হিরণ বলেছেন: বাকি বিশ্বের সাথে আমরা তাল মিলিয়ে এগুতে পারবো না। এই প্রশ্ন ফাঁস জেনারেশনের ছায়া আগামী ৩০ বছর আমাদের তাড়িয়ে বেড়াবে।

৬| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৩৬

তারেক ফাহিম বলেছেন: তারপরও আমাগো দেশ এগিয়ে X((

সত্যি অবাক লাগে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মুখে এসব শুনতে।

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৫০

নূর আলম হিরণ বলেছেন: একটা নির্বোধ জেনারেশন গড়ে তুলে শাসকেরা, যাতে তাদের অবস্থান নিয়ে প্রশ্ন তুলতে না পারে ম্যাসিভ আকারে।

৭| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৩৯

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: দ্যাশ জাহান্নামে যাক!
সরকারতো হাততালি পাইছে! তাদের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতি হয়েছে বলেই পাসের হার বৃদ্ধি পেয়েছে। X((

নীতিবান বহু শিক্ষক এক্মামিনার হওয়া থেকে অব্যহতি নিয়েছে তাদের অন্যায় মার্কিং সিস্টেমে সম্মত ছিল না বলে।
আত্মঘাতের পথেই চলছে সরকার। ভয়, গুম খুন আর ত্রাসে নিয়ন্ত্রন হাতে রেখে আত্মতুষ্ঠিতে ভুগছে সফলতার।
কিন্তু চূড়ান্ত সফলতার হিসেবটা কি এতই সোজা!!!!



২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৫২

নূর আলম হিরণ বলেছেন: আমি এমন একজন শিক্ষককে চিনি যিনি এক্সামিনার হওয়া থেকে নিজেকে বিরত রাখছেন। ভদ্রলোক কয়েক মাস আগে অবসরে চলে গিয়েছেন।

৮| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১০:১৯

কলাবাগান১ বলেছেন: "বুয়েটে পড়া ছাত্র অমুসলিমের হাতে রান্না করা খাওয়া খেতে চায় না"
বুয়েটের হাজার হাজার ছাত্র/ছাত্রী বিদেশে আসে...বিদেশে তাহলে তো খুব কস্ট হবে সবসময় নিজে রান্না করে খেতে হবে ...বাইরে খাওয়া যাবে না

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১১:২১

নূর আলম হিরণ বলেছেন: সাধারণ মানুষ এটা অহরহ পালন করে থাকে, বুয়েটের ছাত্রের মুখে এমন শুনে আমি অবাক হয়েছি।

৯| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১০:২৭

Nemo বলেছেন:

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১১:২২

নূর আলম হিরণ বলেছেন: ছবি যখন কথা বলে।

১০| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১০:৪৭

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: এই জেনারেশনের ছেলে মেয়েদের মাথায় কিচ্ছু নেই। সারা দিন রাত শুধু মোবাইল টেপাটিপি করে এদের সময় কাটে।

২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১১:২৩

নূর আলম হিরণ বলেছেন: অথচ এই জেনেরশন নিয়ে শেখ হাসিনা উন্নত, সমৃদ্ধ জাতি গঠনের স্বপ্ন দেখে!

১১| ২১ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১১:২৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: নূর আলম হিরণ,



এই অধঃপতন প্রশ্ন ফাঁস সময়ের অনেক আগে থেকেই, প্রায় গত বছর পনের থেকেই দেখে আসছি। দিন দিন এই অধঃপতন সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

উদাহরণ চাইলেন, দিচ্ছি-
মেডিক্যাল প্রমোশান অফিসারের চাকুরীর ইন্টারভিউ নেই আমি। মেডিক্যাল সায়েন্সে ইংরেজী না জানলে চলে না। তাই চাকুরীপ্রার্থীদের একটু ইংরেজী জ্ঞান ঝালিয়ে নিতে হয়। যদিও প্রশ্ন বাংলায় করা হয়।
প্রশ্ন করেছি - ইংরেজীতে ট্রানশ্লেসান করুন, " আমার বাবার একটি গরু ছিলো।"
অনেকক্ষন ভেবে "বিবিএ" করা ছেলেটির উত্তর- "মাই ফাদার ওয়াজ এ কাউ।" জানি এমনটিই বলবে কারন তার আগেও দু'চারজন এমন উত্তরই দিয়েছিলো। :(

আর একজন "বিএ" পাশকে বলেছি সে যে "বিএ" পাশ করেছে এই "বিএ"তে কি হয় ? অনেকক্ষন চেয়ে থাকলো সে মুখের দিকে। আবার বললুম, আপনি কি পাশ করেছেন তা বলতে পারবেন না? তার উত্তর , কেন বিএ পাশ! বললুম, ঠিক আছে এই যে বিএ পাশ করেছেন এই বিএ"তে কি হয় । আমতা আমতা করে সে বলতে শুরু করলো- বাংলাদেশ....। আমি হেসে দিয়ে বললুম, হুমমম বাংলাদেশ আনসার! :P

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে আসা একজনের কাছে প্রশ্ন- ইংরেজীতে জগন্নাথ স্পেলিং কি। মুখের দিকে চেয়ে থাকলো অনেকক্ষন। উত্তর নেই। বললুম সার্টিফিকেটেই তো স্পেলিং আছে। তারপরেও ছেলেটি চুপ। সাহস জুগিয়ে বললুম, ঘাবড়াবার কিছু নেই। সোজা স্পেলিং, বলুন। তার পরেও জবাব নেই। বললুম কি হলো। উত্তর দিলো , প্রশ্ন বুঝিনি। বললুম, কেন স্পেলিং শব্দের অর্থ জানেন না? বুঝলুম সে জানেনা। বললুম, স্পেলিং করা মানে যে "বানান করা" তাও জানেন না? এবার তার মুখে হাসি ফুটলো। জগন্নাথ.. জি ....ও.....( এরপর আর বলার দরকার নেই মনে হয়) :|

আরো আছে...................

২২ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ৮:০০

নূর আলম হিরণ বলেছেন: আপনি ইন্টারভিউ নেওয়ার কারনে আপনার অভিজ্ঞতা এই ব্যাপারে অনেক। এই খোঁড়া প্রজন্ম দিয়ে কতটা সমৃদ্ধির পথে যাবে দেশ?

১২| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১২:৪৪

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: এখনকার জেনারেশনের শিখবার, জানবার আগ্রহ নেই বললেই চলে। গ্রেজুয়েশন কম্পিট করা ছেলেমেয়ে বাজেট বুঝেনা। ভ্যাট বুঝে না।
তাই দেশ, সরকার, রাজনীতি নিয়েও তাদের আগ্রহও নেই।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ৮:০৫

নূর আলম হিরণ বলেছেন: পলিটিক্যাল সাইন্স পড়া স্টুডেন্টও আই হেইট পলিটিক্স বলে, বাজেট ভ্যাট এগুলোকে সাধারণ মানুষের মত ব্যাখ্যা করে।

১৩| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ ভোর ৪:১২

নতুন বলেছেন: দেশ কিন্তু ফেসবুক ব্যবহারে প্রথম সারিতেই আছে।

আর দেশে ধষ`নের আসামীদের কিছুই করা হয় না। কারন তারা ক্ষমতাবান সমাজে, কিন্তু একেলা নারীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয় হাজার মানুষের মাঝে।

দেশে যেই হারে খুনীর সংখ্যা বাড়ছে সেটা খুবই ভয়ংকর । কথায় আছে বাঘ যখন মানুষের মাংসের স্বাদ পায় তখন তার অন্য কিছু ভালো লাগেনা।

ঐ মায়ের ছবিটা এবং বাচ্চা মেয়েটার ছবি দেখে কিছু বলার ভাষা হারিয়ে ফেলেছিলাম.... মানুষ কিভাবে পারে ।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ৮:০৮

নূর আলম হিরণ বলেছেন: অজ্ঞতা, কিছু কুসংস্কার মানুষকে হিংস্র করে তোলে। অনেক গ্র্যাজুয়েট, বিবিএ করা মানুষকে দেখলাম ফেইসবুককে নিউজ সোর্স হিসেবে মনে করে। এগুলো দেখলে ব্যথিত হই।

১৪| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ৮:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: প্রশ্নফাস জেনারেশন বড় ভয়ঙ্কর।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ৯:৩৭

নূর আলম হিরণ বলেছেন: এর কুফল শুরু হয়ে গেছে!

১৫| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০০

জগতারন বলেছেন:
জ্বনাব আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম -এর অভিমতের সাথে সহমত ও লাইক দিলাম।

পোষ্ট দাতা জ্বনাব নূর আলম হিরণ আমার একজন প্রিয় ব্লগার ও -এর প্রতি সুভেচ্ছা জ্ঞাপন করি।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ বিকাল ৩:২৯

নূর আলম হিরণ বলেছেন: আপনাকে ধন্যবাদ, শুভেচ্ছা রইল আপনার জন্যও। হুম, আবু হেনা ভাই সঠিক বলেছেন।

১৬| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১১:৫২

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: সৌভাগ্যই বলতে হবে আমাদের, কারণ আমাদের সময় কোন জিপিএ ছিলো না। আমি কোনদিও জিপিএ-৫ এ পরীক্ষা দেই নি। এসএসসি আর এইচএসসি তে সাধারণ মানে প্রথম বিভাগ সাথে কয়েকটা বিষয়ে ৮০ উপর পেয়ে পাশ করেছি। বরাবরই মধ্যম মানের ছাত্র ছিলাম। আক্ষেপ করিনি, আজও করছিনা। অন্তত এই জিপিএ স্ক্যান্ড্যালের সাথে নেই ভেবেই ভালো লাগছে।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ বিকাল ৩:৩২

নূর আলম হিরণ বলেছেন: শিক্ষা পদ্ধতি আরো আধুনিক ও বাস্তবসম্মত করার দরকার ছিল। কি এক সৃজনশীল করেছে, সেটাও নাকি এখন পরিবর্তন করবে! লাখ লাখ জিপিও ৫ দিয়ে জাতি কতদূর এগুবে বুজাই যাচ্ছে! মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ আপনাকে।

১৭| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৭

নীল আকাশ বলেছেন: এখনকার ছেলেমেয়েদের কাহিনী লিখতে চেয়েছিলাম কিন্তূ আমার গুরু আহমেদ জী এস ভাই ইতিমধ্যেই অনেক কিছু বলে দিয়েছেন। এম এ ফাইনাল পরীক্ষা দিবে ইংলিশে, তাও নিজে ফর্ম পূরণ নিজে পূরণ করতে পারে না। নিজের চোখে দেখা। আমার নানার সময় মেট্রিক পাশ লোকজন ইংলিশে চিঠি লিখত। এখন মেট্রিকে পাশ করে ৯০% ~ ৯৫ %। কম নাম্বার দিলে শিক্ষককে জবাবদিহি করতে হয়!
আমার মতে আগের শিক্ষা মন্ত্রী নাহিদ সাহেব কে এই বিপুল সাফল্যের জন্য একুশে কিংবা অন্য কোন জাতীয় পদক দেয়া যায় কিনা সেটা ভেবে দেখার সময় চলে এসেছে।
ধন্যবাদ।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:১৫

নূর আলম হিরণ বলেছেন: আমার বাবার এক পরিচিত বন্ধু ছিল উনি সেসময় মেট্রিক পাশ ছিলেন। উনি যে ইংরেজি জানতেন এখনকার গ্যাজুয়েট ছেলেমেয়েরা এমন জানে না। শিক্ষার হার বাড়ছে কিন্তু মান ক্রমশই কমছে

১৮| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৪

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: এর কুফল শুরু হয়ে গেছে!

দ্রুত সমাধানের পথ খুঁজে বের করতে হবে।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:১৬

নূর আলম হিরণ বলেছেন: এর সমাধান খুব সহজ নয়। জাতিকে এদের টেনে নিয়ে যেতে হবে আরো অনেকটা সময়। সমাধান করার মত বুদ্ধিমান লোক খুব কম।

১৯| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫১

ইনাম আহমদ বলেছেন: এখনকার জেনারেশনের দোষ একার?
এদের বাপমায়েরা কেমন? পরীক্ষার আগে ছেলেকে নিজেরাই চুরি করতে সাহায্য করেন, উৎসাহ দেন।
এখনকার শিক্ষকেরা কেমন, যারা নিজেদের কাছে প্রাইভেট পড়া ছাত্রদের পরীক্ষার আগের রাতে ফাঁস হওয়া প্রশ্ন সলভ করে দেন?
ছাপাখানা থেকে ছাপা হওয়া প্রশ্ন কে আউট করে, সে কোন চোরের জেনারেশন?

২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:১৮

নূর আলম হিরণ বলেছেন: হ্যাঁ, বাবা মায়েরা বাচ্চাদের সাফল্য পেতে নিজেরা অনৈতিক পন্থা অবলম্বন করে। শিক্ষকদের মাঝে এমন অনেক দেখেছি যারা প্রাইভেট না পড়লে বাচ্চাদের টর্চার করে।

২০| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:৩১

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: হাজার হাজার ছেলে মেয়েদের মধ্যে থেকে দুই একজন হয়তো সঠিক পড়াশুনা না করার কারণে সঠিক জবাব দিতে পারছে ন। কিন্তু ওরাই আমাদের ভবিষ্যত। একদিন ঠিকি ওরা দেশকে এগেয়ে নিয়ে যাবে ভুলে ভরা বাংলা জেনেও।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১০:০৫

নূর আলম হিরণ বলেছেন: সংখ্যাটা দুই, একজন না বিশাল সংখ্যা।

২১| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:৩৯

জুন বলেছেন: আমি একটি প্রাইভেট কলেজের কথা শুনেছি সেখানে ছাত্র ছাত্রীদের পাশ না করালে টিচারের চাকরী চলে যায় ।
কি অদ্ভুত ব্যাবস্থা ।

২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১০:০৭

নূর আলম হিরণ বলেছেন: এমন কলেজ স্কুলের সংখ্যা অনেক। শিক্ষকদের নৈতিক অবক্ষয় চরম পর্যায়ে চলে যাচ্ছে।

২২| ২২ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৫৩

পুলক ঢালী বলেছেন: কি আর বলবো! জি এস ভাইয়ের উদাহরনই যথেষ্ঠ তারপরও একটু যোগ করি: এম,এ পাশ ছেলে বাংলা বা ইংরেজী কোন ভাষাতেই একটা সাধারন চিঠি লিখতে পারেনি দেখে আমার মাথার চুল ছিড়তে ইচ্ছে করছিলো। এরা সনদের জোরে দেশের সরকারের বা বিভিন্ন অফিসের কী পয়েন্টে বসে আমাদের জন্য কি সুফল বয়ে আনবে ভাবলেই হাত পা ঠান্ডা হয়ে আসে।
বহু বৎসর আমরা এর ফল ভোগ করতে থাকবো। দুর্ভাগা জাতি আমরা।

২৩ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ৮:৫২

নূর আলম হিরণ বলেছেন: ঠিক।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.