নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

লেখালেখি একটা নেশার মত। বিভিন্ন ঘাট পেরিয়ে কর্পোরেট জগতে থিতু হওয়ার পরও তাই লিখে যাই যা মনে আসে তাই। পদ্মার ওপাড়ের মানুষ হওয়ায় জন্মগতভাবেই স্মৃতিকাতর। এ আমার দুর্বলতা নয়, অহংকার

পদ্ম পুকুর

একজন শভেনিস্ট ও স্মৃতিকাতর মানুষ

পদ্ম পুকুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

এই লকডাউনে মাধ্যাকর্ষণ তত্ত্ব যেভাবে প্রমাণিত হলো...

১৫ ই জুন, ২০২০ সকাল ১১:৫০


আপনারা জানেন কিনা জানিনা, স্যার আইজ্যাক নিউটনের যুগান্তকারী মাধ্যাকার্ষণ তত্ত্ব আবিষ্কারের সাথে এক লকডাউন জড়িয়ে আছে। ১৬৬৫ সালে বুবোনিক প্লেগ মহামারীর সময় নিউটন কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটির ছাত্র ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস বাতিল হয়ে যাওয়ায় এ সময় জীবন বাঁচাতে নিউটন চলে গিয়েছিলেন তাঁদের পারিবারিক এস্টেটে। বলা হয়, বিশের কোটায় থাকা নিউটন কোয়ারেন্টিনের এই সময়টাতেই নিজের মেধার শিখরে পৌঁছেছিলেন, লিখে ফেলেছিলেন ক্যালকুলাসের আগমনী সংগীত। আলোক তরঙ্গেও নানা তত্ত্ব আবিষ্কারের পাশাপাশি এ সময়েই তিনি মাধ্যাকর্ষণ নিয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু করে দিয়েছিলেন। যার ফলশ্রুতিতে আবিষ্কৃত হয়েছিলো বিখ্যাত মাধ্যাকর্ষণ তত্ত্ব।

লকডাউনের সুযোগে নিউটন বিজ্ঞানকে বদলে দেয়া তত্ত্ব আবিষ্কার করেছিলেন আর প্রায় ৪০০ বছর পর এই লকডাউনে আমি সে তত্ত্বের মর্মার্থ আবিষ্কার করলাম! কেন সব কিছু উপর থেকে নিচের দিকে পড়ে, তা বুঝতে নিউটনকে দীর্ঘসময় চিন্তা ভাবনা করতে হলেও আমার চিন্তা ভাবনা করার কোন দরকারই পড়লো না। দীর্ঘদিন লকডাউনে থাকার পর আবার চৌদ্দদিনের কোয়ারেন্টিন শেষ করে গতকালই মাত্র অফিসে আসলাম। এসেই শুনি অফিসে কর্তৃপক্ষের হেভি গুরুত্বপূর্ণ মিটিং চলছে। একসময় মিটিং শেষ হলো এবং আমরা জানলাম সবার স্যালারি ১৫ শতাংশ কমিয়ে দেয়া হয়েছে!!!

মেজাজটাই বিলা হয়ে গেলো। প্রতিবছর আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো শতকোটি টাকা প্রফিট করে। এরপরও আমাদের মত মাসকাবারি কেরাণীদের ১৫% স্যালারি কমিয়ে দিলো! চাকুরিজীবিদের মাসের টাকার হিসাব থাকে আঙুলের ডগায়। হঠাৎ করে সেখান থেকে এতগুলো টাকা কমে গেলে খুবই সমস্যায় পড়তে হবে। রেগে মেগে রিন্টুকে বললাম-
: ডিরেকটররা নিজেদের প্রফিট এবার ৫০ শতাংশ কম নিলেই তো ল্যাঠা চুকে যায়।
: তোর বাসায় বুয়া আছে না ছাড়িয়ে দিয়েছিস? রিন্টু জানতে চাইলো।
: ছাড়িয়ে দিয়েছি, এই টেনশনের মধ্যে কিভাবে রাখবো?
: তো বুয়াকে কি বেতন দিচ্ছিস?
: দুই মাস দিয়েছি, বসায়ে বসায়ে আর কয় মাস দেবো?
: ও, তোর বেলায় ডিরেকটররা ৫০ শতাংশ কম প্রফিট নেবে, আর বুয়ার বেলায় বসায়ে বসায়ে কেন বেতন দেবো? বাহ।

অতএব আমি বুঝে গেলাম নিউটনের আপেলের মত সব কিছুই নিচের দিকে এসেই ঠেকে! এ নিয়ে কথা বাড়িয়ে লাভ নেই। তবে এত কঠিন একটা তত্ত্ব জলবৎ তরলং বুঝিয়ে দেয়ার জন্য পরিচালকবৃন্দের একটা ধন্যবাদ প্রাপ্য।

অখন ব্লগের ব্যাংকার-নন ব্যাংকাররা মাধ্যাকর্ষণ তত্ত্ব বোঝার কোশেশ শুরু করে দেন, খুব শীঘ্রই এই আপেল আপনার কাছেও আসতেছে। পিকচার আভি বাকি!

ছবিসুত্র: গুগল

মন্তব্য ৪৪ টি রেটিং +১৩/-০

মন্তব্য (৪৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১৫ ই জুন, ২০২০ সকাল ১১:৫৫

বিজন রয় বলেছেন: ভাল লিখেছেন।
বাস্তব কথা লিখেছেন।

১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:১৮

পদ্ম পুকুর বলেছেন: বিপদের উপ্রে আছি।

১৫% স্যালারি রিডিউসড
স্যানিটাইজেশনে মাসে খরচ বেড়েছে
লকডাউনের অজুহাতে সবকিছুই কিনতে হচ্ছে বেশি দামে
ফোনের কলরেট বেড়েছে
গণপরিবহনে খরচ বেড়েছে

সব মিলিয়ে ডেফিসিট ২০% এর বেশি হয়ে যাচ্ছে।

২| ১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:০৬

সাইন বোর্ড বলেছেন: এটা একটা ছোট আলামত, এরপর হয়ত আরো বড় আলামত দেখা যাবে ।

জীবন বড়ই কঠিন হয়ে যাচ্ছে মনে হয় !

১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:২১

পদ্ম পুকুর বলেছেন: বিশেষ করে মধ্যবিত্তের জন্য জীবন বেশি কঠিন হয়ে যাচ্ছে।

৩| ১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:১১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: বাঙ্গালীর এই এক সমস্যা। যতোক্ষণ কোন কিছু নিজের উপর না এসে পড়ে, ততোক্ষণ কিছুই বোঝে না। আর উপরে এসে পড়লে অনেক কঠিন বিষয়ও জলবৎ তরলং হয়ে যায়। আপনি বরং এক কাজ করেন.....বুয়ার বেতন যে কয়মাস দেন নাই, দিয়ে দেন। তারপরে অফিসে গিয়ে চিৎকার করে বলেন যে, আপনার সাথে অন্যায় করা হয়েছে। তাহলে এটাও প্রমান করতে পারবেন যে, সবকিছু নীচে এসে ঠেকে না!! :P

সবচেয়ে ভালো হয়, আমাদের প্রধানমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ করেন। উনি সবকিছুই শোনেন! :-B

১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:১৪

পদ্ম পুকুর বলেছেন: মহামতি নিউটনের তত্ত্বকে ভুল প্রমাণ করা কি উচিৎ হবে স্যার? B:-/

৪| ১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:২৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আল্লাহ ভরসা :(

১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৩৪

পদ্ম পুকুর বলেছেন: জ্বী তিনিই ভরসা।

আপনি ভালো আছেন তো?

৫| ১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৩৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: মহামতি নিউটনের তত্ত্বকে ভুল প্রমাণ করা কি উচিৎ হবে স্যার? অবশ্যই উচিত হইবে স্যার।

এইটা করিতে পারিলে আপনি নিউটনের তত্ত্বকে ভুল প্রমানীত করিয়া নো-বেল পুরস্কার লাভ করতঃ আমার (থুক্কু.....আমাদের রানীর) হাত হইতে নাইট উপাধীপ্রাপ্ত হইয়া অরিজিনাল 'স্যার' এ রুপান্তর লাভ করিতে পারিবেন। তাই এই সুযোগ হেলায় হারানো ঠিক হইবে না। B-)

১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৪০

পদ্ম পুকুর বলেছেন: তাইলে ট্রাই মাইরা দেহি এক্বার! দোয়া রাইখেন।

৬| ১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৪১

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




পদ্ম পুকুর ভাই, আমি ফোনে বেশি সময় ধরে কথা বলতে পারি না। ছেলেমেয়ে সবাই দেশের বাইরে - লক ডাউনের কারণে দেশে ফিরতে পারছেন না। লক ডাউনে নিউটন হওয়া তো সম্ভব না তবে বোবা হয়ে যাবো এটি কনফার্ম।


১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৫৩

পদ্ম পুকুর বলেছেন: লক ডাউনে নিউটন হওয়া তো সম্ভব না তবে বোবা হয়ে যাবো এটি কনফার্ম।
এইটাও কর্তৃপক্ষের মহৎ উদ্দেশ্যাবলীর একটা হতে পারে। বহুদিন আগে আগে কুসুমকুমারী দাশ আক্ষেপ করেছিলেন-
আমাদের দেশে সেই ছেলে কবে হবে
কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হবে?


এখন আমরা যেহেতু কথা কম বলে কাজ কোনদিনই বেশি করতে পারবো না, তাই কর্তৃপক্ষ আপনাকে বোবা বানিয়ে দেয়ার প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। এখন বোবা হয়ে কোনো কথা বলতে পারবো না, ফলে অল্প যেটুকু কাজ করবো সেটাই বেশি/বড় কাজ হবে... :-B

৭| ১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১:৪২

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সহজ সরল ও নন্দিত  ভাবে  উপস্থাপন

১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১:৫৪

পদ্ম পুকুর বলেছেন: যেমন সহজ সরল ও নন্দিত আপনার ফটোখানি :-P

৮| ১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ২:২০

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: অর্ডার না থাকলে মালিকদেরও দোষ দিয়ে লাভ নেই। না হয় ২ মাস বেতন চালিয়ে নিবে। কিন্তু এবার তো মনে হচ্ছে ৬/৭ মাস অর্ডার পাওয়া যাবে না। ইউরোপের যা অবস্থা...

১৫ ই জুন, ২০২০ দুপুর ২:২৯

পদ্ম পুকুর বলেছেন: কিয়েক্টাবস্থা!

৯| ১৫ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৫:০৪

ঢাবিয়ান বলেছেন: স্যলারি কমুক তাও চাকুরি টিকে থাকলেই হল। সারা বিশ্বব্যপী অবস্থা খুব কঠিন। দুনিয়াব্যপী এই ভাইরাস সং্ক্রমন কমার কোন লক্ষনইতো দেখা যাচ্ছে না। ভ্যকসিন আবিষ্কার না হলে সামনে যে কি দিন অপেক্ষা করছে কেউ জানে না।

১৬ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:২১

পদ্ম পুকুর বলেছেন: এইটা অবশ্য ভালো বলেছেন। নবাব সিরাজুদ্দৌলাহর পরাজয়ের পর সেই যে আমরা রাজার জাতি থেকে প্রজার জাতিতে পরিণত হলাম, এখন পর্যন্ত তার রেশ টেনে যাচ্ছি। সমাজের অদ্ভূত সংস্কারের দায় নিয়ে আমরা চাকুরি করে চাকর হতে চাই, নিজের মত ব্যবসা করে স্বাধীন থাকতে চাই না।

অতএব টিকে থাকুক চাকুরি।

১০| ১৫ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৫

রাজীব নুর বলেছেন: এই করোনা, এই লকডাউন বহু কিছু তছনছ করে দিলো।
যেদিন দাওয়াত খেতে আসবো সেদিন বলল- কি কি তছনছ হলো।

১৬ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:২২

পদ্ম পুকুর বলেছেন: তবে আপনার দাওয়াত তছনছ হবে না ইনশাআল্লাহ!

১১| ১৫ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:২৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: পদ্ম পুকুর,




:( :| :D
দারুন লিখেছেন।
এটা ঠিক , সব কিছুই নিম্নগামী - নীচে পড়ে। সেটা নিউটন আবিষ্কার করার আগে থেকেও পড়তো। ;) তার কোনও ক্রেডিট নেই এখানে।
বরং ৪০০ বচ্ছর পরে নিউটনের সূত্রের মর্মার্থ আবিষ্কার করায় আপনাকে " পদ্ম দিঘী" উপাধিতে ভূষিত করা যেতেই পারে। ইন্ডিয়া হলে বলতুম "পদ্মভূষন" উপাধি দেয়ার। আপনি মধ্যাকর্ষনের আকর্ষন ছাড়াই যে বেতন নিম্নগামী হতে পারে সে সূত্র আবিষ্কার করে ফেলেছেন। :P
নিউটন ছিলেন "প্লেগের" সময়, সে কারনে তার মাথাটাকে অনেক "প্লে" করতে হয়েছে। আর আমরা পড়েছি "লকডাউন" এ । তাই আমাদের বেতনও "ডাউন" হয়ে গেছে। :((

১৬ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:২৫

পদ্ম পুকুর বলেছেন: আপনাকে ধন্যবাদ এ রকম একটা উপাধি দেয়াতে। প্রফেসর আনিসুজ্জামান স্যারের সঙ্গী হতে না পারলেও কিছু তো একটা পেলাম!

নিউটনের সময় প্লেগে-দের সংখ্যা এত বেশি ছিলো, জানতাম না :-B। এইটাও একটা আবিষ্কার নিশ্চয়।

১২| ১৫ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:২৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আগে অফিস করত ১২ ঘণ্টা এখন তো ২৪/৭ চলে বাসায়।
এরপর ও কত ধরনের ডাউন আসে অপেক্ষায় আছি।

১৬ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:২৮

পদ্ম পুকুর বলেছেন: এই ডাউনে থাকতে থাকতে শেষ পর্যন্ত ডাউন সিন্ড্রোমে আক্রান্ত না হলেই হয় আর কি!

১৩| ১৫ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:৫০

মা.হাসান বলেছেন: সাতাত্তর জন সেক্রেটারির সহিত আলাপ করিয়া, দফায়-দফায় প্রার্থনার করিয়া স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে দেশকে সিঙ্গাপুর-আম্রিকার উফ্রে উঠানোর টারগেট রাখিয়া বড় হযরতজী পনেরশো পৃষ্ঠার বাজেট বইয়ের লাইনে লাইনে ওনার কমেন্ট লিখিয়া বাজেটের খসড়া ছোট হযরতের নিকট উত্থাপনের অনুমতি দিলে ছোট হযরতজী দেড় লিটার কালোজিরা-থানকুনি পাতা-পুদিনাপাতা- মূলার জুস পান করিতে করিতে দেড় ঘন্টা যাবৎ বাবা আদম হইতে শেষ নবী মোহাম্মদ পর্যন্ত সকল ধর্মপ্রচারকের ধর্মগ্রন্থ হইতে কোট করিয়া বাজেট উত্থাপন করিলেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান এবং অর্থ সচিব ৩৫ মিনিট ধরিয়া ওনারা উনাদের চাকরি জীবনে এত সুন্দর বাজেট দেখেন নাই, এমনকি অন্য কোনো দেশে এমন সুন্দর বাজেট হইয়াছে তাহা শুনেন নাই মর্মে আনন্দাশ্রু বিসর্জন সহ বাণী দিলে ওনাদের নিচতলার কর্মকর্তারা ১৫ মিনিটের ভাষণ দিয়াওনাদের নীচের কর্মচারীদের উদ্বুদ্ধ করলেন নতুন ভাবে ভ্যাট আদায় করিবার জন্য ।

ভ্যাট সুপারভাইজার দোকানে দোকানে যাইয়া ৩ মিনিটের মধ্যে বুঝাইয়া দিলেন এখন হইতে ভ্যাটের ফিক্সড রেট বর্ধিত করা হইল।

দোকানে যাইয়া সওদা-পাতি খরিদ করিবার পর আপনি দেখিলেন আগের দিনের চাইতে মূল্য বৃদ্ধি পাহিয়াছে। কারণ জিজ্ঞাসা করিলে দোকানদার আপনাকে এক মিনিটের ভাষণ দিয়া বুঝাইয়া দিলো অন্যদের নিকট তো সে নতুন ভ্যাটরেট অনুসারেই দাম রাখিতেছে। আপনি পুরাতন কাস্টোমার বলিয়া আপনাকে খাতির করিয়া সে দাম কমই রাখিয়াছে।

বাসায় যাওয়ার পর গৃহ মন্ত্রী বাজারের টাকার হিসাবে খুশি হইতে না পারিয়া প্রশ্ন করিলে আপনি গত বছরের জুন মাসের পর এই প্রথম মন্ত্রী মহোদয়ার কথায় মুখের উপর জবাব দিলেন। ৩০ সেকেন্ডের সকাতর বক্তব্যে তাহাকে জানাইয়া দিলেন আপনি চুরি করেন নাই, মূল্যবৃদ্ধি হইয়াছে।

আপনার আত্মপক্ষ সমর্থন (আত্মসমর্পন ?) এর পর গৃহ মন্ত্রীর ৫ সেকেন্ডের বাণী --- কাল হইতে সিগারেটসহ যাবতীয় বাজে খরচ বন্ধ। সিগারেট? সে তো বিয়ের পরদিন হইতেই বন্ধ। সব পারসোনাল খরচই অনেক আগেই বন্ধ হইয়াছে , ঠাকিবার মাঝে ছিলো শুধু বাসার বাইরে হইতে সামু দেখিবার জন্য মোবাইল ডাটার খরচ। এবার তাহাও শেষ!

অতঃপর আপনি বাক্যহারা।

মধ্যাকর্ষনের টানে শুধু জিনিস নিচেই পড়ে না, পানির ধারা লক্ষ্য করিবেন-- যখন নিচে পড়ে তখন ফ্লো ডায়ামিটার ছোট হইতে থাকে।


১৬ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:৩৭

পদ্ম পুকুর বলেছেন: শেষ পর্যন্ত নিউটন তাইলে সামুর উপরেই কোপ বসালেন? গ্রেট মানুষতো এরাই, চারশো বছর আগে এক কম্ম দিয়ে এই ফোরজির যুগেও নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করে ফেলেছেন!! সাব্বাস।

তবে এই মুহুর্তে আর্মিকার উপ্রে যাওন লাগতো না, বরং হেতেরাই বাংলাদেশের অনুসরণ করা শুরু কর্ছে। ট্রাম ভাইজান কইছে টেস্ট বন্ধকরলেই করোনা কমে যাবে।

১৪| ১৫ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:৫৯

শের শায়রী বলেছেন:

আপনার লেখার সাথে এর থেকে ভালো কোন উপমা খুজে পেলাম না :)

১৬ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:৩৮

পদ্ম পুকুর বলেছেন: আলবৎ!

১৫| ১৬ ই জুন, ২০২০ রাত ১:১০

কাওসার চৌধুরী বলেছেন:



এই লকডাউনে আমরা পেলাম "পদ্মপুকুরটন" সূত্র। যার ভল্টেজে তাপমাত্রা পুকুরে তলদেশে একলাফে ১৫ ডিগ্রি কমিয়া গেল! লকডাইন সুত্রে নিউটন উপকৃত হইলেও পদ্মপুকুরটন নিজেকে পুকুরে নিমজ্জিত হিসাবে আবিষ্কার করিয়াছেন। দুঃজনক।

১৬ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:৪০

পদ্ম পুকুর বলেছেন: পুকুরের তলদেশের তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রি কমলেও চান্দির টেম্পারেচার ৩০ ডিগ্রি বাইড়া গেছেগা!

১৬| ১৬ ই জুন, ২০২০ রাত ৩:২২

*কুনোব্যাঙ* বলেছেন: আপেল মনেহয় সবার মাথাতেই পড়া শুরু হইছে। করোনার যে অবস্থা পুরোপুরি ক্লিয়ার না হইলে ধনী দেশগুলো বাংলাদেশকে লকডাউন করে দিতে পারে। ব্যবসা তখন হাতছাড়া হয়ে ভিয়েতনাম বা অন্যদিকে চলে যাবে। আসল পিকচার তো তখন শুরু হবে।

১৬ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:৪০

পদ্ম পুকুর বলেছেন: হু, সেটাই তো বলেছি- পিকচার আভি বাকি হ্যায়, এ ভি ট্রেইলার।

১৭| ১৬ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২১

নান্দনিক নন্দিনী বলেছেন: আমরা এখন 'টিকেলডাউন' থিওরীতে আছি। মানে চুয়িয়ে পড়ে যেটুকু মিলে আরকি!
মহামারির একটা ভাল দিক, বাহুল্যবর্জিত জীবনে অভ্যস্ত হবে অনেকে।
১৫% এর জন্য সমানুভূতি জ্ঞাপন করছি!

১৮ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:৪১

পদ্ম পুকুর বলেছেন: সহানুভূতিটাকে যদি ক্যাশে কনভার্ট করে দিতেন.... :D

১৮| ১৯ শে জুন, ২০২০ রাত ১২:৪১

নান্দনিক নন্দিনী বলেছেন: সমানুভূতি জ্ঞাপন করছিলাম তো।
তারপরও বলেন, চেকের পাতায় কোন অংকটা বসাতে হবে।

১৯ শে জুন, ২০২০ রাত ১২:৪৬

পদ্ম পুকুর বলেছেন: ১৫% কর্তনের চোটে চোখে আজকাল ঝাাঁপসা দেখছি, সিমপ্যাথি-এমপ্যাথি সব গুলিয়ে বসেছি। যাই হোক, চেক লাগবে না। আপনার নতুন লেখা পড়ে নিয়েছি। একটা সুন্দর লেখা পড়ার আনন্দ অনেক সময় কোনো অংকে নির্ণয় করা যায় না।

সমানুভূতির জন্য ধন্যবাদ। যদিও সাংবাদিকতায় এই সমানুভূতির একটা আলাদা গুরুত্ব রয়েছে, কিন্তু বাস্তবে সমানুভূতি কতটুকু সম্ভব তা মনের ডাক্তাররাই ভালো বলতে পারবেন।

১৯| ১৯ শে জুন, ২০২০ বিকাল ৪:২০

নান্দনিক নন্দিনী বলেছেন: মাত্র ১৫% এ চোখে ঝাপসা দেখলে চলবে না পদ্ম পুকুর! এর চেয়েও খারাপকিছু অপেক্ষা করছে হয়তো।
মনের ডাক্তার সমানুভূতি'র ব্যাখ্যা তাদের মতো করে দেয় হয়তো, তবে আমি যে কোনো পরিস্থিতিতে চিন্তা করি দুঃশ্চিন্তা করি না।

আপনি জানেন হয়তো, কোনো কোনো বেসরকারী প্রতিষ্ঠান বেতনের শুধু বেসিক দিচ্ছে। সামনের ছয়মাস পরে কী হবে কেউ জানে না। কারণ এদেশে বেসরকারী প্রতিষ্ঠানগুলো আসলে ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠান ছাড়া আর কিছু নয়।

লেখালিখিটুকু আছে বলেই আলহামদুল্লিলাহ ভাল সময় কাটছে। ভাল থাকুন।

১৯ শে জুন, ২০২০ বিকাল ৪:৩৯

পদ্ম পুকুর বলেছেন: জ্বী, লেখার এই আনন্দটুকু কোনো বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কোয়ার্টার মাস্টার কর্তন করে নিতে পারবে না....

একটা দুর্যোগময় পরিস্থিতির ফল হিসেবেই অনেকরকম ওলটপালট হবে স্বাভাবিকভাবেই। কিন্তু করোনায় অর্থনৈতিক ক্ষতির মূল ধাক্কা শুরু না হতেই আর্থিকখাতে অস্থিরতা তৈরী হলে তার প্রভাব অতি দ্রুতই অন্য খাতগুলোতে পড়বে। সেটাই ভয়ের।

২০| ২২ শে জুন, ২০২০ রাত ১২:২৮

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির কর্মীরা আসলে অনেক ঝুঁকি নিয়ে চাকরী করছে। এখানে করোনার প্রকোপও বেশী। তাদেরকে ব্যাংকের পক্ষ থেকে বাড়তি ভাতা দেয়ার জন্য যেখানে সরকার ( বাংলাদেশ ব্যাংক) থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে সেখানে উল্টা ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বেতন কম দেয়ার কথা বলছে যা আসলে দুঃখজনক ও পরস্পর বিরোধী। অপরদিকে সরকারি কর্মচারীরা করোনায় আক্রান্ত হলেই মোটা অংকের টাকা পাবে। এই যুগে সরকারি ছাড়া আসলে আর কোনও শ্রেণীর মানুষের কোনও মূল্য নাই।

২২ শে জুন, ২০২০ বিকাল ৩:০১

পদ্ম পুকুর বলেছেন: গত পরশু একটা টকশোতে দেখলাম ড. আতিউর রহমান বলছেন- ব্যাংকের পরিচালকবৃন্দতো আসলে ব্যাংকের মালিক নন, প্রকৃত মালিকতো আমানতকারীরা। সামান্য পরিমাণ শেয়ারের মালিক হয়ে পরিচালকরা মালিক হিসেবে নিজেকে ট্রিট করতে থাকেন। অন্যদিকে ব্যাংক প্রকৃতপক্ষে একটা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নয়, এটা ব্যবসা ও সেবার মধ্যবর্তী একটা প্রতিষ্ঠান। কিন্তু পরিচালকরা ব্যাংক কে লাভজনক ব্যবসা হিসেবে মনে করে।

সমস্যা হলো, ব্যাংকের স্যালারি কমলে তার প্রভাব বাকি সব অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে পড়তে বাধ্য।

মন্তব্যর জন্য ধন্যবাদ।

২১| ২৩ শে জুন, ২০২০ বিকাল ৩:৫৩

নীল আকাশ বলেছেন: ১৫% এর জন্য সমানুভূতি জ্ঞাপন করছি।
আমার মনে হয় সামনে আরো খারাপ কিছু অপেক্ষা করছে।
আল্লাহই জানে সামনে কী দিন অপেক্ষা করছে আমাদের জন্য!

২৩ শে জুন, ২০২০ বিকাল ৩:৫৭

পদ্ম পুকুর বলেছেন: আজকে আমার অফিসের একজন করোনাক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।

২২| ২৩ শে জুন, ২০২০ বিকাল ৪:১৮

নীল আকাশ বলেছেন: লেখক বলেছেন: আজকে আমার অফিসের একজন করোনাক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।
ইন্না নিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজেউন।
আমার অফিসে ২০ এর উপরে পজেটিভ। প্রচন্ড ভয়ে ভয়ে অফিস করছি। কোন উপায় নেই।

২৪ শে জুন, ২০২০ বিকাল ৩:২৬

পদ্ম পুকুর বলেছেন: আমার তো অফিসে আসলেই মনে হয় যে গলা ব্যথা করে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.