নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সাধারণ একজন মানুষ। বলার মতো বিশেষ কিছু নেই। মনের ভাবনাগুলো তুলে ধরতে চাই। ভালো লাগে কবিতা, লিখা-লিখি আর ছবি তোলা, এইতো! https://bhuiyan.us/

ইফতেখার ভূইয়া

গণতন্ত্র মুক্তি পাক, পরিবারতন্ত্র নিপাত যাক

ইফতেখার ভূইয়া › বিস্তারিত পোস্টঃ

সেকরিড - আপনার আধুনিক ওয়ালেট

১৬ ই জুলাই, ২০২১ বিকাল ৪:২৬


দৈনন্দিন জীবন যাত্রায় নগদ টাকার ব্যবহারের প্রচলন বেশ প্রাচীন কিন্তু প্রযুক্তির আধুনিকায়নের সাথে সাথে নগদ টাকার লেনদেন ধীরে ধীরে কমে যাচ্ছে। উন্নত বিশ্বে যদিও এই পরিবর্তনের ধারা শুরু হয়েছে আরো কয়েক দশক আগেই তবু এখনো প্রায় সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেই নগদ লেনদেন হচ্ছে। বিভিন্ন কারনে ব্যক্তিগতভাবে আমি নগদ লেনদেন যতটা সম্ভব কম করার পক্ষে। টাকায় জীবানু বহন করা ছাড়াও চুরি হয়ে যাওয়া বা ছিনতাই হয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে একটা রিস্ক ফ্যাক্টর। যেহেতু আমি মোটামুটি সব জায়গাতেই কার্ড ব্যবহার করতে পারছি, তাই ব্যক্তিগতভাবে আমি ২০/৫০ ডলারের বেশী সাথে রাখি না।

সবদিক বিবেচনা করে আমার কাছে সেকরিড ব্র্যান্ডের ওয়ালেট বেশ ভালো এবং মান সম্পন্ন বলে মনে হয়েছে। বিগত ৩/৪ বছর ধরেই এই একটি ওয়ালেট ব্যবহার করছি। আমার বন্ধুরাও বেশ পছন্দ করেছে। ভাবলাম আপনাদের সাথেও শেয়ার করি, কারো হয়তো ভালো লাগলেও লাগতে পারে। এটি হল্যান্ডের একটি ব্র্যান্ড এবং মূলত তিন ধরনের ওয়ালেট এরা বিক্রি করে থাকে (মিনি ওয়ালেট ৯০-১৩৫ ডলার, স্লিম ওয়ালেট ৯০-১৩৫ ডলার এবং টুইন ওয়ালেট ১৩৫-১৪০ ডলার)। ব্যক্তিগতভাবে আমি স্লিম ওয়ালেটটি-ই ব্যবহার করছি। যদিও এদের অসংখ্য কালার ভ্যারিয়েশন রয়েছে তবুও ভিনটেজ ব্রাউনটাই আমার ভালো লেগেছে। ওয়ালেটটি আসলেই বেশ স্লিম। সাইড থেকে দেখতে অনেকটা এই রকম।


আর ভেতরে ফোল্ড খুলে ফেললে এ রকম দেখাবে।


আমি যে মডেলের এবং কালারের ওয়ালেটটি ব্যবহার করছি সেটির উপর ইউটিউবে কেউ একজন রিভিউ করেছেন, তাই আপনাদের বোঝার সুবিধার্থে ভিডিওটি শেয়ার করছি যাতে আরো ভালোভাবে বুঝতে পারেন।


কেন ব্যবহার করছিঃ বর্তমানে বেশীরভাগ ডেবিট এবং ক্রেডিট কার্ডগুলো আর.এফ.আই.ডি. প্রযুক্তি সমৃদ্ধ। যার কারনে বার বার কার্ড স্লটে না সোয়াইপ করেও লেনদেন করা যায়। কিন্তু সমস্যা হলো কিছু আধুনিক চোর এই প্রযুক্তি সমৃদ্ধ স্ক্যানার ব্যবহার করে আপনার কার্ডের যাবতীয় তথ্য চুরি করে নিতে পারে (ভিডিও)। কিন্তু এই ওয়ালেট আপনাকে এই ঝামেলা থেকে সুরক্ষা দিতে পারে যেহেতু কার্ডগুলো মূলত বিশেষ প্রযুক্তির এ্যালুমিনিয়াম ব্যবহার করে। যা কোন স্ক্যানার দিয়েও স্ক্যান করে আপনার কার্ডের তথ্য চুরি করতে পারবে না। স্লিমওয়ালেটে সর্বোচ্চ ছ'টি ডেবিট এবং ক্রেডিট কার্ড বহন করার পাশাপাশি আই.ডি. কার্ড, হেলথ ইনস্যুরেন্স কার্ড, যাতায়াত করার মেট্রো কার্ড, কিছু নগদ টাকা বহন করা সম্ভব। বিস্তারিত জানতে সেকরিডের অফিশিয়াল সাইট ভিজিট করতে পারেন।

ছবি কপিরাইটঃ সেকরিড

বিঃদ্রঃ উপরের বক্তব্য নিতান্তই ব্যক্তিগত। সেকরিড ব্র্যান্ডের সাথে আমার ব্যক্তিগত কোন এ্যাফিলিয়েশন নেই।

মন্তব্য ৪ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১৬ ই জুলাই, ২০২১ বিকাল ৪:৩৮

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: ভালোলাগার মত ওয়ালেট। তবে দাম বেশি। জনসাধারণের জন্য ডিফিকাল্ট হবে এটা সংগ্রহ করা। সুন্দর শেয়ার।

১৬ ই জুলাই, ২০২১ বিকাল ৪:৪২

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: দাম হয়তো কিছুটা বেশী কিন্তু পণ্যের গুণগত মান খুবই ভালো। সংগ্রহ করা কিছুটা কঠিন হবে হয়তো, তবে ইউরোপ-আমেরিকা প্রবাসী আত্নীয় বা বন্ধু-বান্ধব দিয়ে সংগ্রহ করা যেতে পারে। মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

২| ১৬ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১১:৫৪

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: আমাদের দেশে পাওয়া কঠিন। পাওয়া গেলেও কেনা কঠিন।

১৭ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১২:২৬

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: সত্য কথন। প্রবাসে বন্ধু-বান্ধব থাকলে ব্যাপারটা অতটা কঠিন হবে না। তবে খুব বেশী ক্যাশ ক্যারী করা যাবে না, এই যা। ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.