নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

মরুভূমির জলদস্যু

পগলা জগাই

মরুভূমির জলদস্যুর বগানে নিমন্ত্রণ আপনাকে।

পগলা জগাই › বিস্তারিত পোস্টঃ

ধূমকেতু নিওওয়াইজ / Comet NEOWISE

১৭ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৩১



২০২০ ইং সালের ২৭শে মার্চ নাসার নিওওয়াইজ (NEOWISE) স্পেস টেলিস্কোপ ব্যবহার করে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছিলেন C/2020 F3 (NEOWISE) বা Comet NEOWISE বা নিওওয়াইজ ধূমকেতুটিকে। সেই সময়, এটি একটি দশম-মাত্রার ধূমকেতু ছিল, যা সূর্য থেকে ২ AU (৩০০ মিলিয়ন কিলোমিটার বা ১৯০ মিলিয়ন মাইল) এবং পৃথিবী থেকে ১.৭ AU (২৫০ মিলিয়ন কিলোমিটার বা ১৬০ মিলিয়ন মাইল) দূরে অবস্থান করছিলো।



জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা জানান ২০২০ ইং সালের জুলাই মাসের মধ্যে নিওওয়াইজ ধূমকেতুটি খালি চোখে দৃশ্যমান হওয়ার পক্ষে যথেষ্ট উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। গত ৩ জুলাই সূর্যের কাছ দিয়ে যাওয়ার বেশ কিছু দিন আগে থেকেই ধূমকেতুটির দুটি লেজ তৈরি হয়েছে। একটি আয়নিত গ্যাসের, অন্যটি ধুলোর। ধুলোর উপরে সূর্যালোক প্রতিফলিত হয়ে উজ্জ্বল করে তুলেছে। ১৪ জুলাই থেকে সূর্যাস্তের পর উত্তর-পশ্চিম আকাশে প্রতিদিন সপ্তর্ষি মণ্ডলের নিচে প্রায় ২০ মিনিট নিওওয়াইজ ধূমকেতুটি দেখা যাবে। আর প্রতিদিন ২ ডিগ্রি উপরে উঠতে থাকবে ধূমকেতুটি। ২২ জুলাই পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে চলে আসবে নিওওয়াইজ ধূমকেতুটি। তখন পৃথিবী থেকে এর দূরত্ব হবে প্রায় ১০ কোটি ৩০ লাখ কিলোমিটার।



৩০ জুলাই সূর্যাস্তের পর উত্তর-পশ্চিম আকাশে সপ্তর্ষি মণ্ডলের নিচে প্রায় ১ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে ধূমকেতুটি দেখতে পাওয়া যাবে। তবে জুলাইয়ের শেষ থেকে আস্তে আস্তে দৃষ্টি থেকে চলে যাবে ধূমকেতুটি।



আগেই বলেছি খালি চোখেই দেখা যাবে বিরল এ মহাজাগতিক দৃশ্য। তবে আমাদের শহুরে লাইট-ডাস্ট-ফগ পলুশনের কারণে খালি চোখে দেখতে পাওয়া কঠিন হয়ে যাবে। তাছাড়া শহরে দিগন্তই ঢাকা থাকে দালানের আড়ালে, তাই দেখতে পাওয়ার সুযোগ আরো কমে যায়। শহরবাসী ছাদের উপরে দাঁড়িয়ে চোখে দূরবিন লাগিয়ে দেখতে হবে হয়তো। গ্রামের দিকে অন্ধকারাচ্ছন্ন এলাকা থেকে খালি চোখেই দেখা যাবে। দূরবিনের সাহায্যে আগষ্ট মাসের মধ্যভাগ পর্যন্ত দেখা যেতে পারে। কোনো কারণে এবার যদি নিওওয়াইজ ধূমকেতুটি দেখতে না পারেন তাহলে একে আবার দেখতে আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে মাত্র ৬ হাজার ৮০০ বছর।



আমরা জানি ধূমকেতু সূর্যকে অতিমাত্রায় উপবৃত্তাকার পথে পরিক্রমণ করে। সূর্যকে এক বার পাক খেতে যে সময় লাগে তাকে বলে পরিক্রমণ কাল। জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা হিসাব করে দেখেছেন নিওওয়াইজ ধূমকেতুটির পরিক্রমণ কাল ৬৮০০ বছর। অর্থাৎ ধূমকেতুটি টিকে থাকলে ৬৮০০ বছর পরে হয়তো আরেকবার দেখা দিতে পরে পৃথিবীর মানুষের কাছে। মনে রাখবেন এ শতকের সবচেয়ে উজ্জ্বল ধূমকেতু এটি। আকাশ পরিষ্কার থাকলে বিরল মহাজাগতিক মুহূর্তের সাক্ষী না হতে পারলে আর সুযোগ নাও আসতে পারে। জুলাই এর শেষের দিকেই ধীরে ধীরে সে দূরে যাত্রা করবে। আবার হয়তো ফিরবে ৬৮০০ বছর পর!








ছবি : নেট

মন্তব্য ২৫ টি রেটিং +৭/-০

মন্তব্য (২৫) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৩৯

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:


খুবই মুল্যবান সচিত্র তথ্য সম্বলিত পোষ্ট।
বর্ণনা বেশ প্রাঞ্জল । সরাসরি প্রিয়তে।

শুভেচ্ছা রইল

১৭ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৫৭

পগলা জগাই বলেছেন: মন্তব্য আর প্রিয়তে নেয়ার জন্য অশেষ ধন্যবাদ আপনাকে প্রিয় ডঃ এম এ আলী।

২| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৪১

শেরজা তপন বলেছেন: পরের বার-ই দেখব না হয়, তখন মনে হয় আকাশ পরিস্কার থাকবে :)

তথ্য শেয়ারের জন্য ধন্যবাদ।

১৭ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৫৮

পগলা জগাই বলেছেন: আকাশ পরিষ্কার হবার আরো যথেষ্ট সময় আছে ।

৩| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৫

ডি মুন বলেছেন: দারুণ।

মহাবিশ্ব এক অনন্ত বিস্ময়। আমাদের অস্তিত্ব বালুকণার চেয়েও ক্ষুদ্র।
অথচ কতো অহংকারেই না ডুবে থাকি।
সমগ্র মহাবিশ্বের আলোকে ভাবলে একরকম এক্সিস্টেনশিয়াল ক্রাইসিস তৈরি হয় ভেতরে।

১৭ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৮

পগলা জগাই বলেছেন: আমাদের সাধারণ চিন্তার পরিধির চেয়ে অনেক অনেক বেশী বড় মহাবিশ্ব, তাই আমরা টের পাই না।

৪| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৯

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: এবার মিস করলে পরের বার দেখে নিব। :)

১৭ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৮

পগলা জগাই বলেছেন: এই জীবনে হয়তো আরো একটা এমন জিনিস দেখার সুযোগ আসতেও পারে যদি বেঁচে থাকি।

৫| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৩০

আহমেদ জী এস বলেছেন: পগলা জগাই ,




শেয়ার করার জন্যে ধন্যবাদ। মহাকাশটাই একটা মহা বিস্ময়!
তবে আফসোস, নিওওয়াইজকে দেখতে আরো ৬৪০০ বছর বেঁচে থাকতে হবে! ঝামেলা বাড়ালেন .... :(

১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৩৯

পগলা জগাই বলেছেন: চেষ্টা নেন।, সাথে আমাকেও রাইখেন, একবার দেখে খায়েস মিটবে না।

১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৪০

পগলা জগাই বলেছেন: তাতেও অবশ্য কাজ হবে না, আপনি ৪০০ বছর কম হিসাব করেছেন....

৬| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৪৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: পগলা জগাই ,




হা..হা.. একটু আগেভাগে দেখতে চাইছিলুম আর কি !!!!!!!!! ;)
আপনাকে সাথে রাখলে একটু মুশকিল আছে! আপনি ক্যামেরায় ধুমকেতুর এমন সব ধুমধারাক্কা ছবি তুলবেন যে লোকে আমার মোবাইলে তোলা ছবিগুলো পাত্তাই দেবেনা!!!! :((

১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:১৭

পগলা জগাই বলেছেন: আরে ধুর, ঐ জিনিসের ছবি তোলার মত্য বিদ্যা আমার নাই, যন্ত্রও নাই।

৭| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:০৬

রাজীব নুর বলেছেন: অন্তত নক্ষত্র বীথিতে রহস্যের শেষ নেই। সব রহস্য মানুষ জানতে পারবে না।

১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:১৮

পগলা জগাই বলেছেন: তা পারবেনা, যতটুকু জানতে পারবে তার সামনে আরো অনেক বেশী অজানা রহস্য উকি দিবে শুধু।

৮| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:১৯

নেওয়াজ আলি বলেছেন: অনেক মূল্যবান এবং তথ্যমূলক লেখা । জানলাম অনেক কিছু

১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৪০

পগলা জগাই বলেছেন: সময় সুযোগ হলে দেখে নিয়েন।
মন্তব্যের জন্য অশেষ ধন্যবাদ।

৯| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১১:১৬

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
বাংলাদেশটাকেই ঘুরে দেখা হলো না।
বিশ্বজগত খুবই মজার।

১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১১:২২

পগলা জগাই বলেছেন: ধূমকেতু দেখার সাথে দেশদেখার বিষয়টা ঠিক যায় না।

১০| ১৮ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৩৮

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: চমৎকার পোস্ট ।

১৮ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৫৬

পগলা জগাই বলেছেন: ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।

১১| ১৮ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:২৪

নতুন বলেছেন: আমাদের এখানে আকাশ পরিস্কার। কয়েক দিন আগে দেখলাম যে ভোর ৪.১৫ তে দেখা যাবে।

আরো গবেষনা কইরা দেখলাম যে কয়েকদিন পরে মাঝ রাতে দেখা যাবে।

আজ দেখতেছি আমি ভুল বুঝেছি ঐ দিন। এখন সূয` উঠে যাবে তাই এখান থেকে আর দেখা যাবেনা। :(

চরম মিস করলাম।

১৮ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:৩৪

পগলা জগাই বলেছেন: শুভকামনা রইলো। হয়তো অন্যকোনো আগন্তুক আবার এসে দেখা দেবে।

১২| ৩১ শে জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:৫৫

সাহাদাত উদরাজী বলেছেন: মহাকাশ নিয়ে আমার এত ভাবনা নেই, তবে রাতে তারা আমার ভাল লাগে!

০২ রা আগস্ট, ২০২০ রাত ১:১৮

পগলা জগাই বলেছেন: আমারও ভাবনা নেই এবং ভালো লাগে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.