নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সেলিম আনোয়ার

[email protected] Facebook-selim anwar বেঁচে থাকা দারুন একটা ব্যাপার ।কিন্তু কয়জন বেঁচে থাকে। আমি বেঁচে থাকার চেষ্টা করি।সময় মূল্যবান ।জীবন তার চেয়েও অনেক বেশী মূল্যবান।আর সম্ভাবনাময়।সুন্দর।ঢাকাবিশ্বদ্যিালয়ের পাঠ চুকিয়ে নিরস চাকুরীজীবন।সামনে আরও নিরস ভবিষ্যৎ। নিরস জীবন সরসভাবে কাটানোর প্রচেষ্টায় আমি সেলিম আনোয়ার।

সেলিম আনোয়ার › বিস্তারিত পোস্টঃ

হুমায়ূন ফরীদি স্মরণে জন্মদিনের একদিন আগে !!!!

২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১০:০১





ঘটনাটি এমন। প্রয়াত চলচ্চিত্র পরিচালক শহীদুল ইসলাম খোকন বসে আছেন। পাশের চেয়ারটি ফাঁকা। ফাঁকা চেয়ার পেয়ে আমি যখন বসতে গেলাম। পরিচালক খোকন ঘাবড়ে যাওয়া চেহারা নিয়ে বললেন ওটা ফরীদি ভাইয়ের চেয়ার। ঐ খানে কেউ বসে না। দুজনার কথোপকথনে স্পষ্টতই বুঝতে পারছিলাম খোকন ফরীদির একজন ফ্যান। আমার বন্ধু সহকারী পরিচালক এক ফাঁকে আমাকে বললেন চাকুরী তো দিয়েছিলে খেয়ে। যাই হোক খোকন ফরীদি কে প্রলুব্ধ করছিলেন কোন একটি সিনেমায় অভিনয় করার জন্য। ফরীদি তখন সিনেমায় অভিনয় প্রায় ছেড়েই দিয়েছেন। বুঝা যাচ্ছিল তিনি ছবিটিতে অভিনয় করবেন না। আরও খোকন কে শুনিয়ে দিলেন জান খোকন এই নাটকটি দুই লাখ টাকায় বিক্রি করা যাবে। নাটকটির নাম বিহঙ্গ।

নাটকটির শুটিং ছিল রিকশায় অপি করিম আর ফরীদি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দোয়েল চত্বর থেকে টিএসসি যাবেন। তখন অমর একুশে বই মেলা চলছিল। ফরীদি আশংকায়। এই সময়ে শুটিং করা যাবে না। আমি দায়িত্ব নিলাম । ফরীদি কে আশ্বস্ত করলাম । শুটিং হলো । আমি সঙ্গে থাকলাম। কোন সমস্যা হয়নি। আসলেই দেখলাম ফরীদি তার গাড়ি তে করে এক খানি আরাম কেদারা বহন করছেন । যাইহোক পরে জানলাম নাটকে ফরীদি আমাকে কৃতজ্ঞতা স্বীকার করেছেন।

আমার কবিতার বই হৃদয় মালতি শ্রদ্ধেয় হুমায়ূন ফরীদি কে উৎসর্গ করা হয়েছে। এটি অবশ্য শায়মা কে উৎসর্গ করার কথা ভাবছিলাম। শায়মা কি মনে করে ভেবে আর করা হলোনা। আমার ব্লগে আগমন হুমায়ূন ফরীদির মৃত্যুর পর। আমার মনে আছে তখন আমি অফিসের বহিরঙ্গন কাজে বিছনাকান্দি সিলেট। এমন সময় বেতারে শুনতে পেলাম ফরীদির মৃত্যু সংবাদ। মনে মনে চাইছিলাম খবরটি যেন মিথ্যে হয়। কিন্তু সেটা ছিল কঠিন তম সত্য। বাংলাদেশের সবচাইতে শক্তিশালী অভিনেতার মৃত্যু হলো। এতো বড় অভিনেতা আর একটিও নেই এই বঙ্গে। তিনি ছিলেন একজন ভার্সাটাইল অভিনেতা। তিনি খল চরিত্রে অভিনয় করে খল চরিত্রকে সমৃদ্ধ সম্মানিত করেছিলেন।তার মত করে প্রেমের সংলাপ আর কোন অভিনেতা দিতে পারেনি। রম্যকার হিসেবে ও তিনি ছিলেন অতুলনীয়। তার জীবনের শেষ জন্মদিন বালাই ষাট অনুষ্ঠানে আমি উপস্থিত ছিলাম । তালের আসারি, চটপটি ফুচকা ইত্যাদি ব্যতিক্রমী সব খাবারের আয়োজন ছিল সেই প্রোগ্রামে। সেটির উপস্থাপনা করেন আফজাল হোসেন এবং ইমদাদুল হক মিলন। আজ ফরীদির জন্মদিন। আজ একজন দেশ প্রেমিক নিমগ্ন অভিনয় শিল্পীর জন্মদিন। বালাই ষাট অনুষ্ঠানে তিনি সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের যদি নির্বাসন দাও কবিতাটি আবৃত্তি করে ছিলেন। যদি নির্বাসন দাও আমি ওষ্ঠে অঙ্গুরী ছুয়াবো । আমি বিষপান করে মরে যাবো। অথচ তিনি নিজেকে সেই সময়ে নির্বাসন দিয়েছিলেন। তিনি অভিনয় দিয়ে আমাদের বিনোদিত করে ছিলেন, মুগ্ধ করেছিলেন অনেক আনন্দ ঘন ক্ষণ আমাদের উপহার দিয়েছিলেন। পরিশেষে বলবো ভাল থাকুন শ্রদ্ধেয় ফরীদি না ফেরার দেশে।

শ্রদ্ধেয় হুমায়ূন ফরীদি
_____________________
আপনার অভিনয় খুব মিস করি,
আপনি মন্ত্র মুগ্ধ করে রাখতেন
ক্যামেরা আপনাকেই খুঁজে নিতো
দুর্নিবার আকর্ষণে খুঁজে নিতো দর্শকের চোখ।
রূপসী রমনীর আবেদন ফিকে হয়ে যেত
আপনার অভিব্যক্তির কাছে।
সময়ের অপচয় ততটুকু সময় যতটুকু সময়
ক্যামেরাতে অন্য কোন অভিনেতার অবয়ব
আপনার সংলাপ বিহীন সময়টুকুতেও
আপনিই হয়ে ওঠতেন চূড়ান্ত অভিনয়।
তাই আপনি ছিলেন একেবারে ব্যতিক্রম।
আপনি অকপটে সত্য বলে দিতেন
সমুদ্রের মত বিশাল হৃদয় নিয়ে আপনি
দান করে গেছেন।
করোনা আক্রান্ত সময়ে তাই স্মৃতির মানসপটে
আপনি আরও প্রগাঢ় হয়ে ওঠেন।
আজ আপনি জন্মেছিলেন ভাষা আন্দোলনের
সময়ে ।
আপনি ছিলেন নির্লোভ মুক্তিযোদ্ধা;
আর্ত পীড়িত মানুষের আশ্রয়,
এখনো অগণিত বাঙালির হৃদয়ে দাগ কেটে রেখেছে আপনার অনবদ্য অভিনয়।
----------------------------------------------------------------------------------------
ছবি ঃ ঠাকুরমাহমুদ

মন্তব্য ২৫ টি রেটিং +৯/-০

মন্তব্য (২৫) মন্তব্য লিখুন

১| ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১০:১৪

কল্পদ্রুম বলেছেন: খুবই পছন্দের অভিনেতা।লোক দেখানো না,সত্যিকারর্থেই।আপনার প্রোফাইলের ছবিটা দেখে প্রথম থেকেই ভাবছিলাম এইটার ব্যাপারে কোন মন্তব্যে জিজ্ঞেস করবো।অনেক বিদেশী সিনেমা কিংবা টিভি সিরিজে কোন অসাধারণ চরিত্র দেখলে আমি মনে মনে ভাবি হুমায়ুন ফরিদীকে এই চরিত্রে মানাতো।আমার মনে হয় তাঁর ট্যালেন্টকে গড়পড়তা সিনেমায় ব্যবহার করে আমরা ওয়েস্ট করেছি।আপনি ব্যক্তিগত ভাবে চিনতেন যেহেতু।এ ব্যাপারে ভালো জানবেন।

২| ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১০:১৬

বিজন রয় বলেছেন: বাংলাদেশের একমাত্র সহজও স্বাভাবিক অভিনেতা।
কোন কৃত্রিমতা নেই।

++++++

৩| ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১০:১৭

নেওয়াজ আলি বলেছেন: শ্রদ্ধা রইলো উনার প্রতি।

৪| ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১০:৩৮

বিজয় নিশান ৯০ বলেছেন: তিনি টাকার জন্য বেশিরভাগ সময় থার্ড ক্লাস সিনেমায় অভিনয় করেছেন

৫| ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১০:৫০

রাজীব নুর বলেছেন: দূর্দান্ত কবিতা।
চমৎকার ভালোবাসার প্রকাশ।

৬| ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১১:০৮

রাকু হাসান বলেছেন:

হুমায়ূন স্যার ছিলেন পানির মত অভিনেতা । যাকে আপনি যে পাত্রে রাখবেন সেই পাত্রেই মানাবে। আসলে তিনি সেই মঞ্চ থেকে নিজেকে ভাঙ্গছেন ,গড়ছেন । আমৃত্যু এটাই করে গেছেন। এটা কয়জন করতে পারে ? কিছু দিন আগে স্যারের চশমার নিলামের কথা শুনলাম । অবাক করার ব্যাপার নাট্য ও সিনেমা জগতের এমন কোন প্রাণীকে দেখলাম না তেমন । অবশেষে অন্য একজন ভক্ত নিয়ে গেল । অনেকে মুখে মুখে বলে তিতি হুমায়ূন ফরিদী স্যার কে লালন করেন ,আসলেই কি তাই ! অভিনয়ের নক্ষত্র পতন হচ্ছে কিন্তু নতুন নক্ষত্রের সন্ধান আশা জাগানীয়া না ।

৭| ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১১:১২

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনি কি বড় পর্দায় ছিলেন?

৮| ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১১:২৪

ওমেরা বলেছেন: বালাই ষাট মানে কি?

৯| ২৯ শে মে, ২০২০ রাত ২:৪২

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:


জনপ্রিয় অভিনেতা হুমায়ুন ফরিদির সাথে আমাদেরএকজন সহব্লগারের সংষ্টিল্টতা ছিল শুনে নীজেদরকেই গর্বিত মনে হচ্ছে ।
মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রে সমানতালে তিন দশকধরে বীরদর্পে পদার্পণ কারী বহুমাত্রিক অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদির
৬৮ তম জন্মদিনে রইল ফুলেল শভেচ্ছা ।

শুধু অভিনয় কেন তিনি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাও ছিলেন। যুদ্ধ শেষে পড়াশুনার জগতে ফিরেএসে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় হতে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান অধিকার করে অর্থনীতিতে স্নাতক সম্মান পরীক্ষা পাস করে প্রখর মেধার স্বাক্ষর রাখেন। এমন ফল নিয়ে নিশ্চিন্ত পেশা হিসেবে বেছে নিতে পারতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকতা। কিন্তু তিনি বেছে নিয়েছিলেন অভিনয়কে,আর
এখানেও তিনি সফল হয়েছেন দারুনভাবে । হুমায়ুন ফরীদির অভিনিত নাটক গুলির মধ্যে মধ্যে বেশ কিছু আমি দেখেছি যার মধ্যে রয়েছে ‘সাত আসমানের সিঁড়ি’, পাথর সময়’, ‘দুই ভাই’, ‘শীতের পাখি’, ‘সংশপ্তক’, ‘কোথাও কেউ নেই’, ‘নীল আকাশের সন্ধানে’, ‘দূরবীন দিয়ে দেখুন’, ‘মহুয়ার মন’, ‘সমুদ্রে গাঙচিল’, ‘কাছের মানুষ’, ‘মোহনা’, প্রভৃতি।

তার অভিনীত মঞ্চনাটক গুলির মধ্যে , ‘শকুন্তলা’, আমি দেখেছি,যা আমার মনে দারুনভাবে দাগ কেটেছিল । শকুন্তলা কাহিনী অবলম্বনে এই সামুতেই আমার একটি পোষ্টও রয়েছে। শহীদ বুদ্ধিজীবি শহিদুল্লাহ কায়সার রচিত উপন্যাস ‘সংশপ্তক’ অবলম্বনে ইমদাদুল হক মিলন প্রনীত নাট্যরূপ 'সংশপ্তক' ধারাবাহিকে হুমায়ুন ফরীদি অভিনীত চরিত্র কানকাটা রমজানের জনপ্রিয়তার কথা নতুন করে বলার কিছু নেই। মাসখানেক আগে বিভিন্ন সংবাদ ভাষ্যে দেখা যায় যে করোনাকালে ঘরবন্দি মানুষের বিনোদনের জন্য ৩০ বছরের পুরাতন জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক 'সংশপ্তক' পুনরায় প্রচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ টেলিভিশন।

নিয়মিত টিভি অভিনয়ের পাশাপাশি হুমায়ুন ফরীদি তেমন একটা লিখতেন না। তবে কিছু টেলিফিল্ম, ধারাবাহিক ও এক ঘণ্টার নাটক নির্মাণ করেছেন। দারুণ বুদ্ধিদীপ্ত এবং রোমান্টিক সেসাথে অতি সাদামাটা জীবনযাপরকারী এ মানুষটি ব্যক্তিগত জীবনে প্রথমে বেলি ফুলের মালা দিয়ে ফরিদপুরের মেয়ে মিনুকে বিয়ে করে সারা দেশে ব্যাপক আলোড়ন তোলেন। পরে তিনি অবশ্য ঘর বাঁধেন প্রখ্যাত অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফার সঙ্গে যদিও ২০০৮ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তবে ব্যক্তিজীবন ছাপিয়ে হুমায়ুন ফরীদি সবার প্রিয় অভিনেতা হিসেবে এখনও আবিষ্ট করে রেখেছেন অগুনতি দর্শক-সমালোচকদের। যার প্রমাণ মিলেছে চলমান করোনাকালেও। অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ‘অকশন ফর অ্যাকশন’ এর আয়োজনে নিলামে তোলা হুমায়ুন ফরীদির ব্যবহৃত বস ব্র্যান্ডের চশমাটির বিক্রি হয়েছে ৩ লাখ ২৫ হাজার ১২ টাকা! ২০১২ সালে ফাল্গুনের প্রথম দিনে পৃথিবীর সব আলো পেছনে ফেলে তিনি চলে গেছেন না ফেরার দেশে।তার প্রতি রইল গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলী ।

আপনার প্রতি রইল অনেক অনেক শুভেচ্ছা ।

১০| ২৯ শে মে, ২০২০ রাত ২:৫২

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
চাঁদগাজী বলেছেন: উনি কি বড় পর্দায় ছিলেন?
গাজীসাব কয় কি? উনি কোন দেশের মানুষ, মেরিকার নাকি বাংলাদেশী?
গাজীসাব এখানে দেখুন, পড়ুন, জানুন

ওমেরা বলেছেন: বালাই ষাট মানে কি?

বালাই শব্দের অর্থঃ ১. অমঙ্গল ২. উত্পাত ৩, উত্পাত, ৪. ঝামেলা। আর
বালাই ষাট অব্য. অশুভ উক্তি বা অমঙ্গল খণ্ডনসূচক উক্তি। এটা হিন্দুদের
থেকে আমাদের সমাজে প্রবেশ করেছে। বাংলা একাডেমী ব্যবহারিক
বাংলা অভিধানে ষাট শব্দের অধীনে লিখেছে, ষাট: উচ্চারিত কোন
অশুভ কাজের প্রতিবিধান বা প্রতিকারের উদ্দেশ্যে ষষ্ঠীদেবীর
নাম উচ্চারণ (বালাই ষাট ও কথা বলতে নেই)

সেলিম ভাই প্রখ্যাত মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদির ৬৮তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলেল শুভেচ্ছা

১১| ২৯ শে মে, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০১

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:



সেলিম আনোয়ার ভাই, আপনি হুমায়ুন ফরীদি ভাইকে পছন্দ করেন আমি জানি। বিচিত্র কারণে চলচিত্র ও টেলিভিশনের সাথে জড়িত নারী পুরুষকে আমি পছন্দ করি না। তারপরও যাদের আমি পছন্দ করি তারমধ্যে অন্যতম একজন অভিনেতা শ্রদ্ধেয় হুমায়ুন ফরীদি।

হুমায়ুন ফরীদি ভাইয়ের সাথে আমার পরিচয় হয় ১৯৯২ সনে সাপ্তাহিক যায়যায়দিন অফিসে। তখন টেলিভিশনে বাংলাদেশের অত্যন্ত গরম নাটক কোথাও্ কেউ নেই চলছে। কোথাও্ কেউ নেই নাটকে মামলা হেরে তুখোড় উকিল হুমায়ুন ফরীদি বাটা সুৃ কোম্পানির আব্দুল কাদেরকে বলেছিলেন “বদি ইচ্ছে করলে এই মামলা আমি ধুলোয় মিলিয়ে দিতে পারতাম, বদি তোমার জন্য শুধু পারিনি” সাক্ষী ম্যানিপুলেট হলে একটি মামলার কারণে বিবাদীর কতোবড় ক্ষতি হয় তা কর্মজীবনে দেখে দেখে মনে হয় আমার চোখ পাথর হয়ে গেছে।

টিভি নাটকের অত্যন্ত শক্তিমান অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদি রুপালী পর্দায় কেনো গিয়েছিলেন তা আজ আর বলতে চাই না। শুধু বলতে চাই হুমায়ুন ফরীদির বিপুল প্রতিভা রুপালী পর্দার পরিচালকগন শুধুমাত্র অপব্যবহার করছেন। হুমায়ুন ফরীদির জন্য রইলো অনেক অনেক ভালোবাসা আর ভালোবাসা জানাচ্ছি আমার প্রিয় কবিতার জাদুকর সেলিম আনোয়ার ভাইকেও।


১২| ২৯ শে মে, ২০২০ রাত ৮:০৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:

প্রিয় অভিনেতার হুমায়ুন ফরীদির জন্মদিনের শুভেচ্ছা সহ শুভেচ্ছা সেলিম আনোয়ার ভাইকে।
লেখাটি লাইক সহ প্রিয়তে।



১৩| ২৯ শে মে, ২০২০ রাত ১১:১০

ভ্রমরের ডানা বলেছেন: শুভ জন্মদিন প্রিয় অভিনেতা! তুমি শান্তিতে ঘুমাও ওপারে...

১৪| ৩০ শে মে, ২০২০ রাত ১০:৪৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: ওমেরা নূর মোহাম্মদ নূরু বিষয়টি পরিষ্কার করেছেন। আমি এতটুকু যোগ করতে চাই ফরীদির স্বাস্থ্য ভালো যাচ্ছিল না। ফরীদির শুভাকাঙ্ক্ষী অনুরাগী সংস্কৃতি পরিমণ্ডলের মানুষ ফরীদি রোগমুক্তি কামনায় অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে। এটি শুধু জন্মজয়ন্তী না হয়ে দারুন উপভোগ্য একটি অনুষ্ঠান হয়ে উঠে। আমি তখন ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার বা এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসেবে জনতা ব্যাংকে কর্মরত। আমার উপস্থিতি কেবল মাত্র ফরীদির একজন ভক্ত হিসেবে। সবার জন্য অনুষ্ঠান টি উন্মুক্ত থাকলেও ছায়ানটের মানুষ ধরছিল না । তাই অনেকে অনুষ্ঠান মিস করে থাকতে পারেন।

১৫| ৩০ শে মে, ২০২০ রাত ১০:৪৮

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: কল্পদ্রুম দারুন কমেন্ট। তার মেধার যথাযথ ব্যবহার করতে পারে নি বা করে নি এদেশের নির্মাতা গণ। আর ফরীদি ও দেশ ছাড়ার কথা কখনো ভাবেন নি।

১৬| ৩০ শে মে, ২০২০ রাত ১০:৫১

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: বিজন রয় অভিনয় ছিল উনার সহজাত গুণ। তার অভিনয় হয়ে উঠতো অন্য মাত্রার । প্রতিটি চরিত্র সাবলীল ভাবে ফুটিয়ে তুলতে তার জুড়ি মেলা ভার। কঠিন তম চরিত্র টি তিনি সহজে ফুটিয়ে তুলতেন।

১৭| ৩১ শে মে, ২০২০ সকাল ৮:২২

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: নেওয়াজ আলি ধন্যবাদ।

১৮| ৩১ শে মে, ২০২০ সকাল ৮:২৩

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: বিজয় নিশান ৯০ তিনি লোভী নন তার থেকে অর্থ সাহায্য পান নি এমন লোক তার চারপাশে খুব কমই আছে।

১৯| ৩১ শে মে, ২০২০ সকাল ৮:২৪

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: রাজীব নুর কমেন্ট এবং পাঠে ধন্যবাদ।

২০| ৩১ শে মে, ২০২০ সকাল ৮:২৬

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: থাকুন হাসান একজন ফরীদি শতবর্ষে একজন আসে। নাও আসতে পারে।

২১| ৩১ শে মে, ২০২০ সকাল ৮:২৭

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: ডঃ এম আলী আপনার কমেন্ট পোস্ট খানি অনেক সমৃদ্ধ করলো। অনেক ধন্যবাদ কমেন্ট এবং পাঠে।

২২| ৩১ শে মে, ২০২০ সকাল ৯:৫২

খায়রুল আহসান বলেছেন: হুমায়ুন ফরীদির সাথে আপনার ব্যক্তিগত আলাপ পরিচয়ের কথা ও স্মৃতিকথা শেয়ার করাতে তার সম্বন্ধে অনেক কিছু জানতে পারলাম। তাই আপনাকে ধন্যবাদ।
ওনার মত গুণী শিল্পী সহজলভ্য নয়।

০৭ ই জুন, ২০২০ সকাল ১০:৩২

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: খায়রুল আহসান কমেন্ট এবং পাঠে অনেক ধন্যবাদ। নিরন্তর শুভকামনা রইলো আপনার জন্য। মেধাবী নামের কুইজ অনুষ্ঠানে প্রখম খায়রুল ইসলাম পাখি সঙ্গে প্রথম সাক্ষাৎ এটি মূলত হুমায়ূন ফরীদির প্রযোজনা ।

২৩| ০১ লা জুন, ২০২০ দুপুর ১:১৬

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: ঠাকুরমাহমুদ অনেক ধন্যবাদ আপনাকে চমৎকার কমেন্টে।
ফরীদি থাকতেন হফম্যান রবার্ট ডি নিরু দের কাতারে। যত দিন যাবে ফরীদির অভাব প্রকটতরো হবে।

২৪| ০১ লা জুন, ২০২০ দুপুর ১:২০

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: খায়রুল আহসান কমেন্ট এবং পাঠে অনেক ধন্যবাদ। নিরন্তর শুভকামনা রইলো আপনার জন্য। মেধাবী নামের কুইজ অনুষ্ঠানে প্রখম খায়রুল ইসলাম পাখি সঙ্গে প্রথম সাক্ষাৎ এটি মূলত হুমায়ূন ফরীদির প্রযোজনা ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.