নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার পুরো নাম শাইয়্যান মোহাম্মদ ফাছিহ-উল ইসলাম। অন্যদের সেভাবেই দেখি, নিজেকে যেভাবে দেখতে চাই। যারা জীবনকে উপভোগ করতে চান, আমি তাঁদের একজন। সহজ-সরল চিন্তা-ভাবনা করার চেষ্টা করি। আর, খুব ভালো আইডিয়া দিতে পারি।

সত্যপথিক শাইয়্যান

আমার পোস্ট সংখ্যা এক সময়ে ৩০০টিতে গিয়ে ঠেকেছিলো। আগে অনেক বিষয় নিয়ে লিখলেও এখন আমার ভাবনার বিষয় শুধুই চীন। তবে, পোস্টগুলো বেশিরভাগই ভাবানুবাদ হবে।

সত্যপথিক শাইয়্যান › বিস্তারিত পোস্টঃ

পথ আর ব্রিজের উপর ঘুমানো মানব সন্তানগুলো এবং আমাদের ফরেন রিজার্ভ

৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ১:২৬

আজ সন্ধ্যায় বেশ ঝড়ো হাওয়া বয়ে গেলো। কয়েক দিন পর হয়তো অঝড় ধারায় বৃষ্টি ঝড়বে। ঢাকা'র রাস্তাঘাট পানিতে ভরে উঠবে। মনে পড়ে গেলো গত বছরের এমন একটি দিনের কথা। সেদিন বিকালের বৃষ্টিতে ভিজতে ভিজতে ফার্মগেটের ওভারব্রিজটায় উঠতেই এই প্রশ্নটি থমকে দিয়েছিলো কিছুক্ষণের জন্য। ওভারব্রিজে বৃষ্টির পানি জমে গেছে। তার মাঝে শত মানুষের ভিড়। ভিড় ঠেলে হাঁটতে হাঁটতেই মনে পড়ে গেলো সেই মানুষগুলোর কথা। রোজ সকালে অফিসে যাওয়ার পথে ওভারব্রিজগুলোর ওপর নিশ্চিন্তে শুয়ে থাকতে দেখি কিছু মানবসন্তানকে। মাঝে মধ্যে অবাক হই এই ভেবে যে, কীভাবে এই শক্ত পাটাতনের ওপর রাত কাটিয়ে দেয় লোকগুলো!

সেই মানুষগুলো আজ রাতে কোথায় শোবে? ব্রিজের ওপর পানি জমা পথটায় বাড়ি খেয়ে প্রশ্নটা নিজের কাছেই ফিরে এল আবার। উত্তর খুঁজে পেলাম না। ভাবনার সাগরে নিমজ্জিত মনটায় কে যেন হঠাৎ মনে করিয়ে দিল বাংলাদেশের ফরেন কারেন্সির রিজার্ভ ২৯ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় অগ্রগতি। কিন্তু কেন যেন সেই অগ্রগতির সঙ্গে কংক্রিটের মেঝেতে রাত কাটানো আদম সন্তানগুলোর জীবনকে মেলাতে পারলাম না। কোথায় যেন শুভঙ্করের ফাঁকি!

সেই ফাঁকিটি যত বড়ই হোক, রিজার্ভের টাকা থেকে মাত্র ১ বিলিয়ন ডলার খরচ করে কয়টি এক বেডরুমের ফ্ল্যাট বানানো যাবে— সে হিসাবটা করার মতো যোগ্যতাসম্পন্ন মানুষ সরকার বা প্রশাসনে নেই, তা বিশ্বাস করা উচিত হবে না। সেই বিশ্বাসের ধার না ধেরে একটা অংক কষে ফেলা যাক চটজলদি।

একটি এক বেডরুমের ফ্ল্যাট বানাতে যদি ২০ লাখ টাকা ব্যয় হয়, ১ বিলিয়ন ডলারে কয়টি ফ্ল্যাট করা যাবে? ৪০ হাজার! সেই ৪০ হাজার ফ্ল্যাটে বসবাসকারী ভূমিহীনদের মাসে ২০০ টাকা করে ভাড়া ধার্য করা হলে প্রতি মাসে কত টাকা আসবে? ৮০ লাখ টাকা। বছরে ৯ কোটি ৪০ লাখ টাকা। এ টাকায় পরের বছর আরো কয়টি ফ্ল্যাট করা যাবে? ৪৭টি। এর পরের বছর? প্রায় ৫০টি।

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ার পথে কতটুকু খরচ করতে হবে? ১ বিলিয়ন ডলার প্রধানমন্ত্রী, ফরেন রিজার্ভের মাত্র ১ বিলিয়ন ডলার।

=======
২য় প্রকাশ
=======

ছবিঃ একজন ফেসবুকারের কাছ থেকে (নামটা মনে নেই)

মন্তব্য ১৭ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (১৭) মন্তব্য লিখুন

১| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ২:০৮

আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ বলেছেন: আহারে আহারে

৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ৩:৫৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: ??

২| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ২:৩৯

লতিফপুর বহরদার বাড়ী বলেছেন: what a thinking bro i really proud of myself bcz someone think why he was bron and i also make my aim and goal and you are 1st person i was found many time as like think not only her/his self i will still find as like you thoughtr person.if you need any help i will give you god promises i will help you without profitable untill my breath stop.i am proud of myself and ALLHA bcz finally i saw 1 person whos think are different.=8801796144342

৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ৩:৫৪

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: ধন্যবাদ। ভালো থাকুন।

৩| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ৩:১৩

কাওসার চৌধুরী বলেছেন: সুন্দর লেখা।

৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ৩:৫৫

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: যেভাবে চিন্তাগুলো এসেছে, সেই মাধ্যমটাই এরকম-- সুন্দর।

শুভেচ্ছা থাকলো।

৪| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ৩:১৮

এলিয়ানা সিম্পসন বলেছেন: চাঁদগাজীর পোস্টে এক "সেলেব্রিটি" ব্লগার কমেন্ট দিয়েছে পথশিশুদের কথা চিন্তা না করতে!

৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ৩:৫৭

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: উনি হয়তো অন্য কোন কিছু বুঝাতে চেয়েছেন যা সবাই বুঝতে সক্ষম হোননি।

৫| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৪:২১

কালীদাস বলেছেন: ভাষানটেকে একটা প্রজেক্ট ছিল ভাসমান/বস্তিবাসীদের পুনর্বাসনের জন্য। যতদূর মনে পড়ে কিছু পরিবারকে করা হলেও, নোংরামি নেহায়াত কম হয়নি। ডিটেইলস মনে আছে কিছু?

৩১ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৪:২৯

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: যারা প্রজেক্ট-টা হাতে নিয়েছিলেন, তাঁরা থেমে গিয়েছিলেন কি না মনে পড়ছে না।

৬| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৫:০৪

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: যেইমাত্র উদ্যোগ নেয়া হবে সেই থেকে শুরু হবে ভাগাভাগির হিসাব। তারপর ছিন্নমূল মানুষের পরিবর্তে সেখানে ঠাঁই পাবে স্বচ্ছল কিছু পরিবার যারা ঘুষ দিয়ে সেখানে থাকবে। কেউ কেউ আবার নিজে না থেকে ভাড়া উঠাবে। ৩৫ টা চ্যানেলে ৩৫ বার রিপোর্ট হবে। কিন্তু কেউ হিন্দি চুলও করতে পারবে না। দুই পরিবার মুক্ত দেশ চাই...

৩১ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৫:১৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:
মাইনাস টু ফর্মুলা এ দেশে হবার নয়। আমারও পছন্দ নয়।

আমি আশাবাদী লোকদের পছন্দ করি। নিরাশাবাদীরা দেশ ও জাতিকে কিছু দিতে পারে না।

৭| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৫:২৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংলাদেশের মানুষের যেই পরিমাণ সম্পদ ও জীবনযাত্রার মান যেই স্তরে আছে, সবার জন্য থাকার ব্যবসা করা কঠিন কাজ নয়; তবে, কঠিন দক্ষতার বিষয়।

৮| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ সকাল ৮:৫৭

শাহ আজিজ বলেছেন: এপারে কঠিন ফুটপাতে বৃষ্টির জলে নিশ্চল শুয়ে থাকা আর ওপারে যাজকের নমস্কার বাকি পড়ার শাস্তি ভোগ এদের জীবনের অংশ। দু জীবনেই নরকবাস । ওদের মুক্তি নেই ।

মাত্র ২৯ বিলিয়নে এত আনচান? এত গেল চল্লিশ বছরে ২ ট্রিলিয়ন ৯০০ বিলিয়ন হওয়ার কথা ছিল ।

৯| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ দুপুর ১২:১৫

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: এমন দৃশ্য প্রতিদিন আমার চোখেও পড়ে, যেদিন এমন দিন দেখতে হবে না সেইরকম একটা দিনের প্রত্যাশায় রইলাম।

১০| ৩১ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ৮:০২

দিবা রুমি বলেছেন: কালীদাস বলেছেন: ভাষানটেকে একটা প্রজেক্ট ছিল ভাসমান/বস্তিবাসীদের পুনর্বাসনের জন্য। যতদূর মনে পড়ে কিছু পরিবারকে করা হলেও, নোংরামি নেহায়াত কম হয়নি।

হু

১১| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১২:৪৩

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
সরকারের পক্ষে প্রশাসনে এমন লোক নিশ্চয় আছেন দু’এক জন কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন।

যেখানে লাভের আশা নেই সেখানে প্রজেক্ট নেই।

সত্যি এরকম হলে দেশে গৃহহীন মানুষ তাকবেনা। ভাবতেই ভাল লাগে।

সুন্দর পোস্টে ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.