নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সনেট কবি রচিত সনেট সংখ্যা এখন ১০০৪ (৫ জানুয়ারী ’১৯ পর্যন্ত) যা সনেটের নতুন বিশ্ব রেকর্ড, পূর্ব রেকোর্ড ছিল ইটালিয়ান কবি জিয়েকমো দ্যা ল্যান্টিনির, তাঁর সনেট সংখ্যা ছিল ২৫০।

সনেট কবি

রেকর্ড ভেঙ্গে রেকর্ড গড়ার দারুণ সখ। কিনতু এমন সখ পূরণ করা দারুণ কঠিন। অবশেষে সে কঠিন কাজটাই করে ফেল্লাম। সর্বাধীক সনেট রচনার সাতশত বছরের পূরনো রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন রেকর্ড গড়লাম। এখন বিশ্বের সর্বাধীক সনেট রচয়িতা হাজার সনেটের কবি, ফরিদ আহমদ চৌধুরী।

সনেট কবি › বিস্তারিত পোস্টঃ

অরিত্রী অধিকারী ও আমাদের সমাজ

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৪৫



অরিত্রী অধিকারীর শিক্ষক শিক্ষায়
আত্মহননে রয়েছে সহনিয়তার
আবেদন-নিবেদন।দেখে মৃত্যু তার
বাড়ুক শিক্ষক জ্ঞান শিক্ষার্থী শাসনে।
আর কত কঠোরতা শিক্ষার বেলায়
মহোদয় প্রয়োজন ভাবুন এবার!
স্কুল ত্যাগের এ দন্ড পৈশাচিকতার
বুঝুন কতটা কষ্ট শিক্ষার্থীর মনে।

লঘুপাপে গুরুদন্ড অমানবিকতা
যে শিখাবে সে করলে সেরকম পাপ
সমাজে বাড়বে শুধু হীন জটিলতা।
বন্ধ হোক কাঠিন্যের মহাঅভিশাপ
অরিত্রীর এ অকাল বিদায়ের কষ্ট
বলেদেয় এ সমাজ কতখানি নষ্ট।



অতি

অবশেষে অতি পেকে ঝরেই গেলাম
সেজন্যই লোকে বলে অতি ভাল নয়
মাঝ পথে হাঁটা ভাল কম থাকে ভয়
না বুঝে এ ধ্রুব সত্য ক্ষতি হয়ে গেল।
অতি বড় বুদ্ধি থেকে কি আমি পেলাম
অতি ভেবে সময়ের করে অপচয়
সময়ের কাজ দেখি সময়ে না হয়
এভাবে আমার কত স্বপ্ন ভেঙ্গে গেল।

অতি আনে বড় ক্ষতি জীবন অসার
সেজন্য চলায় এনে মধ্যমাত্রা গতি
সহজেই লাভ হয় উন্নতি অপার।
করেছি এখন পন ছেড়ে দিয়ে অতি
খুলব গলার দড়ি না থেকে অধম
মধ্যমে জীবন খানা করব উত্তম।

মন্তব্য ১৮ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৫১

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: বিষয়গুলো খতিয়ে দেখার সময় এসেছে।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:০৫

সনেট কবি বলেছেন: এরা অনেক বেশী করে ফেলেছে।

২| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৫৩

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: অরিত্রীর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করি। অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা ।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:০৫

সনেট কবি বলেছেন: এ সব বদ লোকদের উচিৎ শিক্ষা দেওয়া প্রয়োজন।

৩| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৫৩

সমালোচক মন্তব্যকারী বলেছেন: ঘটনাটি অবশ্যই হৃদয়বিদারক। কিন্তু ঢালাওভাবে শিক্ষকগণকে দোষারোপ করা কতটুকু যৌক্তিক সে প্রশ্ন থেকেই যায়। ঘটনা পড়ে এটা অনুমিত, অরিত্রী পরীক্ষার হলে অসদুপায় অবলম্বন করেছিল। শিক্ষক এটা দেখলে তিরস্কার করবেন এটাই স্বাভাবিক। করেছেনও। অতিরিক্ত সচেতনতার জন্য তার পিতামাতাকেও ঢেকেছেন। দেশের শীর্ষস্থানীয় বিদ্যাপিঠ হিসেবে এটা না করাটাই অযৌক্তিক ছিলো, আপাতত আমার কাছে সেটাই মনে হচ্ছে। এতটুকু শৃঙ্খলা, এতটুকু শাসনের জন্য কেউ যদি আত্মহত্যা করে সে দায়ভার প্রতিষ্ঠান বা শিক্ষক নেবেন কেন???

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:০৪

সনেট কবি বলেছেন: এসব স্কুলে ভর্তি হওয়া কতটা কষ্টের সেটা কারো অজানা নয়। একটা মেয়ে হয়ত ভুলে হলে মোবাইল নিয়েছে। এর জন্য তাকে টিসি প্রদান কতখানি যোক্তিক? আর তার মা-বাবাকে ডেকে অপমান করা কতখানি গুরুতর? এসব অমানুষগেুলো শিক্ষক নামের কলংক। এমন এক স্কুলের ভর্তি পরীক্ষার রেজালেটর জন্য আমি রাতের দু’টা পর্যন্ত অপেক্ষা করে ভিড়ে চ্যাপ্টা হয়ে অবশেষে জেনেছি আমার মেয়ে টিকেছে। আর আমার সাথের প্রতিবেশির মাথাটাও ফেটেছে কিন্তু তার মেয়ে না টিকায় সেদিন তার কষ্ট দেখেছি। সে জন্যই বলি অরিত্রীর কাজটা ভুর ছাড়া কিছুই নয়। আর ভুলের মাসুল তাকে যারা এভাবে দিতে বাধ্য করেছে তাদেরকে আমি অমানুষ না বলে পারছি না। আমার মেয়ের সাথে এমন ঘটলে আমার ওদেরকে খুন করতে ইচ্ছে হতো। শাসনেরও সীমা থাকতে হয়। অরিত্রীর মোবাইলটা ঐ সময়ের জন্য নিয়ে গেলেই হতো। এমনটাই সব জায়গায় করা হয়। তাঁদের বুঝি আবার ভিন্ন নিয়ম। সব ব্যটার কঠিন শাস্তি হওয়া দরকার।

৪| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:১১

সাত সাগরের মাঝি ২ বলেছেন: মর্মান্তিক ঘটনা.....

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:৩০

সনেট কবি বলেছেন: বিষয়টা সরকারও গুরুত্বের সাথে নিয়েছে।

৫| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:১৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: তাকাতে পারছি না মেয়েতীর ছবির দিকে। চোখ ভিজে যাচ্ছে।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:৩১

সনেট কবি বলেছেন: মেয়েটাকে অল্পতেই চলে যেতে হলো।

৬| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:২৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


মেয়েটাকে পরিবার সঠিকভাবে গড়েনি; তারপর, তাকে খারাপ স্কুলে দিয়েছে, ভিকারুন্নেসাতে সবগুলো শিক্ষক ক্ষমতাশীল এলিট ডাকাতদের আত্মীয়স্বজন, কিংবা ঘুষের বিনিময়ে চাকুরী পেয়েছে।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:৩২

সনেট কবি বলেছেন: অহংকার ওদেরকে পেয়ে বসেছে।

৭| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:৫৪

হাবিব স্যার বলেছেন: এমন ঘটনা আমরা আশা করিনি............

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:৩৩

সনেট কবি বলেছেন: অতিরিক্ত কোন কিছুই ভাল নয়।

৮| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৫:২৭

কিরমানী লিটন বলেছেন: এমন করলে কেন অরিত্রি- এমনতো কথা ছিল না। আমার ঘরেও এক টুকরো অরিত্রি আছে। ভালো থেকো মা- ওপারে শান্তিতে।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:৩৪

সনেট কবি বলেছেন: হৃদয় বিধারক ঘটনা।

৯| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: চাচাজ্বী মেয়েটির জন্য খুব খারাপ লাগছে আমার।

০৫ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৪৮

সনেট কবি বলেছেন: বিষয়টা খুব কষ্টের।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.