নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

তাপে তপ্ত হই না হলে পড়ে থাকি মরুভূমির বালিকণার মত

ঢুকিচেপা

“স্বপ্ন সেটা নয় যেটা মানুষ ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দেখে; স্বপ্ন সেটাই যেটা পূরণের প্রত্যাশা মানুষকে ঘুমাতে দেয় না।” এ.পি.জে আব্দুল কালাম

ঢুকিচেপা › বিস্তারিত পোস্টঃ

বাজারের ফর্দ রাখুন গুগলে, কেনাকাটার অর্ডার দেখুন মোবাইলে (বিষয়ঃ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি)

২৪ শে নভেম্বর, ২০২২ রাত ১০:৩৮



বিশ্ব এগিয়ে চলেছে প্রযুক্তিতে আর সঙ্গে রয়েছি আমরা মানবজাতি। সময়ের সাথে সাথে আমাদের অনেক পুরাতন অভ্যেস বদলে যাচ্ছে, আর বেড়ে যাচ্ছে ব্যস্ততা। এ থেকে হয়তো পরিত্রানের উপায় নেই তবে মানিয়ে নেয়া সম্ভব।
আগে মানুষ বাজার করতে গেলে বাসা থেকে জেনে যেত অথবা লিস্ট করে নিত, কিন্তু এখন বাজার করার সময় মোবাইলে যোগাযোগ হয়, জানতে চাইলেন কি কি লাগবে, বাসা থেকে বলছে “চাল” আর আপনি শুনছেন “ডাল”, অথবা বলছে “বেল” আপনি শুনছেন “তেল”, মোবাইলে কথোপকথনে এধরনের সমস্যা প্রায়ই হয়। আর যদি হৈচৈপূর্ণ এলাকায় থাকেন তাহলে তো কথাই নেই। আবার বাসা থেকে লিস্ট করে দিলেও দেখা যায় সেটা হারিয়ে ফেলেছেন। অনেকে বলতে পারেন মেসেজ অপশন তো আছেই, আমিও বলছি আছে তবে আমি যে পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করতে চাচ্ছি সেটা বিস্তারিত দেখুন আশাকরি ভালো লাগবে।

শুরুতেই যেটা ক্লিয়ার করা প্রয়োজন তা হলো, বর্তমান সময়ে আমরা বেশির ভাগ মানুষই অ্যান্ড্রয়েড ফোন এবং ডাটা ইউজ করি, আজকের বিষয়টি মূলতঃ তাদের জন্যই।

সাধারণত বাজার যেমন হয়ঃ মুদিখানা, কাঁচা বাজার, মাছ/মাংস, মেডিসিন, ফল ইত্যাদি।
আমাদের কিছু বাজার হয় মাস ভিত্তিক এবং কিছু হয় দৈনন্দিন। মাসিক বাজারের মধ্যে দুই ধরনের আইটেম থাকে, (১) মুদিখানা এবং (২) মাছ/মাংস। এছাড়া বাদবাঁকী দৈনন্দিন কেনাকাটার মধ্যে পড়ে। আবার শীতকাল এবং গ্রীষ্মকাল অনুযায়ী কাঁচা বাজারের পন্যও চেঞ্জ হয়।
আমি এখানে প্রয়োজনীয় সব ধরনের আইটেম সেকশন ভিক্তিক ভাগ করে গুগল ফরম তৈরী করেছি যেটা আসলে বাজারের লিস্ট (লেখার শেষে লিঙ্ক দিলাম চেক করলে সম্পূর্ণ বুঝতে পারবেন)। এই ফরম/লিস্টের লিঙ্ক বাসার মোবাইলে থাকবে এবং এই লিঙ্ক ওপেন করলে নিচের ছবির মত পর্যায়ক্রমে আইটেম লিস্ট আসতে থাকবে।

এখানে আমি ৫টি সেকশনে আমাদের দৈনন্দিন বাজার বা কেনাকাটা ভাগ করে নিয়েছি, আপনারা চাইলে প্রয়োজন অনুযায়ী নিজেদের মতো বাড়িয়ে/কমিয়ে নিতে পারেন।

কি ধরনের পন্য লাগবে সে অনুযায়ী রেডিও বাটনে চেক করে Next এ ক্লিক করলে সেই সেকশনে সরাসরি যেতে পারবেন। রেডিও বাটনে চেক না করে Next এ ক্লিক করলে মুদি দোকান থেকে দেখানো শুরু হবে।


এখানে মুদি দোকানে যে আইটেম পাওয়া যায় তার একটা তালিকা আছে। যা যা প্রয়োজন তাতে টিক দিতে হবে।


এটা কাঁচা বাজারের তালিকা নিচের দিকে আরো আইটেম আছে। এখানে শাক এবং সালাদ আইটেমও আছে।


এটা মাছ ও মাংস।

এটা মেডিসিন সেকশন


মেডিসিনের ক্ষেত্রে দুইটা অপশন রেখেছি। প্রথমটাতে মেডিসিনের নাম লেখা যাবে। অনেক সময় নাম বোঝা না গেলে ছবি তুলে আপলোড করা যাবে দ্বিতীয়টাতে। এর পর ফলের একটা সেকশন আছে এবং যথারীতি প্রয়োজনীয় আইটেমে টিক দিয়ে সর্বশেষ সাবমিট বাটন প্রেস করতে হবে। এই টিক দেয়ার কাজটি হবে বাসার মোবাইল থেকে।

এটা হলো সেই বাজার লিস্ট, যিনি বাজার করবেন তার গুগল ড্রাইভে এক্সেল ফাইলে ক্লিক করলে উপরের ছবির মতো লিস্ট দেখা যাবে। এখন লিস্ট অনুযায়ী নিশ্চিন্তে কেনাকাটা করুন।

যে সুবিধার কারণে এই পদ্ধতি ভালো: এই লিস্ট একবার তৈরী হলে লাইফ টাইম চলবে। প্রয়োজনে লিস্টের মধ্যে আইটেম যেমন যোগ করতে পারবেন তেমনি বাদও দিতে পারবেন। এছাড়া কেনাকাটা করতে গিয়ে এক ধরনের দোকানে বারবার আসতে হবে না। মুদিখানায় গেলে লিস্ট অনুযায়ী সব কিনতে পারবেন। সারা মাস বা বছরের কেনাকাটা এক্সেল ফাইলে অটো সংরক্ষণ হবে তবে আপনি ইচ্ছা করলে ডিলিট করেও দিতে পারেন।

যে ভাবে ফরম/লিস্ট তৈরী করবেন:



বাজার অর্ডার লিঙ্ক


প্রচ্ছদ

মন্তব্য ১১ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (১১) মন্তব্য লিখুন

১| ২৫ শে নভেম্বর, ২০২২ সকাল ৯:১৬

শেরজা তপন বলেছেন: অনেকদিন বাদে ব্লগে লিখলেন। আশা করি ভাল আছেন?
আধুনিক জীবনের প্রয়োজনীয় অনুসঙ্গ নিয়ে লিখেছেন। ভাল

২৫ শে নভেম্বর, ২০২২ রাত ১১:১৬

ঢুকিচেপা বলেছেন: হ্যাঁ, তপন ভাই আমি ভাল আছি। আশাকরি আপনিও ভাল আছেন।
আসলে করোনাকালে সারাদিন রাত বাসাতেই ছিলাম তাই তখন নিয়মিত ছিলাম কিন্তু এখন সময়ের সুর কেটে গেছে। অফলাইনে মাঝে মাঝে পোস্ট পড়ি কিন্তু লগইন করা হয় না।
প্রথম মন্তব্যে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

২| ২৫ শে নভেম্বর, ২০২২ দুপুর ১:০১

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: অনেক দিন পরে একটা অতি দরকারি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক ফিচার পোস্ট দিয়েছেন। :) এইবারের ফিচার প্রতিযোগিতায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে ফিচার মনে হয় নাই। থাকলেও একটা বা দুইটা হতে পারে। তাই আপনার পুরস্কার পাওয়ার সম্ভবনা অনেকটাই উজ্জ্বল। বাজারের ফর্দ নিয়ে সমস্যা সকল যুগেই ছিল। এখনও আছে। এই কারণেই তো কবি যোগিন্দ্রনাথ সরকার নীচের এই মজার কবিতাটা লিখেছেন।

কাজের ছেলে
দাদখানি চাল, মুসুরির ডাল,চিনি-পাতা দৈ,
দু’টা পাকা বেল, সরিষার তেল, ডিমভরা কৈ।
পথে হেঁটে চলি, মনে মনে বলি, পাছে হয় ভুল;
ভুল যদি হয়, মা তবে নিশ্চয়, ছিঁড়ে দেবে চুল।
দাদখানি চাল, মুসুরির ডাল, চিনি-পাতা দৈ,
দু’টা পাকা বেল, সরিষার তেল, ডিমভরা কৈ।

বাহবা বাহবা – ভোলা ভুতো হাবা খেলিছে তো বেশ!
দেখিব খেলাতে, কে হারে কে জেতে, কেনা হলে শেষ।
দাদখানি চাল, মুসুরির ডাল, চিনি-পাতা দৈ,
ডিম-ভরা বেল, দু’টা পাকা তেল, সরিষার কৈ।

ওই তো ওখানে ঘুরি ধরে টানে, ঘোষদের ননী;
আমি যদি পাই, তা হলে উড়াই আকাশে এখনি!
দাদখানি তেল, ডিম-ভরা বেল, দুটা পাকা দৈ,
সরিষার চাল, চিনি-পাতা ডাল, মুসুরির কৈ!
এসেছি দোকানে-কিনি এই খানে, যত কিছু পাই;
মা যাহা বলেছে, ঠিক মনে আছে, তাতে ভুল নাই!
দাদখানি বেল, মুসুরির তেল, সরিষার কৈ,
চিনি-পাতা চাল, দুটা পাকা ডাল, ডিম ভরা দৈ।

২৫ শে নভেম্বর, ২০২২ রাত ১১:১৬

ঢুকিচেপা বলেছেন: গতবারও বলেছিলেন পুরষ্কার পাব কিন্তু পাইনি, তারপরও আপনার মুখে ফুল চন্দন পড়ুক। বাজারের ফর্দ সমস্যা আমার অনেক দিনের তাই একটা বিকল্প ব্যবস্থার আশ্রয় নেয়া।
কবিতাটা সেই ছোটবেলায় পড়েছিলাম ভুলতে ভুলতে ১ লাইন মনে আছে এপর্যন্ত, আপনি শেয়ার করার কারণে পুরোটা সংরক্ষণে রইল।
আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

৩| ২৫ শে নভেম্বর, ২০২২ বিকাল ৩:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: বাজার করতে করতে অভ্যাস হয়ে গেছে। সব মুখস্ত। আমাই জানি কি কি প্রয়োজন। এখন আর লিস্ট লাগে না।

২৫ শে নভেম্বর, ২০২২ রাত ১১:১৬

ঢুকিচেপা বলেছেন: আপনার যদি লিস্ট লাগতো সেটাই বেমানান হতো। হিমুদের লিস্ট লাগেনা এটাই প্রমাণ।
অনেক ধন্যবাদ রাজীব ভাই।

৪| ২৫ শে নভেম্বর, ২০২২ রাত ১১:১৯

অপ্‌সরা বলেছেন: ওহ আজকাল ব্লগ ছেড়ে বাজার সদাই করছো ভাইয়া???

তাই তো বলি আমাদের ঢুকি ভাইয়ু কই কই কই!!!

২৬ শে নভেম্বর, ২০২২ দুপুর ১:২৫

ঢুকিচেপা বলেছেন: কেন আপনি জানেন না ?
এই তো সেদিন বাজার করতে গিয়ে আপনার খোকা ভাইয়ের সাথে দেখা। দেখি শুকনা মুখে এদিক সেদিক ঘুরে বেড়াচ্ছে, দেখে মনে হচ্ছে কতদিন না খেয়ে আছে। আমি ডেকে তাকে চা-সিঙ্গারা খাওয়ালাম। বললো বাসায় গিয়ে আমার কথা আপনাকে বলবে।

৫| ২৫ শে নভেম্বর, ২০২২ রাত ১১:৩০

মিরোরডডল বলেছেন:




কতো যুগ পর ঢুকি !!!
ভেবেছিলাম ঢুকি ঢেকির নীচে চাপা পরে গেছে।


২৬ শে নভেম্বর, ২০২২ দুপুর ১:২৫

ঢুকিচেপা বলেছেন: এক বেহেনা আসার পর আরেক বেহেনা হাজির। আপনাদের দেখে মনে হচ্ছে বাসা থেকে একসাথে সেজেগুজে সামুতে এসেছেন।

৬| ২৭ শে নভেম্বর, ২০২২ রাত ৯:১৩

অপ্‌সরা বলেছেন: ওহ তাই নাকি?

আমরা তো তাকে খুঁজে পাচ্ছিনা


তাইলে সে ঢাকা নেই তোমাদের দেশে তাই বলো।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.