নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

মনটা যদি তুষারের মতো...

আখেনাটেন

আমি আমাকে চিনব বলে বিনিদ্র রজনী কাটিয়েছি একা একা, পাই নি একটুও কূল-কিনারা কিংবা তার কেশমাত্র দেখা। এভাবেই না চিনতে চিনতেই কি মহাকালের পথে আঁচড় কাটবে শেষ রেখা?

আখেনাটেন › বিস্তারিত পোস্টঃ

শিক্ষামূলক পোস্ট: \'edX’, ‘Coursera’, ‘Udacity’... ফ্রিতে কিংবা সামান্য টাকা খরচেই হার্ভার্ড, স্ট্যানফোর্ড, জন হপকিন্সের... সার্টিফিকেট!!!!!!!

০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:৪৬



অনলাইন শিক্ষা (MOOC) আমাদের মতো গরীব দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য কিছুটা অাশির্বাদস্বরূপ। অার্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, মেশিন লার্নিং, বায়োইনফরমেটিক্স, কোয়ান্টাম কিংবা নিউক্লিয়ার ফিজিক্স, সিস্টেম বায়োলজি, ক্রিপটোকারেন্সি, ফাইন্যান্সিয়াল ডেটা অ্যানালাইসিস, প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট এরকম হাজারো খটোমটো বিষয়গুলো পড়ানোর মতো যথেষ্ট সাউন্ড শিক্ষকের সংখ্যা আমাদের দেশে নিতান্তই কম। তাই বলে এই জটিল যুগোপযুগী বিষয়গুলো কি আমরা শিখব না? এর থেকে মুক্তির উপায় হিসেবেই এসেছে উপরের উল্লিখিত ওয়েবসাইটগুলো। জটিল বিষয়গুলো বিশ্ববিখ্যাত শিক্ষকেরা সহজপাচ্য করে তুলে ধরেছেন বিশ্বব্যাপী শিক্ষার্থীদের সামনে। আমাদের শুধু হাঁ করার এনার্জিটা দরকার।

ধরুন, আপনি একটি চাকরীতে আবেদন করলেন আর বিশেষায়িত একটি কোর্সের সার্টিফিকেট হিসেবে হার্ভার্ডের বা কর্নেলের একটি শর্ট কোর্সের সার্টিফিকেট জমা দিলেন। নিশ্চয় চাকরিদাতা আপনার সম্পর্কে উচ্চ ধারণা পোষণ করবে। আর এই ১০০% অরিজিনাল সার্টিফিকেট সংগ্রহটা যদি আপনি ঘরে বসেই পড়াশুনা করে করতে পারেন, তাহলে বুঝুন কি সুবিধাই না আমাদের হাতের মুঠোই।

আবার, আপনার বহুদিনের খায়েস লেখালেখিতে হাত পাকাবেন। এবড়োথেবড়োভাবে এখানে সেখানে প্রতিভার বিচ্ছুরণ আপনি দেখিয়েছেন। কিন্তু নিজেকে আরো একটু ঝালাই করতে পারলে মনে তৃপ্তি পেতেন। বসে আছেন কেন? ক্রিয়েটিভ রাইটিং এর যেকোনো একটি কোর্স করে নিজেকে শানিয়ে নিন যুগের সাথে। চাইলে সাথে থলেতে গুঁজে নিতে পারেন সার্টিফিকেটও।

ইউরোপীয়ান, ভারতীয়, তুর্কি, কোরিয়ানরা এই সুযোগগুলো ব্যাপকভাবে কাজে লাগাচ্ছে। কিন্তু আমরা জানার অভাবে অথবা অলসতার জন্য কিংবা উচ্চাকাঙ্খার অভাবে এই বিষয়গুলোকে খুব একটা পাত্তা দেই না। আপসোস।

উনাদের পরিচয়

ইডেক্স, কোর্সেরা, খান একাডেমী ইত্যাদি হচ্ছে অনলাইনভিত্তিক লার্নিং ওয়েবসাইট। এখানে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যে কেউ (ব্যতিক্রমঃ উত্তর কোরিয়া ও ইরান) অনলাইনে পড়াশুনার মাধ্যমে তাদের কাঙ্ক্ষিত জ্ঞান অর্জন করতে পারে এবং ক্ষেত্রবিশেষে ফ্রিতে বা অতি অল্প পয়সা খরচেই সার্টিফিকেটটিও বাগাতে পারে।



উদাহরণস্বরূপ, আপনি ইংরেজি শিখতে চান। অথবা আইইএলটিএস পরীক্ষা দিতে চান; কিন্তু আপনার হাতে অফুরন্ত সময় নেই বা টাকা নেই বা আপনার অবস্থানগত কারণে পারছেন না যে কোন কোচিং সেন্টারে গিয়ে নিজের ইংরেজি দক্ষতা বাড়িয়ে নিতে। তাহলে ইডেক্সে এই The University of Queensland'র কোর্সটি আপনার জন্য রাজশাহীর ল্যাংড়া আম। যেমনই সুস্বাদু তেমনই রূপরস। ৮ সপ্তাহের এই কোর্স ফ্রিতে ভক্ষণ করে নিজের কাঙ্খিত ব্যান্ড স্কোর তুলুন। কেন কোচিংওয়ালাদের শুধু শুধু টাকা দিবেন? টোফেল নিয়ে TOEFL® Test Preparation: The Insider’s Guide এই ইডেক্স কোর্সটিতে বিস্তারিত রয়েছে কীভাবে স্কোর বাড়ানো যায়। এছাড়াও চাইনিজ, জাপানিজ, ফ্রেঞ্চ, উগান্ডান, জুলু-ভুলু যে ভাষায় চান শিখতে পারেন এই সব সাইটে ফ্রিতে।

আবার ধরুন, আপনি বসের দাবড়ানির উপর মার্কেটিং জব করেন। বাঁজখাই বস আপনাকে সাপ্তাহিক ছুটি দিতে নারাজ। কিন্তু আপনার ইচ্ছে আছে নিজের প্রফেশনাল ডেভালপমেন্টের জন্য কোন জায়গা থেকে শর্ট কোর্স করে ক্যারিয়ারকে এগিয়ে নেওয়া। এই ওয়েবসাইটগুলো আপনার মতো পাবলিককেই খুঁজছে। ঝটপট একটি কম্পিউটার কিনে ফেলুন (এখন সবারই থাকে)। স্মার্টফোনেও কাজ চালানো যায়। তবে ডেস্কটপ বা ল্যাপটপ হলে ভালো। ব্রডব্যান্ড নেওয়ার সুবিধা থাকলে নিয়ে ফেলুন। তা না হলে কানিং গ্রামীণফোন বা বাংলালিংক বা অন্যদের একটি ৭জি সংযোগ নিয়ে ফেলুন। তারপরে সময় ফিক্স করে পড়াশুনাতে লেগে পড়ুন। শিখুন। পরীক্ষা দিন। সার্টিফিকেট বগলদাবা করুন।

দুনিয়া বিখ্যাত UniPenn এর Wharton থেকে Digital Marketing এর উপর এই প্যাকেজ কোর্সটি করতে পারেন।
Marketing in a Digital World
Customer-Centric-Innovation
Marketing Analytics- বিশ্ববিখ্যাত ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়, বার্কেলের এই চারটি প্যাকেজের ,প্রতিটি চার সপ্তাহ করে, কোর্সটি ভালোভাবে শেষ করতে পারলে অস্ট্রেলিয়ার Curtin Universityতে ক্রেডিট ওয়েভারের সুবিধা পাওয়া যাবে।
Wharton এর এই কোর্সটিও Selling Ideas: How to Influence Others, and Get Your Message to Catch On কাজে লাগতে পারে।
অথবা কোর্সেরাতে ইউনিভার্সিটি অব ইলিনয়স, আরবানা-শ্যাম্পেইন ডিজিটাল মার্কেটিং এর এই কোর্সটিও দেখতে পারেন।



আপনি বায়োসায়েন্স বা মেডিকেলের ছাত্র। কিন্তু জেনেটিক্সের মতো কঠিন বিষয়গুলো মাথার পাশ দিয়ে আইলার মতো সাঁই করে কথা না বইলাই পার হয়ে যায়। আপনি কীইইই ভাগ্যবান? আপনার জন্যই স্পেশালভাবে এই কোর্সগুলো তৈরি করা হয়েছে।

Rice ইউনিভার্সটির DNA নিয়ে বিস্তারিত এটি কোর্সটি ইঞ্জিনিয়ারিং, জিনের ম্যানুপুলেশন, রি-কম্বিন্যান্ট ডিএনএ ইত্যাদি নিয়ে বিশদ ধারণা দিবে।

হার্ভার্ডের সেল বায়োলজি: মাইটোকন্ড্রিয়ার চার সপ্তাহের এই কোর্সটি থেকে জানা যাবে সেলে কীভাবে মাইটোকন্ড্রিয়া ভূমিকা পালন করছে? ATP প্রডাকশন কেন গুরুত্বপূর্ণ ইত্যাদি নিয়ে ডিটেইলস বায়োলজির স্টুডেন্টের জন্য অাশির্বাদ। কারণ অামাদের দেশে টেকনিক্যালি সাউন্ড শিক্ষক পাওয়া দুষ্কর। ফলে জ্ঞান অাহরণের জন্য এর চেয়ে মক্ষম উপায় আর কি হতে পারে?

কোর্সেরাতে বায়োলজির নতুন ট্রেন্ড Bioinformatics
নিয়ে ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, সান ডিয়েগোর এই কোর্সটিও আমাদের অশেষ উপকারে আসার কথা।
এছাড়াও নিচের কোর্সগুলি দেখতে পারেন।
System Biology And Biotechnology
Understanding Clinical Research: Behind the Statistics
Animal Breeding and Genetics: Understand the genetic and statistic principles that enable responsible animal breeding.
Sustainable Food Security: Crop Production Learn the basics of crop production and find out how to feed the future world population without depleting our planet’s resources!
Viruses & How to Beat Them: Cells, Immunity, Vaccines
Nutrition and Health: Micronutrients and Malnutrition
Nutrition and Health: Food Risks: Learn about bacteria, pesticides and health hazards present in food.
Ethics in Life Sciences and Healthcare: Exploring Bioethics through Manga
Patient Safety: Become a Leader in Patient Safety.
Johns Hopkins University---- Introduction to the Biology of Cancer এরকম শত শত টপিকের উপর মেডিসিন বা বায়োলজি রিলেটেড কোর্স রয়েছে খুঁজে নিন যা দরকার।

এছাড়াও ডেটা অ্যানালাইসিস অ্যান্ড স্ট্যাটিস্টিকস, ফাইন্যান্স, ইলেক্ট্রনিক্স, ফুড ও নিউট্রিশন, পরিবেশবিদ্যা, ফিলোসফি ও এথিক্স, স্যোসাল সায়েন্স(Anthropology | Behavioral Psychology | Business Law | Child Development | Cognitive Science | Contracts | Counterterrorism | Foreign Policy| Gender Studies | Happiness | Human Psychology | Immigration | Public Policy ), মলিকুলার মেডিসিন, পপুলেশন জেনেটিক্স, অার্কিটেকচার ইত্যাদি শত শত বিষয়ের উপর অতি উৎকৃষ্টমানের হাজারো কোর্স রয়েছে। শুধু শেখার অাগ্রহ থাকলেই হল। জানার সীমাহীন প্রচেষ্ঠায় নিজেকে অন্যদের থেকে অালাদা করে দাঁড় করাবে।

আবার ধরুন, আপনি প্রোগামিং বা নতুন কোনো বিষয় যেমন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা মেশিন লার্নিং বা ডেটা সায়েন্স সম্পর্কে শিখতে চান। এটি পড়া শেষে বাথরুম সেরেই অনলাইনে চলে আসুন। স্রেফ ইউডাসিটিতে ঢু দিন। আর নিজের পছন্দ অনুয়ায়ী কোর্স করে গুগল বা মাইক্রোসফট অথরাইজড সার্টিফিকেট থলেতে ভরুন। শিখুন। নিজেকেই নিজে চমকে দিন। আমরা বাঙালিরা এই কোর্সগুলো করাতে অনেক পিছিয়ে আছি অন্যদের তুলনায়।
Exploratory Data Analysis---Johns Hopkins University (Coursera)
Machine Learning Specialization: Build Intelligent Applications. -University of Washington
Practical Machine Learning ---Johns Hopkins
Designing Data Platform Solutions:
এছাড়া কম্পিউটার সায়েন্স বিষয়ে জানতে হার্ভার্ড ও ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত ইউটিউবের CS50 চ্যানেলটি গুরুর ভূমিকা রাখতে পারে।


আবার আপনি যদি ইউটার্ন নিয়ে ওয়েব ডেভলপমেন্ট ও অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস সম্পর্কে শিখতে চান ঘরে বসেই। তাহলে এই ওয়েবসাইটগুলোতে ঢুঁ দিতে পারেন। ঠকবেন না নিশ্চিত।

Codecademy তে ফ্রিতে শিখে নিতে পারেন বেসিক কমান্ড লাইন, পাইথন, জাভা, জাভাস্ক্রিপ্ট ও এর ফ্রেমওয়ার্ক রিএক্ট, ব্যাকএন্ড ডেভলপমেন্টের জন্য SQLite, নোড framework Express সহ অন্যান্য কোর্সগুলি। আর মাসিক কিছু খরচে প্রজেক্টগুলোও চর্চার মাধ্যমে করতে পারবেন।

freecodecamp, w3school ইত্যাদি সাইটগুলো ডাকছে আমাদের মতো পাবলিকদের। ওয়েব ডেভালপারদের জন্য অবশ্যই প্রবেশ্য ওয়েবসাইট।

এছাড়া The Odin Project কে গুরু ধরে শিখে নিতে পারেন ওয়েব ডেভলপমেন্ট। দুর্দান্ত সাইট। উনারা আপনাকে গাইড করবে কোথায় কোথায় ফ্রিতে ভালো কোর্স মেটেরিয়াল আছে। তা পড়ে-শিখে প্রজেক্ট করে গিটহাবে জমা দিতে। নিজেদেরও ফোরাম রয়েছে। অন্যতম জনপ্রিয় ফ্রি ওয়েভ ডেভলপমেন্ট সাইট। এখানে ব্যাকএন্ড হিসেবে পাচ্ছেন Ruby on Rail.

পাশাপাশি Coursera, edx, Udemy (দশ ডলার দিয়ে ওয়ার্ল্ড ক্লাস টিউটরিয়াল), Udacity, Treehouse ইত্যাদি সাইটগুলো তো রয়েছেই। ইউটিউব চ্যানেল Traversy Media চমৎকারভাবে ওয়েব ডেভলপমেন্টের খুঁটিনাটি বর্ণনা করে চলেছে। ইনস্ট্রাকটর Udemy'র বেশ কিছু মারাত্মক জনপ্রিয় ভিডিও টিউটোরিয়ালের স্রষ্টা।


Statistics, Public Health and Social Science Research এর জন্য গুপ্ত কুঠুরীর সন্ধানে:

বিশ্ববিখ্যাত Duke University'তে Statistics with R Specialization। একটি বস কোর্স। ভারতীয়দের খুবই প্রিয়।

বিশ্ববিখ্যাত Johns Hopkins University'র Statistical Reasoning for Public Health 1: Estimation, Inference, & Interpretation ৮ সপ্তাহের দুর্দান্ত এই কোর্সটি ফ্রিতে করে নিতে পারেন যা এই সপ্তাহেই শুরু হচ্ছে। এছাড়া এই ভার্সিটির Epidemiology in Public Health Practice (২৫ জুলাই শুরু), Systems Thinking In Public Health (শুরু হয়েছে ২৫ জুন) দেখতে পারেন।

অথবা Stanford University'র Stanford Introduction to Food and Health ০২ জুলাই থেকে শুরু কোর্সটি করতে পারেন।

এছাড়াও edX এ Harvard University'র Improving Global Health: Focusing on Quality and Safety ভারতীয় ও চীনাদের হুমড়ি খেয়ে পড়া এই কোর্সটিও করে নিতে পারেন।


ক্রিয়েটিভ রাইটিং এর উপর এই কোর্সেরার এই কোর্স দুটি ( Creative Writing: The Craft of PlotIgnite Your Everyday Creativity করে শানিয়ে নিতে পারেন হবু লেখকেরা। কীভাবে গল্পের প্লট তৈরি করতে হয়, ব্রেইনস্টর্ম করতে হয় ইত্যাদি নিয়ে বিস্তারিত। ইডেক্সের ব্রিটিশ কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটির এই দুটি কোর্স (How to Write a Novel: Structure & OutlineHow to Write a Novel: Writing the Draft ) উপন্যাস লিখতে সাহায্য করবে।

এরা কারা?

Coursera: দুইজন স্ট্যানফোর্ডের প্রফেসর ২০১২ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত করেন। ৩৩ মিলিয়ন শিক্ষার্থী, ১৫০ শের বেশি পার্টনার বিশ্ববিদ্যালয়, ২৭০০ প্লাস কোর্স রয়েছে এখানে। স্পেশালাইজেশন নামের কোর্সগুলি চারটি-পাঁচটির বান্ডল কোনো বিষয়ের উপর। এধরণের ২৫০'শর বেশি কোর্স রয়েছে। এছাড়াও ৪টি মাস্টার্স কোর্স বিদ্যামান। একাউন্ট খোলার পর আইডি দিয়ে ভ্যারিফাইড করে নিতে হবে। ভ্যারিফিকেশনের জন্য প্রায় ১৫ দিন লাগে। এরপর কোনো কোর্স করতে চাইলে এনরোল করতে হবে। ভ্যারিফায়েড সার্টিফিকেট পেতে চাইলে সামান্য কিছু টাকা খরচেই তা সম্ভব। শুধু শিখতে চাইলে অডিট কোর্স হিসেবে শেখা যায়। চাইলে পরেও ভ্যারিফায়েড করে নেওয়া যাবে।

এছাড়া ফাইন্যান্সিয়াল এইডের আওতায় বিনামূল্যেও কোর্স করা যায়। সেক্ষেত্রে কোর্স এনরোল করে আবেদন করতে হবে। সাধারণত দুই সপ্তাহের মধ্যে ওয়েভারের ঘোষণা পাওয়া যায়। ২০১২-১৩'র দিকে আমি যখন প্রথম কোর্সেরাতে একাডেমিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কোর্সগুলো করি তখন এই বিষয়গুলো এতটা জটিল ছিল না। এখন যদিও কিছুটা কমার্শিয়াল হয়ে গেছে, তথাপিও নতুন বিষয় দুর্দান্ত কিছু শিক্ষকের কাছ থেকে শিখে নেওয়া হবে অসাধারণ একটি অভিজ্ঞতা।



Udacity:এটি বিশেষ করে প্রফেশনালদের জন্য। যারা Nanodegree প্রোগ্রাম নামে ইন্ডাস্ট্রিভিত্তিক কোর্স করাচ্ছে। তাদের বেশি পরিচিতি ওয়েব ডেভালপমেন্ট, প্রোগ্রামিং ও ডেটা সাইন্স নিয়ে। Nanodegree প্রোগ্রামগুলো সাধারণত ৫-৭ টি কোর্সের প্যাকেজ। সামান্য খরচেই টপক্লাস মেটেরিয়াল। শেষ করলে ভেরিফাইড সার্টিফিকেট ও জব গ্যারান্টি (ন্যানোডিগ্রি প্লাস কোর্সের ক্ষেত্রে)। তারা কিছুদিন আগে অনলাইনে জর্জিয়াটেক ইউনিভার্সিটির সাথে পার্টনারশিপে মাস্টার্স ইন কম্পিউটার সাইন্স চালু করেছে।

edX: হার্ভার্ড ও এমআইটি প্রজেক্ট হচ্ছে এই edx. একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে এটি ইতোমধ্যে রীতিমতো বিপ্লব ঘটে ফেলেছে। এদের MOOC(Massive open online course) গুলো করার জন্য বিশ্বের নানা দেশের আগ্রহীরা হুমড়ি খেয়ে পড়ছে। এদের প্রোগামগুলো বিশ্ববিদ্যালয় ক্রেডিট ও মাইক্রোমাস্টার্স প্রোগ্রামে সাজানো। তাদের Xseries নামে স্পেশালাইজড কোর্সও রয়েছে। এগুলো ভিডিও, ডিডিও ট্রান্সক্রিপ্ট, ডিস্কাশন ফোরাম, পিয়ার-টু-পিয়ার লার্নিং ও ইন-পারসন মিটআপের মাধ্যমে পরিচালিত। অ্যাসাইনমেন্ট, কুইজ, ফোরাম ডিশকাশন ইত্যাদির মাধ্যমে কোর্স এগিয়ে চলে। ফলে একটা ভার্চুয়াল ক্লাসরূমের স্বাদ পাওয়া যায়। এখানে শেখার জন্য ফ্রিতে কোর্স করা যায়। আর সার্টিফিকেট পেতে চাইলে বেশির ভাগ ক্ষে্ত্রেই ৯৯ ডলার খরচ পড়ে।

Udemy.com: এখানে ৬৫,০০০ হাজারের বেশি ভিডিও টিউটোরিয়াল রয়েছে নানা বিষয়ের উপর। সাধারনত ছাড়ে ১০-১২ ডলারের মধ্যেই লাইফটাইম একসেস পাওয়া যায়। চাইলে ডাউললোড করে অফলাইনেও শেখা যেতে পারে। বিশ্ববিখ্যাত সব ইনস্ট্রাকটররা এখানে কোর্স পরিচালনা করেন। শেখার জন্য বিশ্বে অন্যতম জনপ্রিয় এই ওয়েবসাইট।

Khan Academy: যুক্তরাষ্ট্রের এই বিশ্ববিখ্যাত প্রতিষ্ঠানটির সাথে বাংলাদেশের নাম বিশেষভাবে জড়িয়ে রয়েছে। কারণ এর প্রতিষ্ঠাতা আমাদের বাংলাদেশের একজন বাবার সন্তান হার্ভার্ড ও এমআইটি গ্রাজুয়েট সালমান খান। ভার্চুয়াল এডুকেশনে রীতিমত বিশ্বে বিপ্লব ঘটে ফেলেছেন। এখানে ফ্রিতে বিশেষ করে হাইস্কুল লেভেলের বিষয়গুলোতে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। বাচ্চাদের স্কুল লেভেলের ম্যাথ, ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি ইত্যাদি বিষয়গুলো শেখার জন্য এর চেয়ে ভালো ওয়েবসাইট পাওয়া মুশকিল। ভিডিওগুলো ইউটিউবেও দেখা যায়। তবে খান একাডমীর মূল ওয়েবসাইটেই শেখা উচিত, কারণ সেখানে কুইজসহ ডিশকাশন ও আরো কিছু সবিধা বিদ্যমান। বাংলা ভাষাতেও কিছু সাবটাইটেল রয়েছে। বাংলাদেশের সরকারের উচিত ছিল নিজ উদ্যোগে সব ভিডিওতে বাংলা সাবটাইটেল যোগ করতে তাদের সাহায্য করা এবং সম্ভব হলে বাংলাতেও ভিডিও প্রকাশ করা।

PMASPIRE.COM: বিশ্ববিখ্যাত (2nd best) সিঙ্গাপুরভিত্তিক এই প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট সাইটি বাংলাদেশী টেকি কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত। বাংলাদেশের অদক্ষ আমলাদের জন্য এই সাইটটি হতে পারে সোনার ডিম পাড়া হাঁস। কারণ এই জটিল প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট নলেজের অভাবে দেশের ADP (Annual Development Plan)'র ৫০ পারসেন্ট বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয় না। অথচ অদক্ষদের হাতুড়ির বাড়ি দেওয়ার জন্য দেশেই এমন একটি বিশ্ব খ্যাত সাইট রয়েছে। গোটা বিশ্বের প্রোফেশনাল লোকজন এখান থেকে কোর্স করছে। জয়তু মামুন ভাই।


অনলাইন কোর্সগুলোর বিশ্ব পরিস্থিতি

আমরা এগুলো সম্পর্কে বেশি কিছু না জানলেও উন্নত বিশ্ব বা ইমার্জিং ইকোনমির দেশগুলো কিন্তু এইগুলো দুহাতে লুফে নিচ্ছে। কারণ বিশ্বের নয়া চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করতে গেলে উন্নততর প্রশিক্ষণের কোনো বিকল্প নেই। ভারত-চীন-তুরস্ক-মালয়েশিয়া-দক্ষিণ কোরিয়া-চিলি ইত্যাদি দেশগুলোর আবাল-বৃদ্ধ-বনিতারা ঝাঁপিয়ে পড়েছে অনলাইনে MOOC করতে। আমরা লাইনের শেষ মাথায় বসে মাথা চুলকাচ্ছি। ভাবছি যাব কি যাব না? দৌড়া ব্যাটা, সময় এখনও শেষ হয় নি? X(( :P :-P (পারডন)


কেন শিখতে আমরা উৎসাহী নই?

এক, আমাদের জানার পরিধি খুবই সীমিত। বেশির ভাগ চাকরীপ্রার্থী বা চাকরিদাতা এইগুলো সম্পর্কে জানেই না।
দুই, ভ্যাজাল খেতে খেতে আমাদের পেটের বা চোখের এমনই ছ্যাঁড়াব্যাঁড়া অবস্থা যে কোনটা আসল আর কোনটা নকল ঠাওর করতে পারাই মুশকিল।
তিন, ইন্টারনেটের গদাই লস্করি চালে চলা। কেউ যদি দেখে এক পেইজ ওপেন হতে বাথরুমের ছোট ও বড় দুইটা সারা সম্ভব তাহলে ফেসবুকে গুতোগুতি করা ছাড়া কি করবে (মোবাইল কোম্পানিগুলো এখানে অবশ্য ছাড় দেয়)।
চার, শেখার, জানার, বুঝার আগ্রহের অভাব। এরজন্যও নিশ্চয় আমরা হাচু আপাকে দোষ দিব না। :D



এই সার্টিফিকেটের ভ্যালু কতটুকু?

একটি উদারহরণ দেই, সাপ্লাই চেইনের উপর এমআইটির একটি কোর্স আছে। আপনি সেটা অনলাইনে করলে পরে এমআইটিতে ঐ বিষয়ে উচ্চতর ডিগ্রি নিতে চাইলে ক্রেডিট ওয়েভার পাবেন। এখন বুঝতেই পাচ্ছেন কি পরিমাণ গুরুত্ব? এছাড়াও সময়ের সাথে সাথে এগুলো মানুষ জানতে পারছে। ফলে এগুলোর দেশের বাজারে শিক্ষিত শ্রেণির কাছে অবশ্যই গ্রহণযোগ্যতা তৈরি হচ্ছে এবং হবে। সর্বোপরি, নিজেদের স্কিল তো আপগ্রেড হচ্ছে। ফোর্বস ম্যাগাজিনে এই নিয়ে একটি অার্টিকেল(The Future Of Massively Open Online Courses (MOOCs)) দেখতে পারেন। লেখাপড়ার ভবিষ্যত বলা হচ্ছে এই শিক্ষাকে। ঘরে বসে হার্ভার্ডের শিক্ষকের লেকচার শুনতে পাচ্ছি আমাদের মতো গরীব দেশের ছাত্র-ছাত্রীরাও। জানতে পারছি সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সম্পর্কে। এ যে বিশাল পাওয়া রে পাগলা!! :P


নিজের ও দশের উপকার করতে চাইলে এখনও সময় আছে এই ওয়েবসাইটগুলোতে ঝাঁপ দিন। নিজে শিখুন। অন্যকে শিখতে বলুন। আর ওই সকল সার্টিফিকেট দেখায়ে বসের কলজে চ্যাপ্টা করে দিন। আমি কিন্তু দু একজনের দিয়েছি। :P

এই কোর্সগুলি যেহেতু শিখতে হয় ইংরেজিতে। আর অামরা যেহেতু বেশির ভাগই ইংরেজির তলাফুটা জাহাজ। :(( তাই আগে জাহাজের ফুটাটা বন্ধ করা দরকার। সেক্ষেত্রে ইউটিউবকে হায়ার করা যেতে পারে ফুটা বন্ধ করতে। নিচের মিস্ত্রিগুলোর কাছে গেলে সমাধান হবে একশভাগ নিশ্চিত।

Learn English with Let's Talk: সুন্দরীরা এখানে আপনাকে ইংরেজি শিখিয়েই ছাড়বে। মারাত্মক কাজের একটি ইউটিউব চ্যানেল।
BBC Learning English: বিবিসির ইংলিশ সম্পর্কে বলার কিছু নেই। একবার ঢুঁ দিন। আমার একটি ধন্যবাদ পাওয়া হয়ে যাবে।
IELTS Liz: ভদ্রমহিলা চিৎকার করে, সরি চমৎকার করে শিখিয়ে দেবে পাঠকেরা যা শিখতে চাচ্ছে। লেসনগুলো পুরাতন হলেও আবেদন শেষ হবার নয়।
Learn English Lab: ভদ্রলোক মনে হয়ে ইউটিউবে মিশন নিয়েই নেমেছে যে অামাদেরকে ইংরেজি হজম করিয়েই ছাড়বে।
Learn English with EnglishClass101: ১৪ লাখ সাবস্ক্রাইবার নিয়ে সুন্দরী ইংরেজি পাঠ দিচ্ছেন বিশ্বব্যাপী। অসাধারণ চ্যানেল।
Rachel's English: আমেরিকান একসেন্ট ও শুদ্ধভাবে উচ্চারণের জন্য চমৎকার চ্যানেল।
mmmenglish: এই লাস্যময়ীর কাছে ইংরেজী পাঠ নেওয়াটা দারুন অভিজ্ঞতা হওয়ার কথা। লাখ লাখ ভক্তের পদচারণা ও কলকাকলিতে মুখরিত এই চ্যানেলপাড়া। ;)

শেখার জন্য দেশি বিভিন্ন ওয়েবসাইটও আছে। এগুলোতে বাংলাতেও শেখা যায়। যেমন, সামু ব্লগার রাগিব হাসান ভাইয়ের পুরষ্কারপ্রাপ্ত শিক্ষক.কম, টেকি আয়মান সাদিকের ১০মিনিটস্কুল ইত্যাদি। এই সাইটগুলোতে বিভিন্ন বিষয় বিশেষ করে বিজ্ঞান দারুনভাবে পড়ানো হয়। বাংলাদেশি স্কুল শিক্ষার্থীদের জন্য অবশ্যই বুকমার্ক সাইট।

আর ইউটিউব তো এখন বড় শিক্ষক। শুধু প্রচণ্ড জানার অাগ্রহই পারে শত আলোক দরজা উন্মূক্ত করতে ও নিজেকে আলোর পথের সওয়ারি হয়ে দুর্গম পথ পাড়ি দিতে। এজন্য মনে করি অভিভাবকদের বেশি সচেতন হওয়া দরকার বাচ্চাদের সঠিক পথটা দেখিয়ে দেওয়ার জন্য। আর কে না জানে একটি সুশিক্ষিত ও সুপ্রশিক্ষিত জেনারেশনই পারে দেশের যতসব অনাচার দূর করতে? আমিন।

এতক্ষণ অনেক জ্ঞান কপচানো হলো। এবার Coke Studio'র অসম্ভব মিষ্টি দুটি সুফি গানা শুনে বিদায় হই:


মন্তব্য ৯৪ টি রেটিং +৩৩/-০

মন্তব্য (৯৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: বুঝি না।
কিচ্ছু বুঝি না।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:২৩

আখেনাটেন বলেছেন: হা হা হা। নুর ভাই আপনার জন্য কিছু কোর্স আছে। অনুমতি দিলে রেফার করতে পারি। :D

২| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:১৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: চমৎকার পোষ্ট বললেও কম হয়ে যাবে। অলস বাঙ্গালী একটু একটিভ হলেই কতোকিছু করা সম্ভব!
শুধু দরকার একটু সদিচ্ছা! আশাকরি অনেকেই এই সুযোগ গ্রহন করবে।

কোক স্টুডিওর আরিফ লোহারের এই চমৎকার গানটা নিশ্চয়ই শুনেছেন, তবুও লিংক দিলাম view this link

ধন্যবাদ নিন এবং এনজয় :)

০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:২৮

আখেনাটেন বলেছেন: হাতের মুঠোই এই চমৎকার সুযোগগুলো ভারতীয়রা ব্যাপকভাবে কাজে লাগাচ্ছে। কিছুদিন আগে পাকিস্থানের এক টিনেজ ফিজিক্স দুনিয়াই হৈচৈ ফেলে দিয়েছিল দুর্দান্ত এক অার্টিক্যাল পাবলিশ করে। অথচ সে গ্রাজুয়েশনই করে নি। শুধু এই সাইটগুলোতে পড়াশুনা করেই রিসার্স পেপার লিখে ফেলছে।

এটা কি কাকতালীয় না কি? আপনার ঐ গানটিই প্রথমে সিলেক্ট করেছিলাম এখানে দেওয়ার জন্য। :D আমার অসম্ভব ভালোলাগার একটি গান। এই প্রিয় গানটি শুনুন দেখি:সব মায়া হ্যায়

৩| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৩১

সাাজ্জাাদ বলেছেন: চমৎকার পোস্ট। প্রিয়তে নিলাম।
pharmacy , pharmaceutics, pharmaceutical industry এর উপর কোনও কোর্স কি পাওয়া যাবে?
ধন্যবাদ।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৫৬

আখেনাটেন বলেছেন: ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, সানডিয়েগো'র drug-discovery এই কোর্সটিও দেখতে পারেন।

শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের drug-development'র উপর এইটিও দেখতে পারেন।

৪| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৩৪

এমজেডএফ বলেছেন: উপকারী একটা পোস্ট! ধন্যবাদ। প্রিয়তে রাখলাম। সময় করে বাথরুমের ছোট-বড় দুইটা সেরে এক কাপ কফি সামনে নিয়ে সুফি গানা শুনতে শুনতে আপনার দেওয়া সব লিন্কুতে গিয়ে ঘুরে আসবো। পছন্দ হলে ছোটোখাটো ফ্রী কোনো একটা কোর্স শুরু করে দেব। ভালো থাকুন।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৫৮

আখেনাটেন বলেছেন: সময় করে বাথরুমের ছোট-বড় দুইটা সেরে এক কাপ কফি সামনে নিয়ে সুফি গানা শুনতে শুনতে আপনার দেওয়া সব লিন্কুতে গিয়ে ঘুরে আসবো। -- হা হা হা। বেশ বলেছেন।

আশা করি ঠকবেন না। শুভকামনা আপনার জন্য।

৫| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৪০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: শুনছি.....দারুন।
বাই দ্য ওয়ে, আপনি লিও রোজাস, এনিগমা বা এই জাতীয় মেডিটেটিভ মিউজিক শোনেন?
জিজ্ঞেস করলাম, কারন আপনার পছন্দের সাথে আমার পছন্দ মিলে যাচ্ছে :)

যাকগে, আলোচনা পোষ্ট নিয়ে করাই ভালো। :)

০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:০১

আখেনাটেন বলেছেন: বাই দ্য ওয়ে, আপনি লিও রোজাস, এনিগমা বা এই জাতীয় মেডিটেটিভ মিউজিক শোনেন?
জিজ্ঞেস করলাম, কারন আপনার পছন্দের সাথে আমার পছন্দ মিলে যাচ্ছে
-- রাতটা একটু গভীর হলেই এগুলো আমার সঙ্গী হয়ে যায়। :D

৬| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:০৩

কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: অস্থির পোস্ট। জাস্ট অসাম!! এই ধরনের কাজের পোস্ট ব্লগে এখন আর আসে না বললেই চলে।

প্রিয়তে নিলাম।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:১২

আখেনাটেন বলেছেন: কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: অস্থির পোস্ট। জাস্ট অসাম!! এই ধরনের কাজের পোস্ট ব্লগে এখন আর আসে না বললেই চলে। ---- জাদিদ ভাই, সত্যি বলছি আমি পোস্টটি করার পর থেকেই আপনার থেকে ঠিক এরকমই একটি মন্তব্য আশা করছিলাম। এক্কেবারে ১০০ শতে ১১০। :D

ও হ্যাঁ, আপনাকে অরগানিক আমের সেই স্পেশাল জুসটি খাওয়ার নিমন্তন্ন রইল। B-)

ভালো থাকুন নিরন্তর।

৭| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:১৪

টারজান০০০০৭ বলেছেন: এই পোস্ট স্টিকি হওয়ার যোগ্য ! কোন মন্তব্য নাই কেনু বুঝিলাম না !

০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:১৭

আখেনাটেন বলেছেন: আপনার মুখে ফুল চন্দন পড়ুক বনের রাজা। :D

৮| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:২৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: বনের রাজার সাথে আমিও সুর মেলালাম। অত্যন্ত যুক্তিসঙ্গত কথা বলেছেন তিনি!
স্টিকি করা হোক পোষ্টটা।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:২৯

আখেনাটেন বলেছেন: এর জন্য আপনার একটি মিষ্টি গান পাওনা: তু খুযা মান খুযা

৯| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:৪০

নতুন বলেছেন: সত্যি অসাম জিনিস দিয়েছেন ভাই। বিষয়টা দেখেছিলাম বেশ কিছুদিন আগে... কিন্তু অলস আমার দ্বারা নতুন জিনিস সেখা এই বয়সে আর সম্বব না , :P

কিন্তু স্কুল/কলেজ/ইউনিভাসিটি পড়ুয়া বাংলাদেশীদের জন্য এই পোস্টা মাস্ট পড়া উচিত....

সবাইকে আহবান করবো যেন এটা স্টিকি পোস্ট বানানো হয়.... আর সবাই তার ফেসবুকেও সেয়ার করুন...

কারন যদি ১০০ জন ছাত্র/ছাত্রী যদি এই জিনিস সম্পকে জানতে পারে এবং এই রকমের শিক্ষার সুযোগ নিতে পারে তবেই আপনার এই ব্লগ লেখা সাথ`ক হবে।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:১১

আখেনাটেন বলেছেন: নতুন বলেছেন: সত্যি অসাম জিনিস দিয়েছেন ভাই। বিষয়টা দেখেছিলাম বেশ কিছুদিন আগে... কিন্তু অলস আমার দ্বারা নতুন জিনিস সেখা এই বয়সে আর সম্বব না -- হা হা হা। খান একাডেমীর এক মন্তব্যে দেখলাম ৬০ প্লাস এক মহিলা নতুন করে বেসিক ম্যাথ শুরু করেছে। এত ভালোভাবে কেউ তাকে নাকি ৫০ বছর আগে শেখায় নি। :P কি উদ্দেশ্যে শিখছেন আল্লাহ মালুম! আর আপনি তো তিরিশের কোঠায়। :D

কিন্তু স্কুল/কলেজ/ইউনিভাসিটি পড়ুয়া বাংলাদেশীদের জন্য এই পোস্টা মাস্ট পড়া উচিত.... --বিশেষ করে উনাদের উদ্দেশ্যে করেই লেখা পোস্ট। উপকার হলেই খুশি হব।

আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ ব্লগার নতুন।

১০| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:০৪

চাঁদের অরণ্য বলেছেন: কোন কথা হবে না সোজা প্রিয়তে নিলাম। অসাআআআধারণ পোষ্ট। সুপার সে উপার। ধন্যবাদ

০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:২৫

আখেনাটেন বলেছেন: আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ব্লগার চাঁদের অরণ্য।

শুভকামনা।

১১| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:১৬

সৈয়দ ইসলাম বলেছেন: অনেক জরুরী পোস্ট।
প্রিয়তে রাখলাম। অনেক ভাল লাগলো।

এধরনের পোস্ট আজকাল খুব প্রয়োজন।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:২৬

আখেনাটেন বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে ব্লগার সৈয়দ ইসলাম।

প্রিয়তে নেওয়ায় প্রীত হলুম।

১২| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৫:০১

সেতু আমিন বলেছেন: অনেক ভালো পোস্ট দিয়েছেন।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৫:১৩

আখেনাটেন বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকেও ব্লগার সেতু আমিন।

১৩| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৫:১৭

সিগন্যাস বলেছেন: প্রিয় ফেরাউন ভাই
প্রথমেই এই ধরনের মহাউপকারী পোষ্টের জন্য ধন্যবাদ জানুন।
আমাদের জানার পরিধি অতিক্ষুদ্র ।সেদিন আড্ডায় এক বিসিএস ক্যাডার ভাই কে জিজ্ঞেস করেছিলাম -বলেনতো পৃথিবীতে কত রকমের চাকরি আছে।সে বলল দশ।
১.ডাক্তার
২.ইঞ্জিনিয়ার
৩.শিক্ষক
৪.সেনাবাহিনী
৫.নৌবাহিনী
৬.আকাশবাহিনী
৭.পুলিশ
৮.ড্রাইভার
৯.সাংবাদিক
১০.RJ
শুনে মেজাজ এতো খারাপ হলো আড্ডা থেকে উঠে গিয়েছিলাম।এবার বুঝুন একজন প্রথম সারির কর্মকর্তা যদি এইসব বলে তাহলে অন্যরা কি বলবে।আসলে সমস্যাটা আমাদের।আমরা জানতেও চায় না জানাতেও চায়না।তাই দেশের ৮০% মানুষ এখনো মনে করে বাশঝাড়ে ভূত থাকে।আপনি ব্যতিক্রমী একটা পোষ্ট করেছেন।অথচ এই কাজটা রাষ্ট্রের করা উচিত ছিল।যায় হোক আর কিছু বললাম না।

হ্যা ভাই এবার আমার নিজের কথায় আসি।আপনি যেমন কেটি পেরির উপর ক্রাশ খেয়েছেন আমিও রকেট সায়েন্সের উপরে ছোট থেকেই ক্রাশ।এমন কোন অনলাইন কোর্সটোর্স আছে যেখানে আমি রকেটের প্রতিটা নাটবল্টু কিভাবে লাগায় সেটাও জানতে পারবো?।ফুল রকেট সায়েন্স আরকি।এমন কোন কোর্স আছে যেটি আজকে করলে কালকেই মিস্ত্রি ডেকে রকেট বানাতো পারবো?ইলন মাষ্কের ভাষণ শুনতে তো আর ভাল লাগেনা

০২ রা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৫:৩৪

আখেনাটেন বলেছেন: আমিও রকেট সায়েন্সের উপরে ছোট থেকেই ক্রাশ।এমন কোন অনলাইন কোর্সটোর্স আছে যেখানে আমি রকেটের প্রতিটা নাটবল্টু কিভাবে লাগায় সেটাও জানতে পারবো?।ফুল রকেট সায়েন্স আরকি।এমন কোন কোর্স আছে যেটি আজকে করলে কালকেই মিস্ত্রি ডেকে রকেট বানাতো পারবো?ইলন মাষ্কের ভাষণ শুনতে তো আর ভাল লাগেনা -- হা হা হা। রকেট সায়েন্স শিখতে চাইলে ইলন মাস্কের কথা শুনে বিরক্ত হলে চলে। এ ব্যক্তি এখন গোটা বিশ্বের মেধাবী তরুনদের নতুন করে ভাবতে শেখাচ্ছে।

দীর্ঘ পথ পাড়ি দেওয়ার মানসিকতা নিয়েই এই ঝঞ্জাবিক্ষুব্ধ পথে এগুতে হবে। :D

আর উপরে যে ঘটনাটা লিখেছেন তার ব্যাখ্যা আমার নেই। এই মাথামোটারা ভার্সিটির লাইব্রেরীগুলোতে বসে গাইডবই গলাধ:করণ করা পাবলিক। এরাই দেশের পলিসি মেকিং করতে যাচ্ছে অদূর ভবিষ্যতে। কী ভয়ঙ্কর!

১৪| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৩৪

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
এটা খুবই একটি ভালো পোস্ট। আমার মনের মতো পোস্ট। আপনাকে ধন্যবাদ দিয়ে খাটো করা যাবে না।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:০৭

আখেনাটেন বলেছেন: ধন্যবাদ সাজ্জাদ ভাই। আপনার পোস্ট ভালো লেগেছে জেনে খুশি হলাম।

শুভকামনা আপনার জন্য।

১৫| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৫২

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: প্রিয় ফ্যারাও ভাই,

প্রচন্ড কান্না পাচ্ছে। বয়সটা অনেক বেড়ে গেছে। এখাানে সামান্যভাবে হলেও সেটেল্ড হয়ে গেছি। ইস, যদি বিয়ের আগে পেতাম। নিঃসন্দেহে একবার এসুযোগ গ্রহনের চেস্টা করতাম। তবে এই মুহূর্তে বহুউচ্চভিলাসীর পোষ্টটি কাজে লাগবে - একথা হলফ করে বলতে পারি। অত্যন্ত পরিশ্রমী পোষ্ট, কৃতজ্ঞতা আপনাকে।

অনেক অনেক শুভ কামনা প্রিয় ফ্যারাও ভাইকে।


০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১১

আখেনাটেন বলেছেন: বয়সটা অনেক বেড়ে গেছে। -- ধুর মশাই, এটা কি কন? শরীরের বয়স যাই হোক, আপনার লেখা দেখে তো মনে হয় না মনের বয়স বেড়েছে। আর মনের বয়স না বাড়লেই হল। চির তরুন থাকুন। আর চির তরুনদের জন্যও ওখানে পাবেন নানা ধরণের অাত্ন-উন্নয়নমূলক কোর্স। শুধু উৎসাহটা দরকার। আমার মনে হয় আপনার তা আছে। :D

ভালো থাকুন পদাতিক দা।

১৬| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৫৮

জুন বলেছেন: আখেনাটেন আমার মত বুড়া মানুষের কি এই পোষ্ট কোন কাজে আসবে :( আমি কি সিগন্যাসের মত রকেট বানাইতে পারবো #:-S নাকি অন্য কিছু ! থাক আমি আপনার দেয়া গানই শুনি /:) পোষ্ট পড়লামই যখন তখন একটা প্লাস চিন্হ দেয়া পাঠকের কর্তব্যের মধ্যে পরে :||
+

০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১৫

আখেনাটেন বলেছেন: আমার মত বুড়া মানুষের কি এই পোষ্ট কোন কাজে আসবে -- আছে মানে, থরে থরে সাজানো। খোঁজ নিয়ে দেখতে পারেন জুনাপু। :)

থাক আমি আপনার দেয়া গানই শুনি -- হুম; সেজন্যই গানগুলো দিলাম। পড়ার পরে ঝিমধরা মাথাটাকে মেলোডিতে মিলিয়ে দেওয়ার জন্য। :P

অসংখ্য ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য জুনাপু।

১৭| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: আখেনাটেন ,





চমৎকার এবং চমৎকার এবং চমৎকার .........................

এটা হলো একটা পোস্টের মতো পোস্ট । এই না হলে ব্লগার !
থাম্বস আপ !

০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:২৬

আখেনাটেন বলেছেন: চমৎকার এবং চমৎকার এবং চমৎকার .........................

এটা হলো একটা পোস্টের মতো পোস্ট । এই না হলে ব্লগার !
থাম্বস আপ !
-- চমৎকার মন্তব্যের জন্য আপনাকেও হ্যাট খোলা শুভেচ্ছা ব্লগার আহমেদ জী এস। ব্লগারদের উৎসাহ পেলেই এত কষ্ট করে সময় নষ্ট করে লেখা পোস্টের সত্যিকারের সাফল্য।

শুভকামনা আপনার জন্য। ভালো থাকুন। সুস্থ থাকুন।

১৮| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫১

শাহাদাৎ হোসাইন (সত্যের ছায়া) বলেছেন: একলাফে প্রিয়তে নিলাম। অনেক দিন পর একটি শিক্ষণ ও ক্যারিয়ার মূলক পোষ্ট পেলাম। ধন্যবাদ আপনাকে।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:২৭

আখেনাটেন বলেছেন: সুন্দর মন্তব্যের জন্য অশেষ ধন্যবাদ শাহাদাৎ হোসাইন (সত্যের ছায়া)।

খুশি হলুম প্রিয়তে নিয়েছেন জেনে।

শুভকামনা নিরন্তর।

১৯| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৫

সাহাবুব আলম বলেছেন: প্রিয়তে রাখলাম

০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:২৮

আখেনাটেন বলেছেন: প্রিয়তে নেওয়ায় প্রীত হলুম ব্লগার সাহাবুব অালম।

শুভকামনা।

২০| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ৮:০৮

করুণাধারা বলেছেন: অসম্ভব রকমের উপকারী পোস্টের জন্য বিশাল ধন্যবাদ, আখেনাটেন। আপনি নিশ্চয়ই অনেক খাটাখাটনি করে এই পোস্ট তৈরী করেছেন; আপনার খাটুনি সার্থক, এই পোষ্ট অনেকেরই খুব উপকারে আসবে।

পোস্টটা প্রিয়তে নিয়ে রাখলাম যাতে পরে আরও অনেককে দেখাতে পারি।

একটা কথা, আপনি ইউনিভার্সিটি অফ ইলিনয় আর্বানা-শ্যাম্পেইন লিখতে গিয়েছিলেন, হয়ে গেছে আরবানা-কেমপেইন!

আরেকবার ধন্যবাদ, এবং শুভকামনা।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৩২

আখেনাটেন বলেছেন: আপনি নিশ্চয়ই অনেক খাটাখাটনি করে এই পোস্ট তৈরী করেছেন; আপনার খাটুনি সার্থক, এই পোষ্ট অনেকেরই খুব উপকারে আসবে। --আমিও তাই চাই করুণাধারাপা। কিছু ব্যক্তি যদি এই পোস্ট পড়ে সাইটগুলোতে ঝাঁপ দেয় তাহলেই আমার পরিশ্রম সার্থক।

পোস্টটা প্রিয়তে নিয়ে রাখলাম যাতে পরে আরও অনেককে দেখাতে পারি। -- আপনার বদান্যতা। :D

*ঠিক করে দিয়েছি।

চমৎকার মন্তব্যের জন্য বিশেষ ধরণের অশেষ শুভেচ্ছা ও শুভকামনা। ভালো থাকুন। সুস্থ থাকুন।

২১| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ৯:৩৩

টোনাল্ড ড্রাম্প বলেছেন: আমাদের ইংলিশ এর দৌড় যতদিন পর্যন্ত না ভালো হবে, আমরা আমাদের শিক্ষার্থী দের কাছ থেকে এই ধরণের শিক্ষা উপকরণ থেকে বেশি কিছু আশা করতে পারবো না। অবশ্য সরকারের এই ক্ষেত্রে ভালো রকম ভূমিকা রাখা দরকার। কিন্তু আমাদের সরকারের এখন অনেকটাই '' হায়রে বোকা কি করিলি, ঘাস থুইয়া ধান নিড়াইলি " -র মতো অবস্থা ।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৩৬

আখেনাটেন বলেছেন: টোনাল্ড ড্রাম্প বলেছেন: আমাদের ইংলিশ এর দৌড় যতদিন পর্যন্ত না ভালো হবে, আমরা আমাদের শিক্ষার্থী দের কাছ থেকে এই ধরণের শিক্ষা উপকরণ থেকে বেশি কিছু আশা করতে পারবো না। --ভালো কথা বলেছেন। সেজন্য শেষের দিকে কীভাবে ইংরেজি জ্ঞানটুকু বাড়ানো যায় সে ব্যাপারেও অালোচনা করা হয়েছে। শুধু ইচ্ছাশক্তিটুকুকে কাজে লাগাতে হবে। :D

সরকারের শিক্ষা-শিক্ষার্থী-দেশ-জাতি ইত্যাদি নিয়ে মাথা ব্যথা নেই। শুধু মাথাব্যথা গদি নিয়ে। তাই যা করার নিজেদেরকেই করতে হবে।

ভালো লাগল আপনার মন্তব্য। শুভকামনা রইল ।

২২| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ৯:৪০

শামচুল হক বলেছেন: পোষ্টের জন্য ধন্যবাদ।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৩৯

আখেনাটেন বলেছেন: শামচুল হক বলেছেন: পোষ্টের জন্য ধন্যবাদ। -- শামচুল ভাই, এত্তবড় একটা পোস্ট লিখলুম আর একটা ধন্যবাদেই খাল্লাস। :D :P

মন্তব্যের জন্য আপনাকেও ফিরতি ধন্যবাদ। শুভকামনা রইল।

২৩| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৪৩

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন: প্রিয়তে রেখে দিলাম !!

পরে পড়ে নিবো। ;)

০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৫০

আখেনাটেন বলেছেন: প্রীত হলুম কবি।

তাড়াতাড়ি পড়ে ফেলুন। উপকার হইলেও হইতে পারে। এটা গরু জাতীয় পোস্ট। গরুর যেমন হাড়-হাড্ডি থেকে চামড়া পায়ের খুরা থেকে গোবর সবই উপকারী। এই পোস্টও তেমন। পড়েন। ঠকবেন না কবি। :P =p~

শুভকামনা রইল।

২৪| ০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৪৭

সুমন কর বলেছেন: কি করলেন আপনি !! সব একসাথে !! এপিক !!

প্লাস এবং প্রিয়তে।

০২ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৫২

আখেনাটেন বলেছেন: সুমন কর বলেছেন: কি করলেন আপনি !! সব একসাথে !! এপিক !! -- :D B-)

প্রিয়তে নেওয়ায় খুশি হলুম কবি সুমন কর।

শুভেচ্ছা রইল।

২৫| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১২:১১

জিয়াউদ্দীন বলেছেন: কপি মারলাম

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:১৫

আখেনাটেন বলেছেন: মেরে দিলেন। কি আর করা...তবুও সুখী হোন...

২৬| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ ভোর ৪:৪৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিশাল আইডিয়া

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:১৮

আখেনাটেন বলেছেন: চাঁদগাজী বলেছেন: বিশাল আইডিয়া -- :D

২৭| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ ভোর ৬:৪৩

বিডি আইডল বলেছেন: গুড পোষ্ট...সফট স্কিল ডেভেলপমেন্টে এমনকি ইন্ডিয়ানরাও আমাদের থেকে যোজন এগিয়ে আছে

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:২২

আখেনাটেন বলেছেন: সফট স্কিল ডেভেলপমেন্টে এমনকি ইন্ডিয়ানরাও আমাদের থেকে যোজন এগিয়ে আছে -- এটা কি বলেন? শুধু এগিয়ে আছে... বলুন আলোকবর্ষ দূরে চলে গেছে। শুধু আমাদের পাশের বাড়ির খড়গপুর আইআইটির ছাত্রছাত্রীরাই বছরে কয়েক শ কোর্স সম্পন্ন করে। মুম্বাই আইআইটি অনেকগুলো কোর্স পরিচালনা করে মানে পার্টনার ইউনি। ভাবা যায়।

২৮| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ সকাল ৯:৪০

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: হা হা হা। নুর ভাই আপনার জন্য কিছু কোর্স আছে। অনুমতি দিলে রেফার করতে পারি।

না না। আমি ঝামেলায় যাবো না।

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:২৫

আখেনাটেন বলেছেন: না না। আমি ঝামেলায় যাবো না। -- যাওয়া দরকার। ;)

দেখুন তো এই কোর্সটা আপনার সাথে যায় কিনা...... B-)

২৯| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:১০

শামছুল ইসলাম বলেছেন: চমৎকার তথ্যবহুল উপকারী একটি পোস্ট । আপনার নাম নিতে আমার দাঁত ভেঙ্গে যাচ্ছে - আখেনাটেন ভাই, এক ট্রাক (১০ টনি) ধন্যবাদ জানিবেন । সরাসরি প্রিয়তে ।

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:২৭

আখেনাটেন বলেছেন: ধন্যবাদ জানবেন ব্লগার শামছুল ইসলাম সুন্দর মন্তব্যের জন্য।

শুভকামনা।

৩০| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৪২

কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: পোস্টটা সামনে যেতে পারে, ইতিমধ্যে আমরা এই পোস্টটিকে সামহোয়্যারইন ব্লগের ফেসবুক পেইজে শেয়ার করেছি।

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৩০

আখেনাটেন বলেছেন: কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: পোস্টটা সামনে যেতে পারে, ইতিমধ্যে আমরা এই পোস্টটিকে সামহোয়্যারইন ব্লগের ফেসবুক পেইজে শেয়ার করেছি। -- অশেষ ধন্যবাদ আপনাকে জাদিদ ভাই। তাহলে সত্যি সত্যিই একদিন চায়ের অাড্ডা দেওয়া যেতে পারে। :D

৩১| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:১৭

চঞ্চল হরিণী বলেছেন: এত ভালো লেগেছে- এত ভালো লেগেছে পোস্ট টা বলে বোঝাতে পারছি না। এই প্রথম ব্লগে কোন পোস্ট আমার এত ভালো লাগলো। যেন বিশাল উপকার করলেন। মনের মধ্যে তো বেঁচে থাকবেনই, বাস্তবেও আপনার দীর্ঘজীবন এবং সুস্বাস্থ্য কামনা করছি।
ধন্যবাদ কম হবে। প্রিয়তম পোস্ট।

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৩৫

আখেনাটেন বলেছেন: আপনার এই অকৃত্রিম ভালোলাগাটুকু নতুন পোস্টের রসদ যোগাবে এ কথা দৃঢ়ভাবে বলতে পারি ব্লগার চঞ্চল হরিণী। আপনাদের মতো কিছু ভালো মনের ব্লগার আছেন বলেই এই নিজের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানোর মতো কষ্টের কাজ সত্যি সত্যিই আনন্দদায়ক হয়ে উঠে।

চমৎকার মন্তব্যের জন্য হিমালয়সম শুভকামনা রইল।



৩২| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:২০

গড়ল বলেছেন: খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে লিখেছেন, সবারই অনলাইন এডুকেশন নিয়ে ধারণা থাকা দরকার, বিশেষ করে এই যুগে চাকুরির বাজারে টিকে থাকতে হলে।

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৩৭

আখেনাটেন বলেছেন: গড়ল বলেছেন: খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে লিখেছেন, সবারই অনলাইন এডুকেশন নিয়ে ধারণা থাকা দরকার, বিশেষ করে এই যুগে চাকুরির বাজারে টিকে থাকতে হলে। --আপনি চমৎকার একটি মন্তব্য করেছেন। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গেলে এর কোনো বিকল্প নেই। যত দ্রুত আমরা এটি বুঝব ততই মঙ্গল।

শুভকামনা রইল মন্তব্যের জন্য ব্লগার গড়ল।

৩৩| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:৪৩

সাহসী সন্তান বলেছেন: ইহা হয় একখান কামের পোস্ট! আসলে পোস্টের প্রশংসা আর কি করবো। সবই তো ঐ উপরওয়ালারা করে গেছেন! আমি কেবল লাইক কমেন্ট কইরা পাশে আছি সেইটা জানাইতে আইলাম... ;)

পোস্টে আপনার প্রাণবন্ত আলোচনাটা সব থেকে বেশি ভাল লাগছে! এমন কি পড়তে একদমই বোরিং ফিল করিনি। তাছাড়া এই ধরনের আইডিয়া যার মাথার থেকে বের হয়, সে তো নিজেই একটা ল্যাংড়া আম! :P

পোস্ট শোকেসে উঠাইয়া রাখলাম! শুভ কামনা জানবেন!

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৪০

আখেনাটেন বলেছেন: পোস্টে আপনার প্রাণবন্ত আলোচনাটা সব থেকে বেশি ভাল লাগছে! এমন কি পড়তে একদমই বোরিং ফিল করিনি। তাছাড়া এই ধরনের আইডিয়া যার মাথার থেকে বের হয়, সে তো নিজেই একটা ল্যাংড়া আম! -- আমি তো আবার ভয়ে ভয়ে ছিলাম। গুণীজনেরা আবার এসবকে পাকনামী মনে করে কি-না? :P

প্রাণবন্ত মন্তব্যের জন্য শুভকামনা জানবেন ব্লগার সাহসী সন্তান।

৩৪| ০৩ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৪৪

বলেছেন: অসাধারণ পোষ্ট

০৩ রা জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৫৮

আখেনাটেন বলেছেন: ধন্যবাদ পোস্টের প্রশংসাটুকুর জন্য ব্লগার ল।

ভালো থাকুন।

৩৫| ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ ভোর ৪:৫৩

মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম বলেছেন: Coursera র Andrew Ng-র deep learning এর পাঁচটা course আছে। অসাধারন বললে কম হয়ে যায়।

০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:২৯

আখেনাটেন বলেছেন: মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম বলেছেন: Coursera র Andrew Ng-র deep learning এর পাঁচটা course আছে। অসাধারন বললে কম হয়ে যায়। -- হুম; ঠিক বলেছেন তারিকুল ভাই। এই কোর্স নিয়ে আমিও ভারতীয়দের মধ্যে বেশ উৎসাহ দেখেছি বিভিন্ন ফোরামে।

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে যারা শিখতে চায় তাদের জন্য এই কোর্সটি একটি হীরের খনি।

সুন্দর মন্তব্যের জন্য অশেষ ধন্যবাদ আপনাকে।

৩৬| ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৩৪

জাহিদ অনিক বলেছেন:
অফলাইনে এসে পোষ্ট ও সব মন্তব্য পড়েছিলাম।


এই পোষ্ট প্রিয়তে না রাখলে পাপ হবে পাপ।

০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:৩১

আখেনাটেন বলেছেন: এই পোষ্ট প্রিয়তে না রাখলে পাপ হবে পাপ। --আপনারা কবিরাও মাইরি পারেনও। :P


ধন্যবাদ কবি। পোস্ট ভালোলেগেছে শুনে ভালো লাগল।

৩৭| ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৫৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: সরাসরি প্লাস এবং "প্রিয়"তে। অসাধারণ একটি কাজ করেছেন। এ পোস্ট বহুদিন ধরে বহু মানুষের উপকারে আসবে।

০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:৩৪

আখেনাটেন বলেছেন: এ পোস্ট বহুদিন ধরে বহু মানুষের উপকারে আসবে। -- এই পোস্ট পড়ে একজনও যদি সাইটগুলোতে গিয়ে কিছু শিখতে পারে তাহলে আমার চেয়ে খুশি আর কেউ হবে না। যে উদ্দেশ্য নিয়ে লেখা তা কিছুটা হলেও সফল হয়েছে এতটুকু অন্তত বলা যাবে।

আপনার চমৎকার মন্তব্যের জন্য কৃতজ্ঞতা জানবেন প্রিয় ব্লগার খায়রুল আহসান। ভালো থাকুন। সুস্থ থাকুন।

৩৮| ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৫৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: সবাই যা বলার তো বলছেই ভাই!! আমি প্রিয়তে নিলাম।
ধন্যবাদ এমন একটা পোষ্ট এর জন্য।

০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৫:৫৪

আখেনাটেন বলেছেন: কিছু মানুষ যদি উপকৃত হয় পোস্ট পড়ে তাহলেই পোস্টটির আসল সার্থকতা। যদিও উচ্চশিক্ষার এখন যে হাল দেশে তাতে এসব কিছু থেকে জ্ঞান আহরণের চেয়ে হাচু দেবী-গোলাপী বিবির দেশ উদ্ধার আর এরশাদ কাকু কবে কবিতা লিখেছিল প্রেমিকাকে উদ্দেশ্য করে এগুলো গাইড থেকে মুখস্ত করে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষাতে বসতেই উৎসাহী বেশি। এ জাতির কপালে ফাঁড়া আছে!

ধন্যবাদ মনিরাপা আপনাকে মন্তব্যের জন্য।

শুভকামনা ও ভালো থাকুন।

৩৯| ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৯

জেন রসি বলেছেন: ফাইন্যান্সিয়াল ডাটা অ্যানালাইসিস, প্রোগরামি, ডেটা সায়েন্স এসব বিষয়ে কোর্স করার আগ্রহ আছে। দেখি কবে অলসতাকে জয় করতে পারি।

০৪ ঠা জুলাই, ২০১৮ রাত ১১:৪৩

আখেনাটেন বলেছেন: জেন রসি বলেছেন: ফাইন্যান্সিয়াল ডাটা অ্যানালাইসিস, প্রোগরামি, ডেটা সায়েন্স এসব বিষয়ে কোর্স করার আগ্রহ আছে। দেখি কবে অলসতাকে জয় করতে পারি। -- দ্রুতই শুরু হোক আপনার এই যাত্রা এই কামনা।

মন্তব্যের জন্য অশেষ ধন্যবাদ ব্লগার জেন রসি।

৪০| ০৬ ই জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৪৭

নীলপরি বলেছেন: অজানা কিছু জেনে ভালো লাগলো ।
ধন্যবাদ

০৯ ই জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:৪৮

আখেনাটেন বলেছেন: ভালো লেগেছে জেনে ভালো লাগল।

অশেষ ধন্যবাদ ব্লগার নীলপরি মন্তব্যের জন্য।

শুভকামনা।

৪১| ০৯ ই জুলাই, ২০১৮ রাত ৩:৩৯

Ashfi Tuhin বলেছেন: আবেগাপ্লুত ধন্যবাদ।।Anthropology এর কোন কোর্স এর ব্যাপারে জানা থাকলে বলিয়েন তো ভাই।।

০৯ ই জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:০১

আখেনাটেন বলেছেন: Why We Post: the Anthropology of Social Media --ফিউচার লার্ন থেকে ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের এই কোর্সটি দেখতে পারেন।

Becoming Human: Anthropology --Macquarie University'র এই ফ্রি কোর্সটি দেখেন কাজে লাগে কিনা।

এছাড়া কোর্সেরার এই কোর্সগুলিতে খুঁজে দেখুন কোনোটা মিলে কিনা।


ইউনিভার্সিটি অব গ্লাসগো'র কোর্সটি Antiquities Trafficking and Art Crime কোর্সটি দেখতে পারেন।


এছাড়াও EdX'র এখানে দেখুন এনথ্রোপলজির উপর কোনো কোর্স পছন্দ হয় কিনা।

৪২| ২৩ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪০

মাহবুবুল আজাদ বলেছেন: ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১১ টা কোর্স করে ফেলেছি। তবে অনলাইন পেমেন্ট করা হয়নি তাই সার্টিফিকেট পাওয়া হয়নি। অলরেডি হার্ভার্ডের একটা কোর্সে আছি, তবে এইবার আর সার্টিফিকেট মিস করছি না।

২৩ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ৮:০৮

আখেনাটেন বলেছেন: কোথায় কোর্সেরাতে নাকি ইডেক্সে। কোর্সেরাতে আপনি ফাইন্যানসিয়াল এইডের অাওতায় সার্টিফিকেট পেতে পারতেন। ডেভালপিং কান্ট্রিগুলোর ছাত্রদের জন্য উনারা বেশ উদার।

সামান্য খরচ হলেও সার্টিফিকেট নিয়ে নেওয়াই ভালো। যদিও শেখাটায় বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

আপনি সাইটগুলোতে শিখছেন জেনে ভালো লাগল। শুভকামনা আপনার জন্য।

৪৩| ২৫ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ১:০০

অনেক কথা বলতে চাই বলেছেন: এই first এখানে একটা post থেকে সরাসরি উপকার পেলাম। কিভাবে যে বাংলাদেশের গরব Khan Academy-র কথা ভুলেই বসে ছিলাম এতদিন! আহারে, আরও আগে যদি জানতাম! যাই হোক, আজকে থেকে লেগে পড়লাম। প্রিয়তে নিলাম।

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৪৩

আখেনাটেন বলেছেন: ভালো লাগল আপনার মন্তব্য পড়ে ব্লগার অনেক কথা বলতে চাই।

ভালো থাকুন। শুভকামনা।

৪৪| ০৩ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ১:৩৪

রাকু হাসান বলেছেন: আপনার্ ব্লগ বাড়িতে এসে উপকার হলো আমার .দারুণ পোস্ট করে রেখেছেন । কোর্সেরা তে অনেক দিন আগে একটা কোর্স শুর করছিলাম ,তবে শেষ করিনি । হেলামী করে । ভাবছিলাম বাস্তবে গুরুত্ব কম । এখন বুঝতে পারলাম আপনার পোস্টে । কোর্স টা শেষ করে ,নতুন কোর্স নিতে েহবে । এত সুন্দর একটা পোস্ট দেওয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা পোষণ করছি । প্রিয়তে নিয়ে রাখলাম । ভাল আছেন আপনি ?

০৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৪৪

আখেনাটেন বলেছেন: কোর্সেরা তে অনেক দিন আগে একটা কোর্স শুর করছিলাম ,তবে শেষ করিনি । হেলামী করে । -- এবার অাশা করি শেষ করতে পারবেন। ফ্রিতে এত কঠিন বিষয়গুলো শেখার সুযোগগুলো আমাদের লুফে নেওয়া উচিত বেশি করে।

হুম; ভালো আছি। আপনার প্রোফাইল পিকটা দারুন।

আপনিও ভালো থাকুন ব্লগার রাকু হাসান। শুভকামনা।

৪৫| ২২ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:১১

মোঃ মঈনুদ্দিন বলেছেন: ধন্যবাদ প্রিয় আখেনাটেন ভাই। আপনার পোস্ট পুরাটা পড়ার সাহস হলো না। লাইক দিয়ে প্রিয়তে রাখলাম। হ্যাঁ, সত্যিই কাজের পোস্ট। ভালো থাকুন।

২২ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:৩২

আখেনাটেন বলেছেন: শুভকামনা ব্লগার মোঃ মঈনুদ্দিন।

ভালো থাকুন।

৪৬| ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:১৪

কালীদাস বলেছেন: ভাল কালেকশন দিয়েছেন, কাজের জিনিষ লিংকগুলো :) বাংলাদেশে অনলাইন কোর্স এখনও অনেকের ভাবনার সীমার বাইরে, এটলিস্ট হেল্পফুল রিসোর্স হিসাবে কাজে লাগবে লিংকগুলো।

শিক্ষক.কম নামটা দেখে অনেক কিছু মনে পড়ল। রাগিব হাসান তখন ব্লগ প্রায় ছেড়ে দিয়েছেন, এরকম একটা সময় চালু করেন এই সাইটটা। ব্লগের অনেকেই তখন কন্ট্রিবিউট করার কথা ভেবেছিল এবং করেছেও অনেকে পরবর্তীতে। খান একাডেমির গল্প তো অনেকেই জানে।

বাঙালি নেটে কি করে সেটা একটা বড় কনসার্ণ যদিও ;) কয়েকদিন আগে আর্কিওপটেরিক্স সাহেবের একটা আগুন পোস্ট দেখলাম কম দামে টাইম কন্ডিশন দেয়া বড় ডেটা প্যাক বেঁচে কিভাবে প্রোভাইডাররা জাতির সব আশাভরসা ধ্বংস করছে এই রিলেটেড :P আসলেই, আমজনতা এসব রিসোর্স ঘাটাবে না বরঞ্চ ফেসবুকে সামাজিকতা মারিয়েই পুরা ডেটা প্যাক শেষ করবে :-0

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:১৯

আখেনাটেন বলেছেন: জ্ঞানভিত্তিক সমাজ বিনির্মানে এই আধুনিক টেকনোলজির সদ্ব্যবহার করতে না পারলে আপসোস করা ছাড়া আর কি-ই-বা করার থাকে। যদিও চীন, ভারত, সাউথ কোরিয়া, ইরানের তুলনায় এসব সাইটের ব্যবহার বাংলাদেশে নিতান্তই নগণ্য। এতে বুঝা যায় আমাদের শিক্ষার্থীর জ্ঞান লাভের সদিচ্ছা।

আন্ডারগ্রাড থেকে সকলের ধান্ধা কীভাবে আমলা হওয়া যাবে? এ এক ভয়ঙ্কর অবস্থা! শিক্ষাবিদদের এগুলো নিয়ে বিস্তর চিন্তা করার সময় এসে গেছে। উদ্ভাবনী চিন্তা কিংবা জ্ঞানমূলক জাতি গঠনে আমরা নেপাল থেকেও পিছিয়ে যাচ্ছি। সেদিন দেখলাম উচ্চশিক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে নেপালের শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাংলাদেশের থেকে বেশি। অবাক হয়েছিলাম।

যদি এই লেখা কারো উপকারে আসে তাতে আমার পরিশ্রম সার্থক। :D

মন্তব্যের জন্য অশেষ ধন্যবাদ।

৪৭| ২৭ শে জুন, ২০১৯ রাত ১:২৭

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: আমিও উচ্চশিক্ষা নিয়ে পোস্ট করার কথা ভাবতেছি :)

১২ ই জুলাই, ২০১৯ রাত ১২:০৩

আখেনাটেন বলেছেন: গুড, করে ফেলুন।

অপেক্ষায় রইলুম......।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.