নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

শব্দকবিতা : শব্দেই দৃশ্য, শব্দেই অনুভূতি \n\[email protected]

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই

দুঃখের কবিতাই শ্রেষ্ঠ কবিতা। ভালোবাসা হলো দুঃখ, এক ঘরে কবিতা ও নারী।

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই › বিস্তারিত পোস্টঃ

বড়োলোকের বিটি লো, লম্বা লম্বা চুল, এমন মাথা বেঁধে দোবো লাল গেঁন্দা ফুল || বলি ও ননদী আর দু\'মুঠো চাল ফেলে দে হাঁড়িতে, ঠাকুর জামাই এলো বাড়িতে || বন্ধু তিনদিন তোর বাড়িতে গেলাম

৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ৯:৪৮

৭০ ও ৮০-র দশকে তুমুল জনপ্রিয় এ গানগুলো ঐ সময়ে গ্রামেগঞ্জে যে-কোনো অনুষ্ঠানে, বিশেষ করে বিয়ের অনুষ্ঠানে খুব ধুমধাম করে বাজানো হতো। ঐ সময়ে ছোটোবড়ো এমন মানুষ পাওয়া খুব ভার ছিল যারা এ গানগুলো শোনেন নি বা এগুলো ভালোবাসেন নি।



বড়ো লোকের বিটি লো, লম্বা লম্বা চুল
এমন মাথা বেঁধে দোবো লাল গেঁন্দা ফুল
সম্প্রতি এ গানটি নতুন করে প্রচারণায় চলে এসেছে। সনি মিউজিক ইন্ডিয়া এটার একটা রিমেইক করেছে। শিল্পী হলেন বাদশাহ ও পায়েল দেব। মিউজিক ভিডিওটি ইউটিউবে আপলোড করার পর দ্রুতই এর ভিউসংখ্যা বাড়তে থাকে। ৩১ মার্চ ২০২০-এর রাত ৯:৪০ পর্যন্ত এ ভিউসংখ্যা 68,365,578। ভিডিও মেকিং থেকে শুরু করে অভিনয়, কোরিওগ্রাফি, মিউজিক, কণ্ঠ, সবকিছুই উন্নত মানের (কিছু আপত্তিকর দৃশ্য বাদ দিয়ে)। তবে পরিতাপের বিষয়, ভিডিওতে মূল শিল্পী, গীতিকার বা সুরকারের কোনো উল্লেখ নেই। ফলে, এত ভালো একটা কাজ হওয়ার পরও সনি মিউজিক ইন্ডিয়া তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে। ক্রেডিট উল্লেখ করলে নিয়মানুযাযী মূল শিল্পী, গীতিকার, সুরকারগণ রয়েল্টি পেতেন, এটা এড়ানোর জন্যই সনি মিউজিক এটা করেছে বলে ধরে নেয়া হচ্ছে। যাই হোক, এ কাজের জন্য আমার পক্ষ থেকে প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করলাম।

বর্তমান প্রজন্মের অনেক ব্লগারই হয়ত প্রথম গান দুটো সম্পর্কে আগে জানতেন না। রিমেইক ভার্সনটি শোনার পরও হয়ত তাদের কাছে এ ইতিহাস অজানাই থেকে যেত। তাদের উদ্দেশেই আজকের গানগুলো পোস্ট করা হলো।




বড়ো লোকের বিটি লো, লম্বা লম্বা চুল - স্বপ্না চক্রবর্তী





বড়ো লোকের বিটি লো, লম্বা লম্বা চুল, এমন মাথা বেঁধে দোবো লাল গেন্ধা ফুল - স্বাগত দে





বলি ও ননদী আর দু'মুঠো চাল ফেলে দে হাঁড়িতে ঠাকুর জামাই এলো বাড়িতে - স্বপ্না চক্রবর্তী





বন্ধু তিনদিন তোর বাড়িতে গেলাম, দেখা পাইলাম না - রুনা লায়লা।


'কসাই' ছায়াছবিতে ব্যবহৃত ট্র্যাক এটি




বন্ধু তিনদিন তোর বাড়িতে গেলাম, দেখা পাইলাম না - রুনা লায়লা
'বিবিসি এশিয়ান মিউজিক ম্যাগাজিন ১৯৮৪'-তে প্রচারিত)




বন্ধু তিনদিন তোর বাড়িতে গেলাম, দেখা পাইলাম না - সাবিনা ইয়াসমিন
'কসাই' ছায়াছবিতে ব্যবহারের আগেই এটা সাবিনা ইয়াসমিনের কণ্ঠে রেকর্ড করা হয়েছিল। কিন্তু, ছায়াছবিতে ব্যবহারের জন্য রুনা লায়লার কণ্ঠে রেকর্ড করা হয়।


মন্তব্য ৪৪ টি রেটিং +৬/-০

মন্তব্য (৪৪) মন্তব্য লিখুন

১| ৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ৯:৫২

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
রুহি আপু আজ ফেসবুকে
নিজেকে বড় লোকের বেটি
বলে স্বীকৃতি দিয়ে আহ্লাদে
গদগত হয়ে দুলাভাইকে
যা ঝাড়লেন, আমার
কান্নাই পেলো বেচারার
দূর্গতি অনুধাবন করে।

৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ৯:৫৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: খুব মর্মান্তিক ঘটনা এটা। তীব্র প্রতিবাদ জ্ঞেপন করিতেছি দুলাভাইয়ের বিরুদ্ধে।


ইয়ে, কোন রুহি আপুর কথা বললেন নূরু ভাই? :(

২| ৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১০:০২

নেওয়াজ আলি বলেছেন: পুরাতন গানটা শুনিছি। নতুনটা এখন।

৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১০:৩৩

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: নতুন গানটা এখানে দিই নি। ইচ্ছে করেই।

৩| ৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১০:০৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: করোনার দিনে চমৎকার আয়োজন । কিছু আনন্দ গান ক্ষণ উপহারে অনেক ধন্যবাদ।

৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১০:৩৪

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আনন্দ অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য ধন্যবাদ রইল প্রিয় কবি সেলিম আনোয়ার ভাই+

৪| ৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১০:১৮

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:

লেখক বলেছেন: খুব মর্মান্তিক ঘটনা এটা। তীব্র প্রতিবাদ জ্ঞেপন করিতেছি দুলাভাইয়ের বিরুদ্ধে।
ইয়ে, কোন রুহি আপুর কথা বললেন নূরু ভাই? :(


ভাই আপনিতো প্যাজগী লাগাই দিলেন। বেচারা দুলাভাইর জন্য একটু সমবেদনা জানাবেন তা না, তার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাইলেন !!! লজ্জা, লজ্জা !

আর আপনি বিখ্যাত ফেসবুকার ফেরদৌসা রুহী আপুকে চেনেন না, এটা তিনি জানলে মনে ভীষণ কষ্ট পাবেন। প্রতিদিন যার ৪/৫টা স্টাটাস থাকে ফেবুতে। নাইজেরীয়াতে যার অবস্থান এখন।

৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১০:৪৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: পেজগি লাগাই নি ভাই। দুলাভাইয়ের বড়ো অপরাধ হলো তিনি গালি খাওয়ার কাম করেছেন। গালি খাওয়ার কাম করে কেউ কোনোদিন মুচু আশা করতে পারে না।

আর আপনি বিখ্যাত ফেসবুকার ফেরদৌসা রুহী আপুকে চেনেন না, এটা তিনি জানলে মনে ভীষণ কষ্ট পাবেন। তিনি যেন ভুলেও না জানতে পারেন যে আমি তাকে চিনি না। ব্যাপারটা গোপন রাখার জন্য বিনীত অনুরোধ জানাইতেছি

৫| ৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১১:০৪

জগতারন বলেছেন: প্রিয় সোনাবীজ, আপনার পোষ্ট দেখিয়া লগ-ইন করিলাম।
এই প্রবাসে আজ আমার অবসরের দিন। এয়ারলাইনে উড়োজাহাজের কঠিন, জটিল ও ঝামেলাপূর্ণ কর্ম ফাকেও যেন 'করোনা'পূর্ন এই পরিস্থিতিতে একটুও সয়োস্তি পাইতেছিলাম না।
আপনার পোষ্ট করা হারানো দিনের এই গানগুলি ও ইহার তারুন্যপূর্ন কন্ঠ, সুর শুনিয়া এবং গানের সাথে যথাপোযুক্ত তারুন্যপূর্ন ছবিগুলি দেখিয়া আমার খুউব ভালো লাগিয়াছিল।

৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১১:২৩

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: প্রিয় জগতারন, কমেন্টে মনে হলো আপনি এয়ার লাইনসে কর্মরত আছেন। তাহলে এটা বলার অপেক্ষা রাখে না যে সবচাইতে ঝুঁকিপূর্ণদের তালিকায়ই আপনি আছেন। আপনার জন্য কায়োমনোবাক্যে দোয়া করছি, আপনি যেন নিরাপদ ও সুস্থ থাকেন।

গানগুলো খুব ভালো লেগেছে জেনে আমারও খুব ভালো লাগলো।

ভালো থাকুন সবসময়।

৬| ৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১১:২৫

শের শায়রী বলেছেন: পুরানো গান গুলোই রিমেক চলছে এবং এই প্রজন্মের কাছে সেগুলো মনে হচ্ছে বর্তমান সময়ের। কিন্তু ভালো গান গুলো ঐ অনেক আগেই মনে হয় গেয়ে যাওয়া হয়েছে, কি বলেন ভাই :)

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১০:৪৮

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: যুগে যুগেই পুরোনো গান রিমেইক করা হয়েছে। রিমেইক করা হয় কোন গান? যেসব গান আগে থেকেই খুব জনপ্রিয়, কিংবা আগে জনপ্রিয় ছিল, এখন হারিয়ে গেছে, কিংবা নিছক এক্সপেরিমেন্ট হিসাবেও আগের জনপ্রিয় কিংবা একেবারে শাদামাটা গানকেও রিমেইক করা হতে পারে। আগের যুগে রিমেইক করার জন্য অনেক ঝক্কি ঝামেলা পোহাতে হতো, কারণ, তখন ইন্সট্রুমেন্ট এত সহজলভ্য ছিল না, অন্যদিকে প্রচারের মাধ্যমও এত সহজ ছিল না। ফলে, একটা রিমেইক গানের জন্য সংশ্লিষ্ট সঙ্গীত প্রতিষ্ঠান ও শিল্পীকে অনেক চিন্তাভাবনা করতে হতো।

আজকাল রিমেইকের সাথে আরেকটা টার্ম যুক্ত হয়েছে- 'কভার'/'কাভার'।

সব ভালো গানই আগে গাওয়া হয়ে যায় নি। সব যুগেই অনেক ভালো গান সৃষ্টি হচ্ছে। এ যুগের গানও ভবিষ্যতে রিমেইক হবে।

'পুরোনো' দিনের গানে কী যেন একটা মাধুর্য আছে? কেন সেই মাধুর্য? আমার কাছে মনে হয় - 'নষ্টালজিয়া'ই সকল মাধুর্যের মূল। আমার কৈশোর ও তারুণ্যের গানগুলো আজকালকার পোলাপানকে 'পুরোনো দিনের গান' বলতে শুনি, অথচ আমার কাছে এই পোস্টের কোনো গানই পুরোনো দিনের গান নয় :( তরতাজা নতুন, কারণ, আমার জন্মের পরে এ গানের সৃষ্টি হয়েছে। আমার পুরোনো দিনের গান আরো অনেক পুরোনো।

ধন্যবাদ শের শায়েরী। ভালো থাকুন।

৭| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১২:২৬

রাজীব নুর বলেছেন: গান গুলো অবশ্যই শুনবো।

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১১:০৩

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ রাজীব নুর ভাই।

৮| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:০৩

মিরোরডডল বলেছেন: ধুলো এতোকিছু দিলো , ধুলোকে একটা গান দিলাম ।
গজল ছাড়া হিন্দি একদমই শোনা হয়না । খুবই কম । এটা সেরকম একটা ।
আফটার মিডনাইট এটা শুনতে ভালো লাগে । দেন ইউ ক্যান ফীল ইট ।

sapnay

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:৩২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ওটা শুনে ফেলেছি। হিন্দি বুঝি না বলে তেমন একটা শোনা হয় না। তবে, এ আর রহমানের গান আমার প্রিয়, রাগপ্রধান এবং ধীরলয়ের গুলো। এর বাইরে, পুরোনো হিন্দি এবং গজল আমার প্রিয়।

৯| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:৪২

মিরোরডডল বলেছেন: সেইম হিয়ার । কম বুঝি তাই কম শোনা হয় ।
গজলও অনেক সময় বোঝা কঠিন হলেও সুরের নেশায় আটকে যাই ।
আমার অনেকি প্রিয় একটা গজল ।

Jagjit



০১ লা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:১২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: জগজিৎ সিং-এর সাম্প্রতিক কোনো গজল বা আধুনিক/ছবির গান ছাড়া আগের গজল মোটামুটি সবই শোনা হয়েছে। আমি জগজিৎ সিং-এর একটা গজলের মিউজিক ভিডিও খুঁজছি বহুদিন ধরে। ২০০২ সালের দিকে সিডি কেনা হয়েছিল, তাতেও ছিল। এটা হলো ৯৫-৯৮ সালের মধ্যে ইন্ডিয়ান চ্যানেলে প্রচারিত হওয়া একটা মিউজিক ভিডিও, যেখানে দেখা যায় একটা শ্মশান, যেখানে ছেলেটি এসে স্মৃতিচারণ করে তার প্রেমিকার, যে মেয়েটি মারা গেছে। হিন্দি না বোঝায় গানের কলি বুঝি না, তাই গান মনে রাখতে পারি নি, আর মডেলদের নামও জানা নেই।

১০| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৮

মিরোরডডল বলেছেন:
The last scene in cemetery

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:১৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ও গড!!! কীভাবে পারলেন? আমি এটাই খুঁজছিলাম। আমার শুধু চোখে ভাসত নীল জামা পরে মেয়েটি দৌড়ে এসে হ্যান্ডশেক করে সি-অফ করলো- সেই দৃশ্যটি। গানের চাইতে ভিডিও'র গল্প ও অভিনয় আমার মনে বেশি দাগ কেটেছিল।

আপনাকে ন্যারেট করার পর মনে হয়েছিল ঠিকমতো হয়ত বোঝাতে পারিনি। কারণ, আরো একটা ভিডিও মিউজিক আছে, যেখানে ছেলে বা মেয়েটি অ্যাক্সিডেন্টে মারা যায়। আমার আশঙ্কা ছিল, আপনি হয়ত সেই ভিডিওটি বের করে আনতে পারেন, যদিও আমি জানি না ওটা কার গান ছিল (মনে নেই)।

আমি বিশেষভাবে এই ভিডিওটি খুঁজছিলাম নায়িকাটার পরিচয় জানার জন্য। ঐ সময়ের অনেক মডেলই পরে সিনেমায় নাম করেছেন। এই মেয়েটি কে, এটা অবশ্য এই ভিডিও থেকেও এখনো জানতে পারি নি।

অনেক অনেক ধন্যবাদ কঠোর পরিশ্রমের জন্য। আপনার ডেডিকেশনে মুগ্ধ।

১১| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫৪

মিরোরডডল বলেছেন: I never watch Indian channel.
No particular reason but just not used to.
But last an hour I searched in YouTube and found it.
Very nice one. I think this is the one you are looking for.
If so, enjoy this video. Once again, good night!

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:২৯

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: বাংলাদেশে ডিশ আসার পর ডিশে যা দেখাতো তার প্রতিই আকর্ষণ ছিল। শুরুতে চ্যানেলের সংখ্যা ছিল গোটা কয়েক। আমি বেশি মগ্ন থাকতাম স্পোর্টস চ্যানেলগুলোতে। স্টার স্পোর্টস, ইএসপিএন তখন একটা নেশার মতো ছিল। ন্যাশনাল জিওগ্রফিও খুব প্রিয় ছিল। এমটিভি, চ্যানলে ভি- এগুলোও গানের জন্য ফেভারিট ছিল। স্টার প্লাস, স্টার মুভিজ, এইচবিও, সনি, জিটিভি- সব মিলিয়ে এ ক'টাই ছিল তখন চ্যানেল। আমি এমনিতেও একসময় টিভির পোকা ছিলাম, বিটিভি আমলে। পৌনে তিনটায় টিভি অন করতাম, সাড়ে এগারটার পর কোরান তেলাওয়াত ও জাতীয় সঙ্গীত বাজানোর মধ্য দিয়ে আমার টিভি দর্শন অধিবেশন শেষ করতাম। ডিশ চ্যানেল এসে আমাকে পাগল করে দিল :) যে-কোনো লাইভ স্পোর্টস প্রোগ্রাম, এমনকি রাগবী বা সকার হলেও আমি রাত জেগে দেখতাম :)

২০০০ সালের পর ভাটা পড়ে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশে নিজেদের স্যাটেলাইট চ্যানেলও চলে আসে। স্পোর্টস চ্যানেলের বাইরে বাকি চ্যানেলগুলো দেখা তখন কমে গেল।

এখন সব সময় চ্যানেল আই অন করা থাকে। মাঝে মধ্যে অন্য চ্যানেলে ঘোরাঘুরি করি। কিন্তু বাস্তবিকভাবে, আমি ল্যাপটপে মগ্ন থাকি, টিভিটা শুধু অকারণেই অন থাকে :(

আমার টিভি দেখা নিয়ে ফেইসবুক ও ব্লগে নানা জায়গায় আমার ভাষণ রয়েছে :)

১২| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৮:৪৬

আসোয়াদ লোদি বলেছেন: গান ভাল লেগেছে, জ্যাকুলিনকে না--

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:৩০

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ আসোয়াদ লোদি। শুভেচ্ছা।

১৩| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:০৬

সোহানী বলেছেন: ইন্ডিয়ানরা সারা বিশ্ব থেকেই গান/সুর/ছবির কাহিনী চুরি করে। আর আমরা করি ইন্ডিয়া থেকে। ক'দিন আগেইতো জেমস্, মাইলস্ আর বাচ্চুর গান নিয়েতো এরকম শুনেছিলাম।

তীব্র প্রতিবাদ জানাই এমন চুরির।

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:৩৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: এসব খুবই ঘৃণ্য কাজ। কিন্তু ক্রমেই এগুলো যেন খুব সাধারণ ঘটনা হিসাবেই দেখা দিচ্ছে।

প্রতিবাদ। ঘৃণা।

১৪| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:০৭

ফয়সাল রকি বলেছেন: ক্রেডিট না দেয়াটা খুবই অন্যায়!

০২ রা এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৫৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ ফয়সাল রকি ভাই। শুভেচ্ছা।

১৫| ০২ রা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১২:১৫

সন্ধ্যা প্রদীপ বলেছেন: গানটিকে বাংলাদেশের গান বলেই জানতাম,তবে রতন কাহারের কথা জানতাম না।
নতুন রিমেক গানটিতে লাইনগুলো শুনে অবাকই হয়েছিলাম--কাকে যেন বলেওছিলাম এভাবে আমাদের গানগুলো পাচার হয়ে যাবে?
পরে যখন ক্রেডিট না দেয়ার ব্যাপারটি শুনলাম তখন খুবই খারাপ লেগেছিল।

আসল গানগুলো শোনানোর জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে যাচ্ছি :)

০২ রা এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:১১

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আমি অবশ্য ছোটোবেলা থেকেই জানতাম এটা বাংলাদেশের গান নয়। রিমেইক গানের কথাগুলো যেমন-তেমন, মিউজিক ভিডিওতে অভিনয় খুব আপত্তিকর এবং অশ্লীল লেগেছে অনেক জায়গায়।

মতামতের জন্য ধন্যবাদ। শুভেচ্ছা।

১৬| ০২ রা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৫৭

পদ্ম পুকুর বলেছেন: গতকাল প্রথম আলোতে রতন কাহার এর সাক্ষাৎকার ছেপেছে। উনি আক্ষেপ নিয়ে বলেছেন যে এ্ই একই ঘটনা ৪০/৪৫ বছর আগেও ঘটেছিলো আরেকবার... ভদ্রলোকের কপালটাই খারাপ। একই ঘটনা দুবার!!

বাই দ্য ওয়ে রুহী আপুকে আমিও চিনি না... কেউ কিয়েক্টা পোস্টাইবেন উনাকে নিয়ে?

০২ রা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:৫৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ব্যাপারটা দুঃখজনক। তবে, এই দুঃখের ভেতর দিয়েই পজিটিভ দিকটা হলো, তিনি আবার নতুন করে পরিচিত হলেন। তার এই পরিচিতিটা হয়ত প্রথমবারের পরিচিতিকেও ছাড়িয়ে গেল।

ও আচ্ছা, রুহী আপুকে আপনিও চেনেন না? কিয়েক্টাবস্থার মধ্যে দেখি আমি আর আপনি :) আশা করি শীঘ্রই কেউ একজন তার ব্যাপারে লিখবেন। আপুর সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করিতেছি

আপনার জন্য শুভকামনা।

১৭| ০২ রা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:৩০

মিরোরডডল বলেছেন: ইউটিউবে যখন গজল অর গান শুনি তখন অডিওটাই আমার ফোকাস থাকে , তাই ভিডিও কেমন বা কারা আছে নোটিস করা হয়না । আমি কাল রাতে র‍্যানডোমলি খুঁজলাম । অনেকক্ষণ খোঁজার পর তিন চারটা এরকম পেলাম যে স্মৃতিচারন নিয়ে । তখন এটা পেলাম দেখতে ভালো লাগছিলো । শেষে ওই গ্রেভইয়ার্ড দেখে মনে হোল ধুলো হয়তো এটাই খুঁজছে ।

এমটিভি আর চ্যানেল ভি আমারও দেখা হতো । মিউজিক চ্যানেল আমার অল টাইম ফেবারিট ।
“পৌনে তিনটায় টিভি অন করতাম, সাড়ে এগারটার পর কোরান তেলাওয়াত ও জাতীয় সঙ্গীত বাজানোর মধ্য দিয়ে আমার টিভি দর্শন অধিবেশন শেষ করতাম।" ......হা হা হা ...ইউ আর সুপার ফানি :)

আমি ধুলোর ঠিক উল্টো । বাংলাদেশে থাকতে টিভি খুবই কম দেখা হতো । নেশা ছিল বই পড়া আর মিউজিক । রাত জেগে বই পড়ে সকালে ঘুমাতে যেতাম এতোটাই নেশা ছিল তখন ।

এখানে টিভি খুব দেখা হয় । নিউজ মাস্ট প্লাস এদের কন্টেন্ট গুলো আমার অনেক ভালো লাগে । সোশাল মিডিয়া থেকে অনেক দূরে থাকি । ২০০৬ থেকে ফেসবুক ইউজ করেছি কিন্তু একটা সময় চারদিকে এটার মিসইউজ দেখে বিরক্ত হয়ে সব বন্ধ রেখেছি জাস্ট ইনবক্স করি ফ্যামিলি এন্ড ফ্রেন্ডস দের সাথে । ইউটিউবে আসক্তি আছে ।

আমি বিশেষভাবে এই ভিডিওটি খুঁজছিলাম নায়িকাটার পরিচয় জানার জন্য
জানা গেছে ?

০২ রা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:৫২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আমি বিশেষভাবে এই ভিডিওটি খুঁজছিলাম নায়িকাটার পরিচয় জানার জন্য
জানা গেছে ?
- না, জানা যায় নি এখনো। কিছু গানে কয়েকজন মডেল ও অ্যাক্ট্রেসের ছবি খুঁজতে যেয়ে একজনের চেহারা দেখে মনে হচ্ছিল ঐ গজল ভিডিও'র মডেল। এজন্য ওটা খুঁজছিলাম। এখন ভিডিওটি দেখে মনে হলো- না, এ মডেল আর যাকে মনে করেছিলাম- দুজনে এক নন।

এই উপমহাদেশে ডিশ চ্যানেল আসার পর যেন বিরাট এক বিপ্লব ঘটে গেল মিউজিক ভিডিও'র ক্ষেত্রে। যে-কোনো গানের পিকশচারাইজেশন একটা নতুন মাত্রা পেল। জগজিৎ সিং-এর গজলের ভিডিও মেকিং-ও একটা নতুন মাত্রা যোগ করলো। ভিডিও মেকিং-এর উপর আমার একটু নেক বা ঝোঁক থাকায় বোঝার চেষ্টা করতাম কোন ভিডিওটি কীভাবে বানানো হয়েছে।

আগে গান শোনা হতো। আমি গান শুনেই অভ্যস্ত। এখন গান শোনা হয় কম, দেখা হয় বেশি :) রাগ প্রধান গান আমি বেশি শুনি। ওটার ভিডিও কোনো ফ্যাক্টর না। আমি এখন কাজ করছি, ইউটিউবে গান বাজছে, সামনে টিভিও চলছে :)

আমার টিভি দেখার ব্যাপারে বন্ধু ও কলিগ সার্কেলে অনেক মুখরোচক গল্প চালু আছে, যেগুলো আমার কানেও আসে, এবং আমিও মজা পাই :)

১৮| ০২ রা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:৫৪

নতুন বলেছেন: https://www.instagram.com/p/B-Z0eo_AgkM/

বাদশা বলেছেন তিনি খোজার চেস্টা করেছেন এবং তখন খুজে পাইন নাই্। মানুষের কমেন্টের মাধ্যমে তিনি জেনেছেন। এখন বাউলের সাথে দেখা করে তাকে সাহাজ্য করতে চান।

০২ রা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:৩৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আমিও অল্পবিস্তর, খুব ছোট্ট গণ্ডির মধ্যে নিতান্ত শখের বশে জনপ্রিয় ও ভালো গান সংগ্রহ করি, সেগুলোর ভিডিও ফটোমিক্স করি, কিন্তু একটা গানের গীতিকার, সুরকার, মূল শিল্পী এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য না পাওয়া পর্যন্ত সেটা রিমেইক করি না। বাদশাহ'র মতো লোক এবং সনি মিউজিক ইন্ডিয়ার মতো প্রতিষ্ঠান যদি এটা বলে তারা খুঁজে পায় নি, সেটা খুব হাস্যকর হবে। আজকালকার ডিজিটাল যুগে এসব একেবারে হাতের মুঠোয়। কোনো মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির পরিধি আরো বড়ো ও বিস্তৃত। পুরোনো মিউজিক কোম্পানিগুলোতে খোঁজ নিলেই পাওয়া যেত। যাই হোক, বাদশাহ নিজের ভুল বুঝতে পেরেছেন। মূল শিল্পী, গীতিকার, সুরকার ও অন্যান্য কুশীলবকে তাদের যোগ্য সম্মান/সম্মানী দিয়ে ব্যাপারটা মিটমাট করে ফেললেই ভালো।

তথ্যের জন্য ধন্যবাদ ভাই। শুভেচ্ছা।

১৯| ০২ রা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪১

আখেনাটেন বলেছেন: গতকাল প্রথম আলোতে কাহার সাহেবের সাক্ষাৎকার পড়লাম। বেচারা।

গোটা দুনিয়াই এখন চোর-জোচ্চোরদের রাজত্ব।

০২ রা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:২৮

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: গান, গল্প, কবিতা- চুরি তো খুব স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে গেছে :( তবে, উপরে নতুন-এর কমেন্ট থেকে কিছুটা ভরসা পাচ্ছি- বাদশা ব্যাপারটা অনুধাবন করেছেন, এবং গীতিকারকে সাহায্যও করতে চাইছেন। এটা ভালো দিক। এটাও স্বীকার করতে হবে যে, বাদশাহ'র কারণেই গানটা আবার প্রচারণায় এলো, এবং রতন কাহার ও স্বপ্না চক্রবর্তীর নাম মানুষ নতুন করে জানলো। বাদশাকে দোষারোপ করার সাথে সাথে তাকে এখন এর জন্য কিছুটা প্রশংসাও করতে হবে।

ধন্যবাদ আখেনাটেন ভাই কমেন্টের জন্য।

২০| ০২ রা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১৮

মলাসইলমুইনা বলেছেন: খলিল ভাই,
অনেক পুরোনো একটা গান । কত শুনেছিলাম ছোট বেলায় বা পুরোটা কখনো শুনেছিলাম কিনা সেটাও মনে নেই । কিন্তু আপনার লেখাটা পড়ে বেরসিকের মতো একটা কথা মনে হলো --গেন্দা মানে গাঁদা ফুল | ওটাতো শুধু হলুদ রঙের হয় তাই না ? গাঁদা ফুল যে লাল হয় সেটাইতো আমার জানা ছিল না ! ব্লগের পাগলা জগাইকে খবর দিনতো কিছু লাল গাঁদা ফুলের ফটো নিয়ে হাজির হতে !সময় করে পরে কখনো শুনবো ।

০২ রা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:২৪

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: একেই বলে জিনিয়াস!! গেঁদা ফুল বা 'হলুদ গাঁদার ফুল' সারাজনম হলুদ দেখে এলাম, অথচ গানে কবি গাহিয়াছেন 'লাল গেঁন্দা ফুল'- মনে তো কোনদিন এই প্রশ্নের উদয় হয় নাই- গেঁদা ফুল আবার লাল হইল কবে থেকে? :) :) আপনার কমেন্টের পর গুগুলে খুঁজে অবশ্য কিছু লাল গাঁদা ফুলও পাওয়া গেছে :)

হ্যাঁ, পাগলা জগাই-ই এর সঠিক সমাধান দিতে পারবেন। আপাতত নীচের ছবিটাই দিয়ে রাখলাম :)

২১| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:৩০

মিরোরডডল বলেছেন: আমি ঠিক এটাই ভেবেছিলাম ধুলো তাঁর ভিডিওর জন্য গজলের এই অ্যাক্ট্রেসকে হয়তোবা খুঁজছে ।
নাহ এদের কাউকেই চিনিনা ।
But I found her for Dhulo. Here you go.

Richa Pallod, she's cute.

০৩ রা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:০১

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ওহে ডুলু, আমাদের ধুলো খুব অবাক হয়েছে আপনার ক্যারিশম্যাটিক দক্ষত দেখে। আপনিও একজন অসাধারণ জিনিয়াস বটে

২২| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:৩৫

মিরোরডডল বলেছেন: অসাধারণ ? আবার জিনিয়াসও ? একটু ওভারডোজ হয়ে গেলো না ধুলো !!!
আর সে কারনেই আমার ‘দুঃখ’ গানটা এখনও খুঁজে পায়নি । এতো জিনিয়াস :(

এদিকে কি হয়েছে । চাঁদগাজী বলেছিলেন সিডি স্টোর বলতে পারবে হয়তো ।
আই লাইক ইট এন্ড নকড ফিউ স্টোরস ইন আজিজ সুপার মার্কেট এন্ড এলিফ্যান্ট রোড ।
কোন লাভ হয়নি । যেটা হয়েছে মিডল অভ দা নাইট আমাকে কল করেছে । ঘুম ভেঙে ফোন রিসিভ করে দেখি সেই সিডি স্টোর ফর নো রিজন কলিং মী । আমি বললাম ডু ইউ হ্যাভ এনি আইডিয়া আপনি কোনসময় আমাকে কল দিচ্ছেন !
আমি অবাক !

০৩ রা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৮:৪৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: যাকে দেখে আমি ঐ গজল ভিডিও'র মডেলকে খুঁজছিলাম, তার ছবি নীচে দেখুন।



Asin Thottumkal

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.