নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

হাবিবুর রহমান জুয়েল

হাবিবুর রহমান জুয়েল

জীবন নদীর বাঁকে বাঁকে দুঃখ কতো লুকিয়ে থাকে কেউ তো জানে না....

হাবিবুর রহমান জুয়েল › বিস্তারিত পোস্টঃ

আপনিই আপনার স্বপ্ন পূরণের পথে প্রথম বাঁধা...

২৪ শে নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:৪০

দুদিন আগে এক কাছের আত্মীয় বলছিলেন, "তোমার তো অনেক জানা শোনা আছে দেখ দেখি দুয়েকটা প্রশ্ন-ট্রশ্ন জোগাড় করা যায় কি না। চারদিকে তো প্রশ্ন ফাঁসের খবর শুনছি খুব।"

তার ছেলে এবার পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা দিচ্ছে।

জিজ্ঞেস করলাম, "আপনি ওকে লেখা পড়া শেখাচ্ছেন কেন?"

অন্য আর দশজনের মতো তিনিও তার ছেলেটাকে নিয়ে একগাদা স্বপ্নের কথা বললেন।

তার কথা শুনে হাসলাম আমি। বললাম, "আপনি চান আপনার ছেলে জীবনে বড় কিছু হওক, সফল মানুষের মতো মানুষ হয়ে আপনার স্বপ্ন পূরণ করবে। আবার আপনিই তাকে এই শিশুকালে অনৈতিক হতে শেখাচ্ছেন! এরপর সে প্রতি বছর আশায় থাকবে তার বাবা তাকে পরীক্ষার আগে যেভাবে হওক প্রশ্ন ম্যানেজ করে দিবে। আপনি না দিলে সে অন্যভাবে প্রশ্ন খুঁজবে। সে আপনার স্বপ্ন পূরণ করবে কিভাবে, আপনিই তো আপনার স্বপ্ন পূরণের পথে প্রথম বাধা।"

কিছু সময় ভেবে বললেন, "তোমার কথাই তো ঠিক! এ বিষয় তো আমার মাথায় ঢুকে নি! বাদ দাও ওসব প্রশ্ন-ট্রশ্ন খোঁজা-খুঁজি।"

আমরা প্রতিটা মানুষ শিক্ষামন্ত্রীকে গালাগাল করছি। আমরা দেখতেই পারছি, তিনি এটি বন্ধ করতে পারছেন না। ধরুণ দুদিন পর তিনি পদত্যাগ করলেন। তার জায়গায় নতুন কেউ আসলেই এর সমাধান হয়ে যাবে!

কোনদিনও হবে না, যতদিন না আমরা নিজেরা আমাদের নৈতিকতার পরিবর্তন করবো।

তাহলে পৃথিবীর অন্য দেশগুলো কিভাবে পারছে?

পারছে এ জন্য যে, কেন না এ ক্ষেত্রে তারা আমাদের মতো এতটা নির্বোধ ও নীতিহীন নয়। তারা শুধু সন্তানের গালভরা রেজাল্ট চায় না, চায় তারা প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে উঠুক। প্রকৃত মানুষ হয়ে বেড়ে উঠুক।

একজন বাবা কিংবা মা কী করে তার পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া ছেলে-মেয়ের জন্য ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্র খুঁজে বেড়ান ভেবে পাই না। আমি তো বলবো শুধু শিক্ষামন্ত্রীকে গালাগাল না করে আগে নিজেদের নৈতিকতা ঠিক করুন।

যে দেশে শিক্ষকদের একটা বড় অংশ অসৎ ও নীতি বিবর্জিত, যারা কিনা তাদের কাছে প্রাইভেট পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের প্রতিটা পরীক্ষার আগে হুবুহু প্রশ্ন লিখে হাতে তুলে দেন। বলেন, "শুধু এগুলা এগুলা পড়বা, বাড়তি পড়ে সময় নষ্ট করো না।"

যে দেশে বাবা-মা অনৈতিকভাবে সন্তানদের হাতে জীবনের শুরুতেই ফাঁস হওয়া প্রশ্ন তুলে দিতে এক কোচিং থেকে আরেক কোচিং এ ঘুরে বেড়ান, সে দেশে একজন শিক্ষামন্ত্রী ফাঁস হওয়া প্রশ্নের জন্য শুধু একাই দায়ী নন।

দায়ী আমরা সবাই।

...নিজেদের মতো অযোগ্য আর অসৎ হিসেবে আপনার ছেলে-মেয়েকে গড়ে না তোলার জন্য অনুরোধ রইলো প্রতিটা বাবা-মায়ের প্রতি।





মন্তব্য ২ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (২) মন্তব্য লিখুন

১| ২৪ শে নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১:২১

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: চেষ্টা করা উচিত সৎ থাকার। তবে চোখের সামনে ফাঁসকৃত প্রশ্ন পাওয়া যাবে আর কেউ সেটার সুযোগ নিবে না এতটা আশা কি করা যায়?

২| ২৬ শে নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৩:২০

গড়ল বলেছেন: পড়ালেখা কি শুধুমাত্র জিপিএ পাওয়ার জন্য না কিছু শেখার জন্য? আর পরীক্ষা টা কি কোন কম্পিটিশন না ইভাল্যুয়েশন? অভিভাবকদের এই দুইটা জিনিষ এর উত্তর ঠিক করে তারপর সন্তানদের সেভাবে গাইড করা উচিৎ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.