নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সবার অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে আমি কোন ব্লগার নই মন চায় তাই লিখি তথ্য-উপাত্ত সবার সাথে শেয়ার করি ।ধন্যবাদ

তানজীর আহমেদ সিয়াম

তানজীর আহমেদ সিয়াম

তানজীর আহমেদ সিয়াম › বিস্তারিত পোস্টঃ

কুড়ানো ( পর্ব ৪৯ )- শুরুতেই বলে দিলেন শেষ কথা

২৩ শে জুন, ২০১৯ সকাল ১১:৫৫



মার্চের ৩ তারিখ সফল হরতাল, দেশের সর্বস্তরের জনগণ একতাবদ্ধ। পদ্মা মেঘনা যমুনায় ঢেউ উঠেছে, বিক্ষোভ!
লাল সবুজের পতাকায় সূর্যোদয়, সোনার বাংলা। সাতই মার্চ রেসকোর্সে জনসভা, জাতি অপেক্ষায় বঙ্গবন্ধু কি বলবেন।
প্রতিদিন মিছিল, যারা পশ্চিম পাকিস্তান থেকে এসেছিলেন, পার্লামেন্টে যোগ দিতে তেজগাঁ বিমান বন্দর দিয়ে ফিরে গেলেন।
একটি ক্রান্তিপর্ব অতিক্রম করছে, দেশ ও জাতি। আমি সেই সময়ে টগবগে যুবক, রক্তে বইছে স্বাধীনতা।

শুরুতেই বলে দিলেন শেষ কথা।

আপনারা সবই জানেন এবং বোঝেন, এ'কথা দিয়েই শুরু করলেন সেদিনের ভাষণ, এটাই তো সেদিনের মুল কথা বাংলার জনগণ বুঝে গেছে, কি করতে হবে, জেনে গেছে পশ্চিমাদের মনোভাব।
এতোদিনের নিপীড়ন, শোষণ, নির্যাতনের ফলাফল জানিয়ে দিয়েছে ব্যালটে।
এটা মেনে নেবে কিভাবে, ভুট্টো কোন ভাবেই শেখ মুজিবের শাসন মেনে নিবেন না, ওরা এক হয়ে গেলো।
তাইতো সংসদ ডেকে দুদিন আগে স্থগিতাদেশ, অনির্দিষ্ট কালের জন্য, অনিশ্চিত ভবিষৎ।
অনেকটা ভারত ভাগের মতোই, ক্ষমতার লোভ, আবার দেশভাগ।
বাংলার জনগণের রায় মেনে নিবে না, এটাই প্রতিয়মান।

তিনি এলেন, সেই আটচল্লিশ সালেই ভেবেছিলেন নূতন দেশের স্বপ্ন, বাহান্ন, চুয়ান্ন, বাষট্টি, উনসত্তর, সত্তুরে পেলেন ঐতিহাসিক রায়।
সবাই জানে বোঝে, এবার ক্ষমতাসীন হবে বাংলা, এটাই গণতন্ত্রের মূলকথা, ঠিক তখনি চলছে, ইয়াহিয়া ভুট্টোর চক্রান্ত।
তাইতো বলেন,
'ভায়েরা আমার, আজ দুঃখ ভরাকান্ত মন নিয়ে আপনাদের সামনে এসে হাজির হয়েছি, আপনারা সবই জানেন এবং বোঝেন'।
হৃদয়ের সবটুকু ভালোবাসা দিয়ে, বাংলার মানুষকে বুঝিয়েছেন, জাগিয়েছেন দেশপ্রেম ও ভালোবাসা। আমরা নূতন করে শিখেছি বাংলা আমার দেশ, বাংলা আমার ভাষা।

সম্বোধনেই বলে দিলেন শেষ কথা।
জানিয়ে দিলেন কর্মসূচী, শেষ করলেন।
এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।

সেদিন রেসকোর্সে সর্বস্তরের জনগণ এসেছিলো, স্বাধীনতার কথা জানতে।
আমি শুনেছি কুমিল্লায়, সাত কোটি লোকের বাংলাদেশের প্রায় সবাই শুনেছে সেই ঐতিহাসিক ভাষণ, রেডিও টেলিভিশনে।
দিলেন স্বাধীনতার ঘোষণা, সংগ্রাম করে অর্জন করতে হবে।

স্বপ্নাহত

উত্তাল মার্চের প্রতিটা ক্ষণকাল নির্মান করছে, নূতন স্বপ্ন।
স্বপ্নাহত জাতি নূতন স্বপ্নলোক প্রজ্বলিত।
আবার গণসংগীত, গীতিনাট্য, কবিতা মিছিল মিটিং চলছে চলবে।
টাউনহল, সুইটহোম, সিটি সুইটস্, পেড়া ভান্ডার, খেলার মাঠ সবখানে একই কথা, স্বাধীনতা স্বাধীনতা।
'আমরা করবো জয়, আমরা করবো জয়'
জয় বাংলার জয় হবেই।

আমরা হারিনি কখনো।

শওকত
#যে_স্মৃতি_ধূসর_হয়নি

মন্তব্য ১২ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১২) মন্তব্য লিখুন

১| ২৩ শে জুন, ২০১৯ সকাল ১১:৫৮

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: খুবই ভালো লেগেছে। চমৎকার।

২৩ শে জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৯

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: ভালোবাসা :)

২| ২৩ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:৫৩

সোনারবাংলা২০১৯ বলেছেন: ভালো লিখেছেন।

২৫ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৯:৩৭

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: ধন্যবাদ :)

৩| ২৩ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১:২১

রাজীব নুর বলেছেন: বঙ্গবন্ধুকে যখন হত্যা করা হয় তখনই প্রতিটা বাঙ্গালীর কপাল পুড়েছে।

২৩ শে জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৯

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: বাঙ্গালীরা নিজের পায়ে নিজে কুড়াল মারেনি বরং কুড়ালের কাছে গিয়ে নিজের পা মেরেছে :(

৪| ২৩ শে জুন, ২০১৯ বিকাল ৩:১৯

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: স্বাধীনতা এসেছে, মুক্তি যে আসেনি ব্রো

২৫ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৯:৩৮

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: আমরা নিজেরাই মুক্তি গ্রহণ করি নাই ব্রো :)

৫| ২৩ শে জুন, ২০১৯ বিকাল ৫:২৩

চাঁদগাজী বলেছেন:

১৯৭১ সালের মার্চের মানুষের বিপ্লবী ভাবনা অনুধাবন করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন শেখ সাহেব

২৩ শে জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৬

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: দয়া করে একটু বুঝিয়ে বলবেন কি স্যার :)

৬| ২৪ শে জুন, ২০১৯ বিকাল ৩:০৫

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: একটি জ্বালাময়ী ভাষণ ছিলো। বিপ্লবী নেতার বিপ্লবী সংগ্রামী ভাষণ।

২৫ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৯:৩৬

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: গায়ের লোম দাঁড়িয়ে যায় :)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.