নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সবার অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে আমি কোন ব্লগার নই মন চায় তাই লিখি তথ্য-উপাত্ত সবার সাথে শেয়ার করি ।ধন্যবাদ

তানজীর আহমেদ সিয়াম

তানজীর আহমেদ সিয়াম

তানজীর আহমেদ সিয়াম › বিস্তারিত পোস্টঃ

লেখাটা খুব সময়োপযোগী মনে হল, তাই শেয়ার করলাম।

২৩ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১১:২০




"প্রথমে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। সচেতনতা মুলক পোষ্টটি কালেক্টেড।
বিয়ের খাবার টেবিল। আমার পাশে দুইটা বাচ্চা বসা, সাথে মা। একটার বয়স ৭-৮ আরেকটার বয়স ৪-৫। মজার বিষয় হচ্ছে দুইজনের প্লেটে খাবার পরিমান একজন পুর্নবয়স্ক মানুষের খাবার সমান। খেয়াল করলাম, প্লেটে যা খাবার আছে তার চার ভাগের এক ভাগও বাচ্চাগুলা খায়নি। পুরাটা অপচয়ের খাতায়! এটা না হয় বাচ্চা, বয়স্ক বিশেষ করে মহিলাদের অবস্থা এর থেকে বেশি ভালো ছিল না। একটা ভয়ঙ্কর সাইকোলজি কাজ করে আমাদের। যে টাকার গিফট দিয়েছি তা উদ্ধার করে ছাড়ব। উদ্ধার করতে গিয়ে এই ভয়াবহ অপচয়। গত বছর এক প্রোগ্রামে হোটেল রেডিসনের খাবার টেবিলে যা দেখলাম তা আমাকে আবার ভাবিয়ে তুলে। আমার টেবিলের বাকি ৭ জন কেউই খাবারের অর্ধেকও খায়নি। সমাজের শিক্ষিত লোকেরা যদি এই ভাবে অপচয় করে তাহলে কাকে কি বলব? প্লেটের খাবার শেষ করাটা যদি খ্যাত পর্যায়ের হয় তাহলে নিঃসন্দেহে আমি সবচেয়ে বড় খ্যাত। আসলে খারাপ লাগে দেখে এই কথা বলছি। বড় ধরনের সচেতনতার প্রয়োজন আছে। এই সমাজের কিছুটা বাস্তব চিত্র আর খুব নিন্ম শ্রেণীর মানুষের অবস্থা দেখে বড় হয়েছি। বাড়িতে মা-চাচিরা ভাত রান্না করার পরে দুপুরে বস্তির মেয়েগুলা প্রতিদিন বাড়ির সামনে পাতিল নিয়ে বসে থাকত। না ভাতের জন্য না, ভাতের মাড়ের জন্য!

সারা বছর বিয়ে, বৌভাত, গায়েহলুদ, বার্থডে, ম্যারেজডে, দাওয়াত, মেজবান, আকিকা, মিলাদ, শ্রাদ্ধ, কুলখানি, কোরানখানি, চল্লিশা, সেমিনার, ওয়ার্কশপ, মাহফিল, রাজনৈতিক সভা রমজানে আরেকটা যোগ হয় ‘ইফতার পার্টি”। হয়ত বলবেন ‘আমার টাকা আছে আমি অপচয় করি, তোর সমস্যা কি?’

আমি একটা গল্প বলি। একবার ভারতের টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান রতন টাটা বন্ধু সহ জার্মানিতে বেড়াতে গেলেন। একটা রেস্তুরেন্টে ঢুকে তারা খাবার খেয়ে এক-তৃতীয়াংশ না খেয়ে বের হয় যাচ্ছিলেন। রেস্টুরেন্টে বসা কিছু বৃদ্ধ মহিলা তাদেরকে বললেন খাবারগুলো অপচয় না করতে। টাটার এক বন্ধু জবাব দিলেন, “ আমার টাকা দিয়ে কিনেছি, আমি খাব না; আপনাদের কি?” এক বৃদ্ধা রাগান্বিত হয়ে ফোন উঠিয়ে কল দিলেন আর কিছু সময়ের মধ্যে উনির্ফম পরা সোশাল সার্ভিসের এক লোক হাজির। সব শুনে টাটার দলকে ৫০ ইউরো জরিমানা করে বললেন, "Order what you can consume, money is yours but resources belong to the society. There are many others in the world who are facing shortage of resources. You have no reason to waste resources."
আমরা যে ভাবে খাবার অপচয় করি তা রীতিমত এক ভয়াভহ দৃশ্য। যেখানে আমাদের প্রায় ছাব্বিশ শতাংশ (২৬%) মানুষ দারিদ্র সীমার নিচে সেখানে এই রকম অপচয় আমাদের জন্য বিলাসিতা ছাড়া আর কিছুই না! আমি আবারও বলছি, “Money is yours but resources belong to the society. You have no right to waste resources.”

মন্তব্য ৩০ টি রেটিং +৪/-০

মন্তব্য (৩০) মন্তব্য লিখুন

১| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১১:৩১

ইসিয়াক বলেছেন: ঠিক লিখেছেন।ভালো লেগেছে

২৩ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১১:৩২

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই :)

২| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১১:৪৬

বিষন্ন পথিক বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ, খুবই ভালো পোস্ট, যদিও কালেক্টেড

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০০

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: ধন্যবাদ আপনার মুল্যবান মন্তব্যের জন্য :)

৩| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ দুপুর ১২:০৮

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: শুধু খাবারদাবারে নয়, গাড়িঘোড়া কিনে গুরুত্বপূর্ণ রোডে ব্যবহার করতেও সচেতন হতে হবে।

রাস্তা প্রাইভেট কারে জ্যাম হয়ে যায়, এগুলোতে যাত্রী সংখ্যা দুইজনের বেশি দেখা যায় না।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০১

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: একটা জিনিস খেয়াল করবেন, বিত্তবানরাই বেশী অপচয় করে :(

৪| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ দুপুর ১২:২৩

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
খাবার অপচয় করা মহাঅন্যায়।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০৩

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: খাবার হোছে আল্লাহর বিশেষ নেয়ামত, আর আমরা বেকুব মানুষরা অপচয় করে সে নেয়ামত নষ্ট করছি :(

৫| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ দুপুর ১:৩৯

নীল আকাশ বলেছেন: এই পোস্টের জন্য আমার পক্ষ থেকে স্যালুট আপনাকে!
আমাদের সবার এই বিষয়ে সচেতন হবার অবশ্যই প্রয়োজন আছে।
ধন্যবাদ আপনাকে।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০৪

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: আপ্নাকেও অশেষ ধন্যবাদ :)

৬| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ দুপুর ১:৩৯

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: অনেক সুন্দর একটি পোস্ট।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০৫

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: আপ্নাকেও অশেষ ধন্যবাদ :)

৭| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ দুপুর ১:৪২

নতুন বলেছেন: এই বোধ যার আছে সে অপচয় করেনা।

একটা প্লেট খাবার নিয়ে একটু খেয়ে বাকিটা ফেলে দিতে হয়তো ১০ মিনিট সময় লাগে...

কিন্তু এই খাবার গুলি ফলাতে কয়েক মাস সময় লাগে সেটা অনেকেই বোঝে না। আর অনেক মানুষই আছে যারা এই খাবার খেতে পারছেনা সেটা চিন্তা করেনা।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:১১

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: এই বোধ কি আমাদের আছে ?!

৮| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ দুপুর ২:৫৬

রাজীব নুর বলেছেন: শেয়ার করে ভালো করেছেন।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০৫

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: আপ্নাকেও অশেষ ধন্যবাদ :)

৯| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: এই বিষয়টা আমিও খেয়াল করেছি

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০৬

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: আপ্নাকেও অশেষ ধন্যবাদ :)

১০| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৬

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: খুবই সময়োপযোগী ও প্রাসঙ্গিক পোস্ট। খাবারের অপচয় ছাড়াও আমরা আরও অনেক কিছুর অপচয় করি। পানির মেশিন অন করে ওভারহেড ট্যাঙ্ক ফুল হয়ে যাওয়ার পরেও মেশিন বন্ধ করি না। এদিকে অহেতুক পানি ওভার ফ্লো করতেই থাকে। আমার বাড়িতেই এরকম হয়। আমি বাইরে থেকে এসে এরকম দেখলে খুবই রাগারাগি করি। কিন্তু পরিবারের সদস্যদের তো আর খোঁড়া যুক্তির অভাব নেই।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:১২

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: আমার সাথেও সেম ঘটনা ঘটে পারি :(

১১| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৮

মা.হাসান বলেছেন: ভালো লিখেছেন।
আমি বিয়ে বাড়িতে গেলে পয়সা উসুল করার জন্য খাই না, যতটা প্রয়োজন ততটা খাই। তবে কোন কারনে বুফেতে নিজের পয়সায় খেতে হলে আগে এক বেলা না খেয়ে থাকি এবং যা খাই তার পর আরো এক বেলা না খেলেও চলে। তবে বুফেতেও নষ্ট করিনা।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:১৩

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: অপচয় কারী শয়তানের ভাই :(

১২| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:৫৪

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: কোথাও কোনো দাওয়াতে গেলে এই ধরনের দৃশ্য আমিও দেখি সর্বত্রই দেখি। এই সমস্ত অনুষ্ঠানের মানুষ যেন অপচয় এর প্রতিযোগিতায় নামেন।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:১৫

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: তাদের চেহাড়া কি কখনো দেখেছেন, অপচয় করে তারা কেমন যেন এক তৃপ্তি পায় :(

১৩| ২৩ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ৮:৫৫

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: গণ শব্দটি শুনলে আমাদের অনেকেরই মনে হতে পারে যে, এখানে হাজার হাজার বা লাখ লাখ লোক জড়িত। বিশাল জনতার বাঁধভাঙ্গা জোয়ার বুঝি।

আসলে সব গণই গণ নয়। সব গণ এর ক্ষেত্রে হাজার হাজার লোক অংশ নেয় না। সামপ্রতিক কিছু ভিডিও এবং আলোড়ন সৃষ্টিকারী কিছু খবর দেখে আমার কাছে এটাই মনে হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমে সামপ্রতিক সময়ে বহুল ব্যবহৃত শব্দ হচ্ছে- ১। গণধর্ষণ ২। গণপিটুনী।
দেখে গেছে- এখানে অযথাই গণ অর্থাৎ জনগণের বদনাম করা হচ্ছে। এখানে জড়িত থাকে খুব বেশী হলে ৩ কি ৪ জন কালপ্রিট। তাই এই সব ক্ষেত্রে গণ শব্দটি কে ব্যবহার করে শব্দটির প্রকৃত অর্থ নষ্ট করা হচ্ছে। যে ৩/৪ জন অমানুষ ধর্ষণ অপকর্মে জড়িত থাকে তারা সমাজের আগাছ, ক্যান্সার। রাষ্ট্রের উচিত এদেরকে উপড়ে ফেলা। তাহলে সমাজ কলুষ মুক্ত থাকবে।

সম্প্রতি আরেকটি গুজব চালু হয়েছে। সেই সাথে চালু হয়েছে গণপিটুনী। এই যে গুজব একখানে চালু করে দিল যে, পদ্মা সেতুকে নাকি মানুষের ( শিশুদের) মাথা লাগবে। কেননা, পদ্মার পানির নিচে এক বিরাট দানব বাস করে। সে চায়না পদ্মা সেতু হোক। তাই সে পদ্মা সেতু তৈরী হতে দেবে না। তাকে মানুষের মাথা দিলে সে আরাম করে খেয়ে ঘুমাবে । এই সুযোগে তড়িঘড়ি করে পদ্মা সেতু তৈরী হয়ে যাবে ।
বাংলার মানুষ এই গুজুব লুফে নিল। আতংক ছেয়ে গেল সারা দেশে। প্রাণ হারাতে শুরু করলো অনেক অসহায় সাধারণ নিরীহ মানুষ। অহেতুক ছেলেধরা/গলা কাটা ইত্যাদি সন্দেহে মানুষ পিটিয়ে মেরে ফেলা শুরু হয়ে গেল বাংলাদেশে।
গণপিটুনীতে কিন্তু হাজার হাজার মানুষ অংশ নেয় না। এই সব ভিডিও খেয়াল করে দেখলে দেখা যায়- খুব বেশী হলে ৩ , ৪ জন হত্যাকান্ডে অংশ নেয়। বাকি সবাই দাড়িয়ে মজা দেখে। কেউ ছবি বা সেলফি তুলে, কেউবা ভিডিও করে।
যে ৩/৪ জন অমানুষ গণপিটুনী নামক অপকর্মে জড়িত থাকে তারা সমাজের আগাছ, ক্যান্সার। রাষ্ট্রের উচিত এদেরকে উপড়ে ফেলা। তাহলে সমাজ কলুষ মুক্ত থাকবে।
পাপ ও পাপী উভয়কে সমাজ থেকে বিদায় করতে হবে। পাপ ও পাপী উভয়কে ঘৃণা করতে হবে।

নিষ্পাপ মানুষ আর পাপ বর্জিত দেশ হোক সকলের ব্রত।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:১৬

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: মন্তব্যটি ++

১৪| ২৪ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১০:১৩

দৃষ্টিসীমানা বলেছেন: আমাদের ধর্মেও অপচয় করা নিষেধ । শিক্ষণীয় পোষ্টের জন্য অনেক ধন্যবাদ ।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ সকাল ১০:০৮

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: আপ্নাকেও অশেষ ধন্যবাদ :)

১৫| ২৫ শে জুলাই, ২০১৯ বিকাল ৩:০৯

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: যথার্থ বলেছেন।

২৫ শে জুলাই, ২০১৯ বিকাল ৩:১৭

তানজীর আহমেদ সিয়াম বলেছেন: যতটুকু গ্রহণ করতে পারবেন ঠীক ততটুকুই নিবেন :)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.