নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

চূড়ান্ত রকম ফাঁকিবাজ একজন মানুষ আমি!

ফয়সাল রকি

Know thyself.

ফয়সাল রকি › বিস্তারিত পোস্টঃ

পাঠ প্রতিক্রিয়া: শবনম

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১১:৩০



বইয়ের নাম: শবনম
লেখক: মহিউদ্দিন মোহাম্মদ যুনাইদ (ব্লগার: নীল আকাশ)
প্রকাশক: এক রঙ্গা এক ঘুড়ি
মুদ্রিত মূল্য: ১৬০ টাকা
অনলাইন: রকমারী লিংক

একজন শুভ ও তার প্রেমকে ঘিরেই উপন্যাসটি এগিয়ে চলে। প্রেমিকা শবনমের সাথে ফোনালাপ দিয়েই উপন্যাসের শুরু যেখানে জানা যায় যে, শবনম শুভকে পছন্দ বা অপছন্দ করে না কারণ সে অন্য একজন মানুষকে পছন্দ করে; আর শুভ বারবারই প্রেমিকার কাছে ভালোবাসার দাবি জানায় কিংবা অপেক্ষা করে ভাগ্যের শিকে ছেঁড়ার! কিন্তু খুব একটা লাভ হয়না তাতে। তারপর ফ্রাশব্যাক পর্বে প্রেমিকার প্রথম সাক্ষ্যাৎ লাভের ঘটনা জানা যায়, যেখানে দেখা যায় প্রথম দেখায় শুভ অপরূপা সুন্দরী শবনমের প্রেমে পড়ে। এভাবেই এগিয়ে চলে বর্ণাত্মক রীতিতে লেখা একটি উপন্যাস। পুরো রচনার অনেক অংশ জুড়েই রয়েছে শবনমের বর্ণনা, যেখানে অন্যান্য পার্শ্ব-চরিত্রগুলো তুলনামূলক ভাবে গুরুত্ব কম পেয়েছে। লেখক সাবলিল ভাবে সহজ ভাষায় লিখে গেছেন, তবে ব্যক্তিগত ভাবে বলবো- কিছু কিছু অংশে বর্ণনা একঘেয়েমিপূর্ণ মনে হয়েছে। আবার কিছু কিছু অংশে মনে হয়েছে, খানিকটা অংশ বোধহয় ছেঁটে ফেলা হয়েছে, যার উপস্থিতি পরিস্থিতি দাবী করে।

উপন্যাসটিতে যথেষ্ট নাটকীয়তা রয়েছে, অনেকটা সিনেমার মতো। এক্ষেত্রে বাস্তববাদী পাঠকদের পছন্দ নাও হতে পারে, তবে আমার কাছে মন্দ লাগেনি। গল্পে একসময় আমরা দেখি শবনমের বিয়ে হয়ে যায় আর প্রেমিক শুভ সবকিছু ভোলার চেষ্টা করে, নতুন জীবন শুরু করে এবং বিসিএস পরীক্ষা দিয়ে পুলিশের চাকরি পায়! আরো কিছু সময় পরে ঢাকায় পোস্টিং হয় এবং পাপে নিমজ্জিত শবনমের স্বামীকে হাতে নাতে ধরে। শুরু হয় আরেক অধ্যায়। শেষটাতেও যথেষ্ট নাটকীয়তা রয়েছে, হয়তো শবনমের সাথে শুভর মিলন হয় কিংবা হয় না।

ভাষার ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু কিছু ইংরেজি শব্দ দৃষ্টিকটু মনে হয়েছে। যেমন, পার্পল কালারের ফুলস্লীভ ড্রেস পড়া অপূর্ব সুন্দরী একটা মেয়ে সিঁড়ি দিয়ে গটগট করে নীচে নেমে আসছে আর... কিংবা কত গভীর অতল গহবরে যে আমি আস্তে আস্তে ডুবে যাচ্ছি সে শুধু আমিই জানি! ওহ, গড! পেইন, সো ডীপ পেইন... কিংবা ১৫ পাউন্ডের আয়রণ হ্যামার!

প্রুফ রিডিং এর জন্য আরেকটু বেশি সময় দেয়া দরকার ছিল, বেশ কিছু বানান ভুল আছে। আরেকটা বিষয়, বুক মেকআপ-এর ক্ষেত্রেও গুরুত্ব কম দেয়া হয়েছে। যেমন, পঁয়ত্রিশ তম পৃষ্ঠায় দেখা যায় উপরের প্যারার লাইন-স্পেসিং কম আবার নিচের প্যারায় বেশি কিংবা পুরা বই এ লেখা 'জাস্টিফাইড' থাকলেও আটাত্তর তম পৃষ্ঠায় 'লেফট এ্যালাইন' করা!

প্রচ্ছদ সম্পর্কে বলতে গেলে এক কথায়- সুন্দর। সারা সময় লেখক শবনমের যে পরিমাণ বর্ণনা করেছেন তাতে প্রচ্ছদটা দেখলে মিলিয়ে নিতে খানিকটা সুবিধা হয়। প্রচ্ছদে শবনমের এক কাল্পনিক রূপ দেখা যায় যা একই সাথে বাস্তবও হতে পারে!

যাইহোক, সর্বপরি বলা যায়, উপন্যাসটি ভালো লেগেছে। যদিও পুরোটা শেষ করার পর মনে হয়েছে নামকরণের ক্ষেত্রে লেখক 'শবনম' এর পরিবর্তে 'নূরে জেহান' কে বিবেচনায় নিতে পারতেন, কেননা অনেকবারই শবনমের বর্ণনা দিতে গিয়ে তিনি লিখেছেন- আমার 'নূরে জেহান'।

মন্তব্য ২৬ টি রেটিং +৮/-০

মন্তব্য (২৬) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১২:০০

মা.হাসান বলেছেন: রিভিউ সুন্দর হয়েছে। বাংলা ইংরেজির মিশ্রণের ব্যাপারে বলব -আমি অনুমান করি লেখক স্বাভাবিক মানুষের ভাষা ব্যবহার করতে চেয়েছেন। আয়রন হ্যামার না বলে লোহার হাতুড়ি বললে মনে হয় খুব ভালো সোনা তো না। বানান ভুল, গেটাপে সমস্যা এসবের কারণ সম্পর্কে আমার কিঞ্চিত ধারণা আছে, তবে বলা সমীচীন মনে করছি না, হয়তো লেখক বিষয়টা খোলাসা করবেন।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:৫৯

ফয়সাল রকি বলেছেন: আয়রন হ্যামার না বলে লোহার হাতুড়ি বললে যে খুব একটা ভালো শোনাতো- তা নয়, আসলে সাবলিল বাংলা লেখনী পড়তে পড়তে হঠাৎ চোখে পড়ে, তাই বলেছি। তবে এটা একান্তই আমার ব্যক্তিগত মতামত ছিল :)
ধন্যবাদ মা.হাসান ভাই মন্তব্যের জন্য।

২| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১২:১৪

মুক্তা নীল বলেছেন:
শবনম বই কে নিয়ে লেখার জন্য আপনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ ।
গল্প উপন্যাস নাটক সবই তো আমাদের জীবনের প্রতিচ্ছবি কিছু কিছু ক্ষেত্রে । আমাদের চারপাশে হাজারো শবনম আছে
এবং শুভর মতো ভালো মন মানসিকতা মানুষও আছে । বর্তমান যুগ অনেকটাই পাল্টেছে তাই এখন দেখা যায় একজন নারী ও পুরুষের বিয়ের পর জীবনে দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে যেকোনো কারনেই । তাই বলে একজন বিবাহিত পূর্ব পরিচিত নারী ও পুরুষ একে অপরকে অবশ্যই সামাজিক মর্যাদা দিতে পারে । সে ক্ষেত্রে আমাদের সমাজ বলে কথা, পুরুষদের ক্ষেত্রে যেটা হয় না কিন্তু নারীদের ক্ষেত্রে সামান্য একটু হতেই পারে। দেখা যাচ্ছে যে অনেক ক্ষেত্রে দুই বাচ্চার মাকে ও অবিবাহিত ছেলেরা বিয়ে করছে । সে ক্ষেত্রে পূর্ব পরিচিত থাকতে পারে অথবা অন্য কোন কারণে ।
এই শবনম বইয়ের কাহিনী আমার কাছে খুব একটা অবাক করা বা নাটকীয়তা মনে হয়নি । শুভর মতো
মন মানসিকতার মানুষ অবশ্যই আছে ।
যাইহোক, সর্বপরি বলা যায়, উপন্যাসটি ভালো লেগেছে --আপনার এই কথার সাথে আমিও সহমত প্রকাশ করছি ।
ভালো ও নিরাপদে থাকুন ।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৬

ফয়সাল রকি বলেছেন: ধন্যবাদ মুক্তা নীল চমৎকার মন্তব্যের জন্য।
আসলে আপনার কথা ঠিক গল্প-্উপন্যাস আমাদের জীবনের প্রতিচ্ছবি। আর এখানকার চরিত্রগুলোও আমাদের সমাজেরই অংশ। তবে ধরুন, প্রথম দেখায় প্রেমে পড়াটা কিন্তু বর্তমান যুগে খুব একটা দেখা যায় না, হয়তো নব্বুইয়ের দশকে হলে ব্যাপারটা সহজে মানা যায়। এরকম টুকটাক নাটকীয়তা আছে। তবে ভালো লেগেছে পড়ে এটাই বড়ো কথা। আশাকরি আগামীতে আরো সমৃদ্ধ লেখা পাবো নীল আকাশ ভাইর কাছে।
ভালো থাকবেন।

৩| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১২:৫০

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: প্রিয় রকি ভাই,

আপনার রিভিউ ভালো হয়েছে। আমি বই মেলা চলাকালীন শবনমের উপর রিভিউ দিয়েছিলাম। আলাদা করে আর কিছু বলার নেই। এককথায় প্রেমের টনিক। প্রেমে সাফল্য পেতে গেলে যে অধ্যাবসায় ও স্টামিনা দরকার, নীল আকাশ ভাই আলোচ্য উপন্যাসে তার এক সুন্দর পাঠ দিয়েছেন।
আপনাদের দু'জনকেই অফুরান শুভেচ্ছা রইল।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:১১

ফয়সাল রকি বলেছেন: ধন্যবাদ চৌধুরি সাহেব।
আপনার রিভিউ দেখেছি, সম্ভবত মন্তব্যও করেছি। আপনার রিভিউ ভালো ছিল।

৪| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১২:৫১

রাজীব নুর বলেছেন: বইটি সংগ্রহ করা হয় নি। সংগ্রহ করতে হবে। পড়তে হবে।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:১২

ফয়সাল রকি বলেছেন: অবশ্যই সংগ্রহ করুন, পড়ুন এবং মন্তব্য দিন।
ধন্যবাদ।

৫| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:০৩

নীল আকাশ বলেছেন: রকি ভাই,
প্রথমেই খুব করে ধন্যবাদ দিতে চাই আপনাকে শবনম নিয়ে রিভিউ তে নিয়ে আসার জন্য।
এই সিরিজটা ব্লগে এক এক পর্বাকারে করে প্রকাশিত হয়েছিল। যখন আমি বই বের করার কথা চিন্তা করলাম তখন
আরও বেশ কয়েকটা পর্ব লিখেছিলাম। স্থান এবং জায়গার অভাবে কারণে আমাকে সুনির্দিষ্ট পৃষ্ঠার মাঝেই কাঁটছাট করে
লিখতে হয়েছে। সেইকারণে পড়ার সময় মনোযোগী পাঠকরা এই উচু নীচু পার্থক্য ধরে ফেলতে পারবেন।

এই বইয়ের ফিনিস আমার অরিজিনাল ফিনিস না। এটা নতুন করে লিখতে হয়েছে। হাতে সুযোগ রেখে দিলাম। যদি আল্লাহ আমাকে আবার কোন দিন সুযোগ দেন তাহলে 'শবনম - অখন্ড' পেতে পারেন।

শ্রদ্ধেয় হাসান ভাই যা বলেছেন, সেটাই ঠিক। বাংলার জায়গায় ইংরেজি শব্দ আমি ইচ্ছে করেই ব্যবহার করেছি কারণ এইগুলি বেশি প্রচলিত। নিজেই চিন্তা করে দেখুন। কথোপকথনের সময় আমরা কোন শব্দগুলি বলি।

বানান ভুলের জন্য আমি দায়ী নই। এটা প্রকাশকের নিজের দায়িত্ব ছিল। আমি আমার পক্ষে যতটুকু সম্ভব দেখে দিয়েছিলাম।

বইয়ের ফাইনাল লাইন ফরম্যাট, বুক মেকআপ এবং লাইন স্পেছিং, 'লেফট/জাস্টিফাইড এ্যালাইন' আমার হাতে হয় নি। আমি যেই ফন্ট ব্যবহার করে লিখেছি, প্রিন্ট সেটাতে হয় নি। এটাও প্রকাশকের নিজের দায়িত্ব ছিল।

'পার্পল কালারের ফুলস্লীভ ড্রেস', 'গড! পেইন, সো ডীপ পেইন' এই ইংরেজি শব্দগুলি আমি চেষ্টা করবো শুদ্ধ বাংলায় পরিবর্তন করে দিতে।

আমার বইয়ের প্রচ্ছদটা ফাটাফাটি হয়েছে। শায়মা আপু এবং জাদিদ ভাই এইদুইজনের কাছে কৃতজ্ঞতা।

বইয়ের নাম করন নিয়ে আমি যা বলবো সেটা হচ্ছে এই নাম 'শবনম' রূপক অর্থে ব্যবহার করা হয়েছে। শবনম ফার্সি শব্দ। সুদূর পারস্য ভাষা থেকে আগত এই শব্দের আভিধানিক অর্থ হচ্ছে ভোরের শিশির। এর সমার্থক শব্দগুলির অর্থ হচ্ছে ক্ষনস্থায়ী, স্বল্পস্থায়ী বা অল্পতেই নিঃশেষ হয়ে যাওয়া। প্রতিটা মানুষের ক্ষনস্থায়ী এই জীবনের সাথে এর কতই না মিল!
শুভ এবং শবনমের ভালোবাসার জীবনে ঘটে যাওয়া দিনপঞ্জীগুলি শবনমের মতোই ক্ষনস্থায়ী বা স্বল্পস্থায়ী।

রিভিউ পছন্দ হয়েছে। পোস্টে লাইক এবং সোজা প্রিয়'তে।

ধন্যবাদ।





০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৬

ফয়সাল রকি বলেছেন: ধন্যবাদ বিশাল এই মন্তব্যের জন্য।
শুরুতেই বলি, মেলায় কেনার পরপরই বইটা পড়ে ফেলেছি। তারপর থেকেই রিভিউ একটা দেবো দেবো করেও সাহস পাই নি। অবশেষে দিয়েছি।

আপনার ব্যাখ্যাগুলো গ্রহণ করার মতোই। তবে পরবর্তীতে যদি ইংরেজি শব্দগুলো পরিবর্তন করেন তাহলে সেটা কিন্তু একান্তই আপনার ইচ্ছাপ্রসূত হয়, কেননা আপনি যদি মনে করেন যে, শব্দগুলো থাকা দরকার তাহলে অবশ্যই পরিবর্তন করবেন না।

যেহেতু নীল সাধুদা প্রকাশক, আর আপনি বলেছেন, বইয়ের ফাইনাল লাইন ফরম্যাট, বুক মেকআপ এবং লাইন স্পেছিং, 'লেফট/জাস্টিফাইড এ্যালাইন' - প্রকাশকের হাতে, তাই আশা করছি নীল সাধুদা আমার রিভিউকে সহজভাবেই নেবেন।

'শবনম' নামের যে অর্থ/ব্যাখ্যা দিয়েছেন তা কখনোই জানা ছিল না। শিরোনামের ব্যাপারে মনে হয়েছিল যে, নূরে জেহানটা পছন্দ করা যেতে পারে তাই বলেছিলাম। আর তাছাড়া নূরে জেহান নামটা অতটা পরিচিত না কিংবা মৌলিক যেটা শবনমের বেলায় না। শবনম নামটা শুনলে প্রথমেই সৈয়দ মুজতবা আলী'র কথা মাথায় আসে।

'শবনম - অখন্ড' -এর অপেক্ষায় থাকলাম।

৬| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:০৫

নীল আকাশ বলেছেন: পাঠ প্রতিক্রিয়া: শবনব
ঠিক করে দিন <<<<<
পাঠ প্রতিক্রিয়া: শবনম হবে

এরপর এই মন্তব্যও ডিলিট করে দেবেন
ধন্যবাদ।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:১৪

ফয়সাল রকি বলেছেন: এতো বড়ো ভুলটা করা উচিত হয়নি। তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে এমনটা হয়েছে। দুঃখিত ভাই। তবে ঠিক করে দিয়েছি। আর আপনার পোষ্টটা ডিলিট করছি না এই কারণে যে, ভুল যে একটা করেছিলাম তা মনে থাকুক।

৭| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:৩৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




শবনম বইটি আমি পড়েছি।
পুলিশ জীবন প্রেমময় জীবন নয়, তারপরও গল্পের ছলেই যদি কিছুটা আনন্দ খোঁজে পাওয়া যায় মন্দ কি? জরুরী নয় গল্প ১০০ তে ১০০ বাস্তব জীবন ছোঁয়ে যেতে হবে। ব্লগার নীল আকাশ আমার খুব পছন্দের একজান ব্লগার সে জন্য প্রশংসা করছি না। সত্যি সত্যি ব্লগার নীল আকাশের প্রথম বই হিসেবে খুব ভালো হয়েছে। আমি শবনম উপন্যাস নিয়ে কিছু কথা লিখতে চেয়েছিলাম করোনাভাইরাসের আক্রমনে সম্ভবত লেখালেখি ভুলে গেছি মনে হচ্ছে।

আপনার পোষ্টের মাধ্যেমে ব্লগার নীল আকাশ ভাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি তাঁর বইয়ের সুন্দর প্রেজেন্টেশানের জন্য। ব্লগার নীল আকাশের ব্লগের প্রতি কৃতজ্ঞতার জন্য। ব্লগার নীল আকাশের পুলিশের প্রতি ভালোবাসার জন্য।

আর ব্লগার নীল আকাশের বুক রিভিউর জন্য আপনাকে জানাচ্ছি অনেক অনেক ধন্যবাদ ও শুভ্ছো।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১০:২৭

ফয়সাল রকি বলেছেন: পুলিশের জীবন হয়তো প্রেমময় নয়, তবে রোমাঞ্চকর বটে। তাদের নিয়ে প্রেম বিষয়ক লেখা খুব একটা দেখা না গেলেও রোমাঞ্চকর লেখা অনেক পাওয়া যায়।
ধন্যবাদ ঠাকুরমাহমুদ ভাই। ভালো থাকবেন।

৮| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৮:৫৭

নীল আকাশ বলেছেন: সুপ্রিয় মাহমুদ ভাই,
আপনাকে ধন্যবাদ এত সুন্দর একটা মন্তব্য করার জন্য।
যেটা কেউ করা তো দুরের কথা চিন্তাও করে না আমি তাদের কে নিয়েই লিখি।
শুভ আমার খুব প্রিয় একটা চরিত্র। আমি শুভ'র দারুন একটা ফিনিস চিন্তা করেছিলাম কিন্তু এবার জায়গার অভাবে দিতে পারিনি। ইনশা আল্লাহ সুযোগ পেলে এই বইয়ের অখন্ড ভার্সন আবার বের করবো।

পুলিশ আমাদের মতোই মানুষ, আমাদের মতোই এদের জীবনে প্রেম জোয়ার ভাটা আসে। এরা আমাদের সমাজেরই অংশ। আমি এদের কাছে কৃতজ্ঞ। আর এই কৃতজ্ঞতা থেকেই শুভ আর রেশমা ২টা সিরিজ গল্প লিখেছি ব্লগে আমি।

ধন্যবাদ সবাইকে যারা শবনম পড়েছেন।
শুভ রাত্রী।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১০:২৯

ফয়সাল রকি বলেছেন: রেশমা পর্বটা পড়ি নি, ওটাও প্রিন্ট ফর্মেটে বের করে ফেলুন।

৯| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:৩৫

সোহানী বলেছেন: বইটা পড়ার সত্যিই আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষায় আছি। আর শায়মার করা প্রচ্ছদও দেখতে চাই।

রিভিউ চমৎকার হয়েছে।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১০:৩৭

ফয়সাল রকি বলেছেন: প্রচ্ছদ সুন্দর হয়েছে আপু।
ধন্যবাদ সোহানী আপু। ভালো থাকুন, সাবধানে থাকুন।

১০| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:৩৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ব্লগে প্রকাশ এর সময় থেকেই আমার বেশ প্রিয় একটা সিরিজ ছিল এই শবনম
ছাপার অক্ষরে দেখে আনন্দিত ! আপনার রিভিউ বেশ লাগলো।

শুভ কামনা !

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১০:৩৯

ফয়সাল রকি বলেছেন: ধন্যবাদ মনিরা আপু।
সাবধানে থাকুন, ভালো থাকুন।

১১| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:১৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংলা সাহিত্যের তারকা, সৈয়দ মুজতবা আলীর প্রসিদ্ধ বইয়ের নামে নাম দেয়াতে, লেখক সম্পর্কে ও উনার সাহিত্য বিষয়ে কিছুটা ধারণা হয়েছে, ভালো ধারণা নয়।

মধুসুদন দ্ত্ত, কবি নজরুল ইসলাম, রবীঠাকুর, শরৎ বাবু, জীবনান্দ দাস প্রমুখ সাহিত্যিকদের বইয়ের নাম ব্যবহার করা বুদ্ধিমানের পরিচয় নয়।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১২:০৪

ফয়সাল রকি বলেছেন: এ বিষয়টা আমি আপনার সাথে একমত। কারণ বইয়ের নাম মৌলিক হলে ভালো হয়।

১২| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: মন্তব্যের উত্তর দেওয়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:৩১

ফয়সাল রকি বলেছেন: ধন্যবাদ রাজীব নুর ভাই ।
সাবধানে থাকুন, ভালো থাকুন।

১৩| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১১:০৪

নীল আকাশ বলেছেন: গল্পঃ স্বৈরাচারিণী
মাত্র একটা পর্ব লিখেছি রেশমা'কে নিয়ে। পড়ে দেখতে পারেন। আরেকটা পর্ব অর্ধেক হয়েছে।
ধন্যবাদ।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:৩২

ফয়সাল রকি বলেছেন: লিংকের জন্য ধন্যবাদ। সময় করে পড়বো ইনশাল্লাহ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.