নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

পড়াশোনা করি। লেখালেখি করি। চাকরি করি। লেখালেখি করে পেয়েছি ৩টি পুরস্কার। জাতিসংঘের (ইউনিসেফ) মীনা মিডিয়া এ্যাওয়ার্ড ২০১১ ও ২০১৬ প্রথম পুরস্কার। জাদুর ঘুড়ি ও আকাশ ছোঁয়ার গল্পগ্রন্থের জন্য অধ্যাপক মোহাম্মদ খালেদ শিশুসাহিত্য পুরস্কার ২০১৬।

বিএম বরকতউল্লাহ

জানতে চাই।

সকল পোস্টঃ

নেশার ছোবল

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:১৫


ফুলের কলি ফুল হলো কই, অকালে যায় ঝরে
পথের শিশুরা পথ না পেয়ে, পথেই যায় মরে।

নেশার ছোবল ওদের গায়ে, পায়ে পায়ে মরণ
নিজের হাতেই অবুঝ শিশু, বিষ করেছে বরণ।

কেউ কি দেখার...

মন্তব্য১৪ টি রেটিং+১

একটি তালগাছের কাহিনি

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:০৩


এক)
আমাদের বাংলা ঘরের কোণায় তিরিশ বছর ধরে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে যে তালগাছটি, সে আমাদের পরিবারের সদস্য। জন্মের পর থেকেই তাকে দেখছি। তার সাথে খেলাধুলা করেছি, আড্ডা দিয়েছি,...

মন্তব্য৩ টি রেটিং+১

পথের ধুলোবালি

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৩২

তোমার যাওয়ার পথে
বাড়ি খেয়ে শাড়ীর পাড়ে
উড়েছে ধুলোবালি
ছাই উড়েছে ঊনূন থেকে
উড়েছে হাওয়ায় কালি।

এমনই ছিলো ভাবনা তোমার
চাঁদ পেয়েছো হাতে
উড়বে তুমি তারায় তারায়
জোছনা ভরা রাতে।

এখন,
ছাই নেমেছে আকাশ থেকে
মেঘ ধুয়েছে কালি
পড়ে আছে...

মন্তব্য৮ টি রেটিং+২

পথের ফুল

১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:১৪

ব্যস্ত পথের ধারে
একটি লতায় ফুটেছিল
একটি বনফুল;

কে দেখেছে তারে?
ধুলিমলিন পাঁপড়িগুলোর
শেকড় ছাড়া মূল।

তবুও বেঁচে থাকে
বৃষ্টি-রোদে ভিজে পোড়ে
বাতাসে খায় দোল,

আলো-ছায়ার ফাঁকে
মধুলোভী কীটপতঙ্গ
দেয় বাড়িয়ে হুল।

মন্তব্য১১ টি রেটিং+২

নতুন ঠিকানা

১০ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:১৬

চানমিয়া ভাই

সেদিনও তাঁকে দেখে এলাম ভালো
চা খেয়েছি বসে পাশাপাশি
চলে গেলেন না-ফেরার এক দেশে
স্মৃতিগুলো হয়নি পুরান বাসি!

বাড়ি গেলে হবে না আর দেখা
বলবে না আর এইতো ভাল আছি
তুমি গেলে ক\'হাত...

মন্তব্য৫ টি রেটিং+১

কষ্ট!

০৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৩৫

এইটুকু ছিল তার শেষ...
তাই নিয়ে ছিনিমিনি এত আয়োজন!
মায়-ছেলের পাগলের বেশ
জানি না সে কষ্টের কতটা ওজন!

মন্তব্য৩ টি রেটিং+০

ফেলানী

০৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৫৭

দুখী মেয়ে ফেলানীটা
একদম ফেলনা...
মেলা থেকে কিনে আনা
প্লাস্টিক খেলনা।

মন্তব্য৬ টি রেটিং+০

শাড়ী

০৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:৩৪

একদিন তারা মজুরি পেয়ে
কিনেছে নতুন শাড়ী
হাতে দিলে পরে মায়ের মুখে
হাসিটা ফুটবে ভারি!

দেৌড়ে এসে মায়ের পাশে
শাড়ীটা দিয়েছে বেড়ে
কথা বলেনা, অভিমানী মা
গিয়েছে সকল ছেড়ে।

মন্তব্য৭ টি রেটিং+১

যোগ-বিয়োগ

২৭ শে আগস্ট, ২০১৮ রাত ৯:৪৫


একজন হাঁটে মাটির সঙ্গে
আর জন হাঁটে শূন্যে
হাত বাড়িয়ে মিলন-সুখে
ভেসেছে দু\'জন পূণ্যে।

ধরণীর বুকে এমনই অনেক
রহস্য করে খেলা
চিন্তাজগতে ঢেউ খেলে না
নির্বাক অবহেলা!

মন্তব্য১২ টি রেটিং+৩

আমাদের সময় ১৬/০৮/২০১৮

১৮ ই আগস্ট, ২০১৮ সকাল ১১:০৭

মন্তব্য৭ টি রেটিং+১

উৎসর্গ

১৪ ই আগস্ট, ২০১৮ বিকাল ৩:৩২

নিঃশেষ করে নি মৃত্যু তোমায়
যাও নি হাওয়ায় মিলিয়ে
সকল কর্মে হৃদয় মর্মে
দিয়েছো তোমায় বিলিয়ে।



মন্তব্য৫ টি রেটিং+৩

সাঁকো

১২ ই আগস্ট, ২০১৮ রাত ১০:৫৬


সাঁকোটা গেছে ডুবে
যাওয়া আসা আর হয় না তেমন পচিম থেকে পুবে।
চারদিকে পানি ছলছল করে
দুরন্ত শিশুরা বসে আছে ঘরে
বানের জলে বন্দি জীবন ফেটে পড়ে বিক্ষোভে।

মন্তব্য৯ টি রেটিং+২

ভাইবোন

০৯ ই আগস্ট, ২০১৮ রাত ৯:৪১


এখানে সেখানে চেয়ে চিন্তে যতটুকু আনে ভাই
দেয় না কিছু নিজের মুখে বোনকে দিবে তাই।
বাবা-মা নেই ভাইবোন মিলে কষ্টে কাটায় দিন
দেখেও তাদের না দেখে চলি কতটা বিবেকহীন!

মন্তব্য৪ টি রেটিং+১

শিশু

০৯ ই আগস্ট, ২০১৮ রাত ৯:৩২

শিশুরা শিশু, থাকেনারে নিচু
জোট বেঁধে হয় বড়ো
দাঁড়ালে তারা হবে দিশেহারা
ভয়ে হবে ঝড়োসড়ো।

মন্তব্য৮ টি রেটিং+০

বাবা হয়েছে কবি

০৯ ই আগস্ট, ২০১৮ সকাল ১০:৫৫

কবির ঘরেতে `কবি\' না-হয়ে
হয়েছে এক পুত্র
আহারে কবির গতরে-ছতরে
টাটকা মলমূত্র।

কখনো সে বুকে পেটে লয়
কখনো ঝাকায় দোলনায়
প‌্যান্টি তেনার স্তূপ পড়ে গেছে
বালতি এবং আলনায়।

ছেলের বাবা হয়েই কবি
দিয়েছে আজব ব্যাখ্যা-
`ছেলেমেয়ে নাকি খেলনা-পুতুল
আবেগে...

মন্তব্য৩ টি রেটিং+০

১০>> ›

full version

©somewhere in net ltd.